ক্রিকেট

একাদশে থাকার জোরালো বিবেচনায় সোহান

টেস্টের একাদশে জায়গা না হলেও ওয়ানডেতে তিনি জোরালো বিবেচনায় থাকবেন বলে জানিয়েছেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল।
Nurul Hasan Sohan
ঝড়ো ইনিংসের পথে নুরুল হাসান সোহান। পরে ‘অবস্ট্রাক্টিং দা ফিল্ড’ আউট হন তিনি। ফাইল ছবি

ঘরোয়া ক্রিকেটে দারুণ ব্যাট করে নিজের দাবিটা জানিয়ে রেখেছিলেন কিপার- ব্যাটসম্যান নুরুল হাসান সোহান। ফল হিসেবে ঠাঁই মিলে সব সংস্করণের স্কোয়াডে। টেস্টের একাদশে জায়গা না হলেও ওয়ানডেতে তিনি জোরালো বিবেচনায় থাকবেন বলে জানিয়েছেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল।

এবার ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ টি-টোয়ন্টিতে সবচেয়ে প্রভাব ফেলা ব্যাটসম্যানদের একজন ছিলেন সোহান। ৩৫.৩৬ গড় আর ১৪৯.৬১ স্ট্রাইকরেটে করেন ৩৮৯ রান।

এতেই তার ডাক পড়ে জিম্বাবুয়ে সফরের সব সংস্করণের দলে। মুশফিকুর রহিম না থাকায় একাদশে আসার ভাবনাতেও আছেন তিনি। বৃহস্পতিবার ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে তামিম সোহানকে দিলেন আশা, আবার রাখলেন দোলাচলেও,  ‘সোহান খুবই ভালো করেছে। শুধু একটি ঘরোয়া টুর্নামেন্টে নয়, গত চার-পাঁচটি টুর্নামেন্টেই সে খুব ভালো করেছে। এজন্যই আমরা তাকে ওয়ানডে স্কোয়াডে নিয়েছি। একাদশে সে জায়গা পাবে কিনা, তা বলতে পারছি না। তবে এটুকু বলতে পারি, সে শক্ত দাবিদার।’

‘সুযোগ যদি থাকে এবং আমাদের কাছে যদি মনে হয়, সে যে পজিশনে ব্যাট করে, সেখানে যদি প্রয়োজন হয়, তাহলে অবশ্যই খেলবে। তার ওপর আমার পূর্ণ বিশ্বাস আছে। আমি নিশ্চিত, সুযোগ পেলে সে ভালো করবে। যেভাবে সে ট্রেনিং করেছে, সে দারুণ টিমম্যান, সে এমন একজন, যে কোনো অধিনায়কই তাকে দলে রাখত। সে দলে ইতিবাচক আবহ ছড়িয়ে দেয়।’

একাদশে জায়গা পেয়ে গেছে ২০১৬ সালের পর মাত্র তৃতীয় ওয়ানডে খেলতে নামবেন তিনি। সেবার নিউজিল্যান্ড সফরে প্রথম ওয়ানডেতে ৩১ বলে ২৪ ও পরেরটিতে ৩৯ বলে করেন ৪৪। দলের সমন্বয়ের কারণেই আর তার জায়গা হয়নি বাংলাদেশ দলে।

সোহানের সঙ্গে একাদশে থাকার লড়াইয়ে থাকবেন মোহাম্মদ মিঠুন। প্রস্তুতি ম্যাচেও রান পেয়েছেন তিনি।

এদিকে মুশফিক না থাকায় চার নম্বরে কে ব্যাট করবেন এই নিয়েও সিদ্ধান্ত নেওয়ার আছে দলের। প্রস্তুতি ম্যাচে লিটন দাসকে চারে ব্যাট করতে দেখা গেছে। তামিম এই জায়গায় রেখে দিলেন ধোঁয়াশা, ‘ব্যাটিং অর্ডার নিয়ে মনে হয় না এখানে আলোচনার বেশি কিছু আছে। ব্যাটিং অর্ডার নিয়ে আমরা দলের মধ্যেই আলোচনা করি। এটা এমন এক জিনিস, যা দলের জন্য যেভাবে ভালো, সেভাবেই সাজানো হয়।’

‘আমরা যদি মনে করি লিটন চারে খেলবে, তাহলে সেখানেই দেখবেন। যদি মনে করি ওপেন করবে, তাহলে সেখানেই। কাল সকালে ম্যাচ শুরু হলে বুঝতে পারবেন।’

শুক্রবার বাংলাদেশ সময় দুপুর দেড়টায় শুরু হবে বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ের প্রথম ওয়ানডে।

Comments