কমেছে টেলিভিশনে আইপিএলের দর্শক

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) টেলিভিশনের পর্দায় আর আগের মতো দেখছেন না ভক্ত-সমর্থকরা।
ছবি: আইপিএল

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) টেলিভিশনের পর্দায় আর আগের মতো দেখছেন না ভক্ত-সমর্থকরা। বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টি-টোয়েন্টি প্রতিযোগিতার এবারের আসরের টিভি রেটিং ও সার্বিক দর্শকসংখ্যা- উভয়ই কমেছে। এতে আইপিএলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ভারত ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) উদ্বিগ্ন হওয়ার যথেষ্ট কারণ রয়েছে।

ভারতের গবেষণা প্রতিষ্ঠান বিএআরসি (ব্রডকাস্ট অডিয়েন্স রিসার্চ কাউন্সিল) দাবি করেছে, উল্লেখযোগ্য হারে কমে গেছে টেলিভিশনে আইপিএলের দর্শক। চলমান আসরের প্রথম সপ্তাহে গতবারের তুলনায় টিভি রেটিং হ্রাস পেয়েছে ৩৩ শতাংশ। প্রথম আটটি ম্যাচে টিভি রেটিং ছিল মাত্র ২.৭৫, যা গত বছর ছিল ৩.৭৫।

তারা আরও জানিয়েছে, সার্বিকভাবেও দর্শক কমেছে আইপিএলে। প্রথম সপ্তাহে মোট দর্শক ১৪ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ২২৯.০৬ মিলিয়নে। গত আসরে একই পর্যায়ে আইপিএলের টেলিভিশন দর্শক ছিল ২৬৭.৭ মিলিয়ন।

বিএআরসির তথ্য অনুসারে, আইপিএলের প্রথম সপ্তাহে মাত্র দুটি ম্যাচে টেলিভিশন দর্শকসংখ্যা ১০০ মিলিয়ন অতিক্রম করেছে। একটি ছিল কলকাতা নাইট রাইডার্স ও চেন্নাই সুপার কিংসের মধ্যকার আসরের উদ্বোধনী ম্যাচ, অপরটি ছিল পাঞ্জাব কিংস ও রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর মধ্যে। অথচ গত আসরের প্রথম সপ্তাহে চারটি ম্যাচ ১০০ মিলিয়নের বেশি দর্শক দেখেছিল।

আইপিএলের দর্শক কমে যাওয়াতে কিছুটা শঙ্কা ছড়িয়ে পড়েছে বিজ্ঞাপনদাতাদের মধ্যেও। বর্তমান পরিস্থিতির পেছনে বেশ কিছু কারণকে চিহ্নিত করার চেষ্টা চালানো হচ্ছে। সেগুলোর মধ্যে আছে দীর্ঘ সূচি, নতুন দল যোগ হওয়া, খেলার সংখ্যা বেড়ে যাওয়া ইত্যাদি।

বিএআরসির গবেষণার ফল এমন সময়ে প্রকাশ পেল যখন বিসিসিআই আইপিএলের মিডিয়া স্বত্ব বিক্রি করতে যাচ্ছে। আগামী ২০২৩-২৭ সালের জন্য ভিত্তি মূল্য ধরা হয়েছে ৩৩ হাজার কোটি রূপি। আগামী ১২ জুলাই অনুষ্ঠিত হবে মিডিয়া স্বত্ব বিক্রির নিলাম। তবে আগ্রহী প্রতিষ্ঠানগুলো অবশ্যই বিনিয়োগের আগে নতুন করে ভাবতে বাধ্য হবে।

Comments

The Daily Star  | English

Israeli occupation 'affront to justice'

Arab states tell UN court; UN voices alarm as Israel says preparing for Rafah invasion

1h ago