ম্যাচ রিপোর্ট

দারুণ জবাব দিচ্ছে জিম্বাবুয়ে

বৃহস্পতিবার হারারে টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষে বাংলাদেশের ৪৬৮ রানের জবাবে ১ উইকেটে ১১৪ রান করেছেন জিম্বাবুয়ে। ব্যাট করেছে ৪১ ওভার। ওপেনার মিল্টন শুম্বা আউট হয়েছেন ৪১ রান করে।

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ-তাসকিন আহমেদের বীরত্বের পর বাংলাদেশের পাওয়া বড় পুঁজির নিচে নেমে ভড়কায়নি জিম্বাবুয়ে। তরুণ দুই ওপেনারের এনে দেওয়া শক্ত ভিতের পর তিন নম্বরে নেমে সাবলীল ব্যাট করছেন অধিনায়ক ব্র্যান্ডন টেইলর।

বৃহস্পতিবার হারারে টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষে বাংলাদেশের ৪৬৮ রানের জবাবে ১ উইকেটে ১১৪ রান করেছেন জিম্বাবুয়ে। ব্যাট করেছে ৪১ ওভার। ওপেনার মিল্টন শুম্বা আউট হয়েছেন ৪১ রান করে।

৪৬ বলে ৩৭ রান নিয়ে খেলা টেইলরের সঙ্গে ক্রিজে আছেন ১১৭ বলে ৩৩ রান করা অভিষিক্ত ওপেনার তাকুওয়ানশে কাইটানো। বাংলাদেশের হয়ে এখন পর্যন্ত একমাত্র উইকেটটি পেয়েছেন সাকিব আল হাসান।

বিশাল পুঁজির নিচে নেমে দুই ওপেনার শুরুটা করেন ভীষণ সতর্ক পথে। ইবাদত হোসেনের বলে রান বাড়ালেও তারা তাসকিনকে খেলছিলেন বাড়তি নজর দিয়ে। ৮ ওভারের প্রথম স্পেলে তাই মাত্র ২ রান দিয়েছিলেন তাসকিন। দিনের শেষে আরও ২ ওভার বল করে দিয়েছেন ১৪ রান।

সতর্ক শুরু পাওয়া জিম্বাবুয়ের দুই ওপেনার অনায়াসে ক্রিজে কাটিয়ে দেন ২৭ ওভার। অবশ্য সেই তুলনায় জুটিতে রান ৬১। ২৮তম ওভারে শুম্বাকে এলবিডব্লিউ করে আঘাত হানেন সাকিব। সাকিবের বলে স্লগ করতে গিয়ে বাঁহাতি শুম্বা ব্যাটে নিতে পারেননি।

এরপর তিনে নেমেই চনমনে খেলতে থাকেন টেইলর। সাকিব, মেহেদী হাসান মিরাজকে খেলতে থাকেন স্বস্তির সঙ্গে। দ্রুত আসতে থাকে রানও। পরে তাসকিনের বল পেয়েও রান বের করেছেন তিনি।

ওয়ানডে মেজাজে খেলে এরমধ্যে ৬ বাউন্ডারি মেরে দিয়েছেন তিনি। বাংলাদেশের বোলিং ছিল গড়পড়তা। মিরাজ ছিলেন একদম সাদামাটা। তাকে খেলতে বিন্দুমাত্র বেগ পেতে হয়নি জিম্বাবুয়ের ব্যাটসম্যানদের। তাসকিন টানা জায়গায় বল ফেলে ব্যাটসম্যানদের আটকে রাখার চেষ্টা করলেও ইবাদত ছিলেন একদমই নির্বিষ। উইকেট ছাড়া সাকিবের বলেও তেমন কিছু হয়নি। 

জিম্বাবুয়ের ভালো শুরুর পরও দিনটা নিঃসন্দেহে বাংলাদেশের। সেই কাজটা যে আগেই করে দিয়ে গেছেন মাহমুদউল্লাহ আর তাসকিন। ৮ উইকেটে ২৯৪ রান নিয়ে নেমে শেষ দুই উইকেটে তাদের বীরত্বে আরও ১৭৪ রান যোগ করে শক্ত অবস্থায় যেতে পেরেছে দল।

নবম উইকেটে রেকর্ড ১৯১ রানের জুটিতে জিম্বাবুয়ের আলগা বোলিং, বাজে ফিল্ডিংয়ের দায় আছে তবে মাহমুদউল্লাহ-তাসকিন ছিলেন দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। দুজনেই খেলছেন ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস। মাহমুদউল্লাহ পঞ্চম টেস্ট সেঞ্চুরি তুলে শেষ পর্যন্ত অপরাজিতই ছিলেন ১৫০ রানে। প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে নিজের প্রথম ফিফটি করে আউট হওয়া তাসকিনের ব্যাট থেকে আসে মহামূল্যবান ৭৫ রান। আগের দিন মুমিনুল হকের ৭০ আর লিটন দাসের ৯৬ ভুলিয়ে এদিনের নায়ক তারা।

১ উইকেটে ১১৪ রান আনলেও ফলোঅন এড়াতেই এখনো  আরও ১৫৫ রান করতে হবে স্বাগতিকদের। তৃতীয় দিনের সকালে দ্রুত উইকেট নিয়ে ম্যাচের লাগাম পুরোটাই নিজেদের দিকে নেওয়ার সুযোগ তাই বাংলাদেশের সামনে অবারিত।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

(দ্বিতীয় দিন শেষে)

বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস: ১২৬ ওভারে ৪৬৮ (সাইফ ০, সাদমান ২৩, শান্ত ২, মুমিনুল ৭০, মুশফিক ১১, সাকিব ৩, লিটন ৯৫, মাহমুদউল্লাহ ১৫০*, মিরাজ ০, তাসকিন ৭৫, মুজারাবানি ৪/৯৪, এনগারাভা ১/৮৩, টিরিপানো ২/৫৮, নিয়াউচি ২/৯২, মেয়ার্স ০/১৩, শুম্ভা ০/৬৪, কাইয়া ০/৪৩)।

জিম্বাবুয়ে প্রথম ইনিংস: ৪১ ওভারে ১১৪/১(শুম্বা ৪১, কাইটানো ৩৩*, টেইলর ৩৭* ; তাসকিন ০/১৬ , ইবাদত ০/২৮ , সাকিব ১/৪৩, মিরাজ ০/২৪)

Comments

The Daily Star  | English
Benazir Ahmed corruption scandal

An IGP’s eye-watering corruption takes the lid off patronage politics

Many of Benazir Ahmed's public statements since assuming high office aligned more with the ruling party's political stance than with the neutral stance expected of a civil servant.

5h ago