লিটনের বিদায়ে ভাঙল বাংলাদেশের উদ্বোধনী জুটি

সফরকারীদের সংগ্রহ ১৪ ওভারে ১ উইকেটে ৮৮ রান।
tamim_and_liton
ছবি: টুইটার

আগের দুই ম্যাচেই শুরুর দিকে টপাটপ উইকেট হারিয়ে বিপর্যয়ে পড়েছিল বাংলাদেশ। এদিন চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য তাড়ায় ভিন্ন চিত্রের দেখা মিলেছে। তামিম ইকবালের সঙ্গে দারুণ একটি উদ্বোধনী জুটি গড়ার পর সাজঘরে ফিরেছেন লিটন দাস।

মঙ্গলবার হারারেতে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে জিম্বাবুয়ের ২৯৮ রানের জবাবে ব্যাট করছে বাংলাদেশ। এই প্রতিবেদন লেখার সময়, সফরকারীদের সংগ্রহ ১৪ ওভারে ১ উইকেটে ৮৮ রান। ক্রিজে আছেন অধিনায়ক তামিম ৪৭ বলে ৫১ ও মাত্রই নামা সাকিব আল হাসান ১ বলে ০ রানে।

জিম্বাবুয়েকে হোয়াইটওয়াশ করার পাশাপাশি আইসিসি ওয়ানডে সুপার লিগের গুরুত্বপূর্ণ ১০ পয়েন্টের জন্য বাংলাদেশের চাই আরও ২১১ রান। এই লক্ষ্য পূরণে তারা পাচ্ছে ৩৬ ওভার। তাদের হাতে রয়েছে ৯ উইকেট।

এদিনের উইকেট ব্যাটিংয়ের জন্য খুবই ভালো। বোলাররা তেমন সুবিধা না পাওয়ায় বাড়তি কোনো ঝুঁকি না নিলেও রান তোলা সহজ। বাংলাদেশের দুই ওপেনার সেই মন্ত্র মেনে খেলেছেন অনায়াসে।

ইনিংসের অষ্টম ওভারে দলীয় পঞ্চাশ পূরণ হয় বাংলাদেশের। পেসার টেন্ডাই চাতারার শেষ তিন বলে যথক্রমে ১ ছক্কা ও ২ চার মারেন তামিম। সবমিলিয়ে ওই ওভার থেকে আসে ১৯ রান।

পাওয়ার প্লেতে ৫৭ রান তোলা বাংলাদেশ লিটনকে হারায় ১৪তম ওভারে। সুইপ করতে গিয়ে টপ-এজ হয়ে যায়। শর্ট ফাইন লেগে সহজ ক্যাচ লুফে নেন টাডিওয়ানাশে মারুমানি।

পেসাররা সুবিধা করতে পারছিলেন না দেখে ওই ওভারেই আক্রমণে স্পিন আনেন জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক ব্রেন্ডন টেইলর। আর ওয়েসলি মাধেভেরে শেষ ডেলিভারিতে পান সাফল্য। ৩৭ বলে ৪ চারে ৩২ করে সাজঘরে ফেরেন লিটন।

সঙ্গীকে হারানোর তিন বল আগে তামিম তুলে নেন ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ৫২তম ফিফটি। আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে যা আসে ৪৬ বলে। ব্যক্তিগত অর্জনে পৌঁছাতে ৪ চারের সঙ্গে ২ ছক্কা হাঁকান তিনি।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে তিনশো ছুঁইছুঁই সংগ্রহে অলআউট হয় জিম্বাবুয়ে। প্রথম দুই ম্যাচ জিতে ইতোমধ্যে সিরিজ নিশ্চিত করা বাংলাদেশ তাই সামনে পেয়েছে বড় লক্ষ্য। স্বাগতিকদের হয়ে ৯১ বলে সর্বোচ্চ ৮৪ রান আসে ওপেনিংয়ে নামা রেজিস চাকাভার ব্যাট থেকে। 

সিকান্দার রাজা ৫৪ বলে ৫৭ আর রায়ান বার্ল মাত্র ৪৩ বলে করেন ৫৯ রান। ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে তারা যোগ করেন গুরুত্বপূর্ণ ১১২ রান। তাদের ঝড়ে শেষ ১০ ওভারে ৯৪ রান তোলে জিম্বাবুয়ে।

একাদশে ফেরা বাঁহাতি পেসার মোস্তাফিজুর রহমান ৫৭ রানে নেন ৩ উইকেট। মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন সমানসংখ্যক উইকেট নিলেও ছিলেন ভীষণ খরুচে। তার ১০ ওভারে আসে ৮৭ রান।

Comments

The Daily Star  | English

Consumers brace for price shocks

Consumers are bracing for multiple price shocks ahead of Ramadan that usually marks a period of high household spending.

2h ago