‘নাসুম সব সময় ভিন্ন কিছুর চেষ্টা করে’

১৫৬ রান তাড়ায় পাওয়ার প্লের মধ্যেই ২০ রানে ৪ উইকেট হারায় সফরকারীরা। সবগুলো উইকেটই নেন নাসুম। তার বোলিং ফিগার দাঁড়ায় ৪-০-১০-৪! ম্যাচ সেরাও হয়েছেন তিনি।
ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ

উইকেট খুব একটা মন্থর ছিল না। ১৫৫ রান করেও তাই স্বস্তিতে ছিল না বাংলাদেশ দল। তবে ওই রান আটকাতে গিয়ে কাজটা একদম সহজ করে দেন নাসুম আহমেদ। দারুণ বল করে কাবু করে দেন আফগানিস্তানকে। লিটন দাস জানালেন, এই বাঁহাতি স্পিনার সব সময়ই ভিন্ন কিছু করার চেষ্টা করেন।

১৫৬ রান তাড়ায় পাওয়ার প্লের মধ্যেই ২০ রানে ৪ উইকেট হারায় সফরকারীরা। সবগুলো উইকেটই নেন নাসুম। তার বোলিং ফিগার দাঁড়ায় ৪-০-১০-৪! ম্যাচ সেরাও হয়েছেন তিনি।

এর আগে দলের জেতার ভিত অবশ্য করে দেন লিটন। তার ৪৪ বলে ৬০ রানের ইনিংসে বাংলাদেশ পায় লড়াইয়ের পুঁজি। ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসে লিটন জানালেন, প্রথাগত বাঁহাতি স্পিনারদের মতো না। নাসুম টি-টোয়েন্টির দাবি মেনে সব সময়ই ভিন্ন কিছুর খোঁজে থাকেন,  'ও বেসিক বাঁহাতি স্পিনারের মতো আমার মনে হয় না কখনই। কারণ আমি ওকে নেটে খেলি। ও সব সময় কিছু একটা ভিন্ন রকম চেষ্টা করে। টি-টোয়েন্টিতে এই জিনিসটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। বোলার যদি একই ছন্দে বল করে ব্যাটসম্যানদের পিক করা খুব সহজ হয়ে যায়।'

লিটন জানান, তারা ১৫৫ রান করার পরও সেটাকে চ্যালেঞ্জিং পুঁজি মনে হয়নি। অন্তত ২০ রানের ঘাটতি অনুভব করেছেন তারা। কিন্তু বল হাতে নাসুম দুর্দান্ত থাকায় কোন কিছু নিয়ে আর পরে ভাবতে হয়নি, 'নাসুম যে বল করেছে আসলে গেম চেঞ্জিং বল। ও যদি আর্লি ব্রেক থ্রো না দিত তাহলে হয়ত ভিন্নরকম বল গেম হতো। আমি মনে করি উইকেট বেটার ছিল। সে জায়গা থেকে নাসুম যে বল করেছে সেটা অসাধারণ।'

Comments

The Daily Star  | English

Avoid heat stroke amid heatwave: DGHS issues eight directives

The Directorate General of Health Services (DGHS) released an eight-point recommendation today to reduce the risk of heat stroke in the midst of the current mild to severe heatwave sweeping the country

46m ago