প্রিয়-১০

প্রিয় কবিতা ‘বিদ্রোহী’

কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন। তার উপন্যাসে প্রতিফলিত হয়েছে সমকালের সামাজিক ও রাজনৈতিক দ্বন্দ্ব-সংকটের সামগ্রিকতা। লিখেছেন ছোটদের জন্যেও। তার লেখার জগত বাংলাদেশের মানুষ, জীবন সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য। বর্তমানে দ্বায়িত্ব পালন করছেন বাংলা একাডেমির সভাপতি হিসেবে। সেলিনা হোসেনের প্রিয় ১০টি বিষয়।
ছবি: স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন। তার উপন্যাসে প্রতিফলিত হয়েছে সমকালের সামাজিক ও রাজনৈতিক দ্বন্দ্ব-সংকটের সামগ্রিকতা। লিখেছেন ছোটদের জন্যেও। তার লেখার বিষয় বাংলাদেশের মানুষ, জীবন সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য। বর্তমানে দ্বায়িত্ব পালন করছেন বাংলা একাডেমির সভাপতি হিসেবে। সেলিনা হোসেনের প্রিয় ১০টি বিষয়।

 

প্রিয় বই

বাংলা সাহিত্যের মধ্যে 'গোরা' উপন্যাসটি আমার বেশ ভালো লাগে। তবে আমার সবচেয়ে প্রিয় বই রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের 'ছিন্নপত্র'। এ ছাড়া 'পথের পাঁচালী'; তারাশঙ্করের 'কবি'; মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের 'পদ্মা নদীর মাঝি'; সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহ'র 'লাল সালু'; শওকত      ওসমানের 'জননী' ও আখতারুজ্জামান ইলিয়াসের 'চিলেকোঠার সেপাই' আমার প্রিয় বই। 

প্রিয় লেখক

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

নিজের লেখা প্রিয় বই

'গায়ত্রী সন্ধ্যা'।  ৪৭ থেকে ৭৫ পর্যন্ত দেশের আর্থ-সামাজিক প্রেক্ষাপট নিয়ে লেখা এই ৮০০ পৃষ্ঠার বইটিই আমার নিজের রচিত প্রিয় বই।

প্রিয় কবিতা

নজরুলের 'বিদ্রোহী' সবচেয়ে ভালো লাগে, 'বল বীর চির উন্নত মম শির'।

প্রিয় গান

সেভাবে বলতে গেলে, রবীন্দ্রনাথ এবং নজরুলের গানগুলোই আমার প্রিয়।

প্রিয় ব্যক্তিত্ব

আনিসুজ্জামান স্যার।

প্রিয় কাজ

অবশ্যই বই পড়া।

প্রিয় জায়গা

ওভাবে প্রিয় জায়গা নেই, কারণ দেশের মধ্যে টেকনাফ থেকে তেতুলিয়া সব জায়গায়ই আমি ঘুরেছি। তবে বলতে পারব না এই জায়গা আমার প্রিয় আর এই জায়গা আমার প্রিয় না।

প্রিয় উক্তি 

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর শিলাইদহের এসে বলেছিলেন 'শুধু কোলকাতায় থাকলে আমি অসাধারণ জায়গাটা দেখতে পারতাম না' এটাই আমার প্রিয় উক্তি। যা আমাকে পূর্ণ ছবির মগ্নতা বইটিতে আছে। আমিও এমন করি, শুধু শহরে থেকে মানুষের জীবন নিয়ে গল্প করি না। আমি যখনই কোনো লেখা তৈরি করতে যাই, সে জায়গাটা ঘুরতে যাই।

প্রিয় ভুল 

না, আমার সেরকম কোনো প্রিয় ভুল নেই।

Comments

The Daily Star  | English
DSCC seals building on Satmasjid Road for lack of fire safety measures

DSCC seals building on Satmasjid Road for lack of fire safety measures

A mobile court of Dhaka South City Corporation today sealed off a 12-storey building, named Keari Crescent, on the capital’s Satmasjid Road due to its lack of fire safety measures

39m ago