ক্যাম্পাস

শাবিপ্রবির হল খুলছে আগামীকাল, পরশু থেকে অনলাইন ক্লাস

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবিপ্রবি) আগামীকাল সোমবার থেকে সব আবাসিক হল খুলে দেওয়ার এবং মঙ্গলবার থেকে অনলাইন ক্লাস চালুর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
স্টার ফাইল ফটো

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবিপ্রবি) আগামীকাল সোমবার থেকে সব আবাসিক হল খুলে দেওয়ার এবং মঙ্গলবার থেকে অনলাইন ক্লাস চালুর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

আজ রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ের জরুরি সিন্ডিকেট সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এছাড়া, সরকারি বিধিনিষেধ না থাকলে আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি স্বাস্থ্যবিধি মেনে সশরীরে ক্লাস শুরুরও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় জরুরি সভায়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মো. ইশফাকুল হোসেন দ্য ডেইলি স্টারকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলন শুরুর ২৮ দিন পর আজ নিজ কার্যালয়ে প্রশাসনিক কার্যক্রমে অংশ নেন উপাচার্য। দাপ্তরিক বিভিন্ন বিষয়ে নির্দেশনা দেওয়া ছাড়াও, তিনি সিন্ডিকেটের জরুরি সভা আহবান করেন।

এর আগে গত শুক্রবার শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি ও শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের সঙ্গে বৈঠক শেষে শনিবার সন্ধ্যায় আন্দোলন স্থগিত ঘোষণা করেন শিক্ষার্থীরা।

গত ১৩ জানুয়ারি বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী হলের প্রাধ্যাক্ষ অধ্যাপক জাফরিন লিজার পদত্যাগের দাবিতে শুরু হওয়া আন্দোলন চলাকালে ১৬ জানুয়ারি শিক্ষার্থীদের উপর পুলিশী অ্যাকশনের প্রতিবাদে উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলন শুরু হয়।

সেদিন রাতেই সিন্ডিকেটের জরুরি সভা ডেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল ক্লাস ও পরীক্ষা অনির্দ্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেন উপাচার্য। এর প্রতিবাদে পরদিন থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক কার্যক্রমের সকল দপ্তরে তালা দিয়ে দেয় শিক্ষার্থীরা। ১৯ জানুয়ারি থেকে আমরণ অনশনেও বসেন ২৪ শিক্ষার্থী।

পরে সরকারের উচ্চপর্যায়ের মাধ্যমে আশ্বস্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক দুই অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল ও অধ্যাপক ড. ইয়াসমীন হক শিক্ষার্থীদের দাবি মানার ব্যাপারে আশ্বস্ত করলে গত ২৬ জানুয়ারী অনশন ভাঙেন শিক্ষার্থীরা। পরে গতকাল শনিবার শিক্ষামন্ত্রীর আশ্বাসে আন্দোলন স্থগিত ঘোষণা করেন তারা।

Comments

The Daily Star  | English

No train operations until 'situation improves'

Bangladesh Railway (BR) will not resume operation of passenger and freight trains until the "situation improves," Railways Minister Zillur Hakim told The Daily Star today

15m ago