দুয়ার খুলল বালি

বৈশ্বিক করোনা মহামারির কারণে প্রায় ২ বছর বন্ধ থাকার পর বিদেশিদের জন্য দুয়ার খুলেছে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি বালি।
ছবি: রয়টার্স ফাইল ফটো

বৈশ্বিক করোনা মহামারির কারণে প্রায় ২ বছর বন্ধ থাকার পর বিদেশিদের জন্য দুয়ার খুলেছে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি বালি।

দীর্ঘদিন বন্ধের পর গত বুধবার ইন্দোনেশিয়ার অন্যতম প্রধান অবকাশকেন্দ্র বালি দ্বীপে প্রথম আন্তর্জাতিক যাত্রীবাহী উড়োজাহাজ অবতরণ করে।

গতকাল বৃহস্পতিবার বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের বিস্তার রোধে দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার দেশটিতে কোয়ারেন্টিন বিধি আরোপের পর তা শিথিল হওয়ায় বালিতে আবার বিদেশি পর্যটকদের আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছে।

বালি দ্বীপের গভর্নর ওয়ায়েন কোস্টার গত বুধবার সংবাদ সম্মেলনে বলেন, সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের এক উড়োজাহাজে ১০৯ বিদেশি ও ৪৭ ইন্দোনেশীয় বালিতে এসেছেন।

বর্তমান স্বাস্থ্যবিধি অনুযায়ী বিদেশিদের ৩ থেকে ৭ দিন পর্যন্ত নির্দিষ্ট হোটেলে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। টিকার ডোজের সংখ্যার ওপর ভিত্তি করে এই কোয়ারেন্টিনের দিন নির্ধারণ করা হবে।

গভর্নর আরও বলেন, 'পর্যটকরা যদি যাওয়া-আসার সময় নেগেটিভ রেজাল্ট দেখাতে পারেন এবং যথাযথভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলেন তাহলে আশা করছি মার্চের শুরুতে কোয়ারেন্টিনের বাধ্যবাধকতা তুলে নেওয়া যেতে পারে।'

বালি বিমানবন্দরে অস্ট্রেলীয় পর্যটক জেমস গণমাধ্যমকে বলেন, 'পর্যটনের জন্য বালির দরজা বিদেশিদের জন্য খুলে দেওয়া একটা শুভ লক্ষণ।'

বালিতে প্রায়ই বেড়াতে আসা সুইজারল্যান্ডের নাগরিক মানুয়েলা বলেন, 'এটা হচ্ছে ঈশ্বরের দ্বীপ।'

তিনি আরও বলেন, 'গত ২ বছর বালিতে আসতে পারিনি। এটা অনেক লম্বা সময়। হঠাৎ এক বন্ধু জানালো বালিতে যাওয়ার অনুমতি মিলছে। আর আমি সঙ্গে সঙ্গে প্রথম ফ্লাইটের টিকেট কিনে ফেলি।'

সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্স জানিয়েছে চাহিদা ভালো থাকায় তারা প্রতিদিনই বালিতে ফ্লাইট রাখবে।

বালির গভর্নর জানিয়েছেন, অন্যান্য উড়োজাহাজ সংস্থা যেমন অস্ট্রেলিয়ার জেটস্টার এয়ারওয়েজ আগামী মাসের প্রথম দিকে বালিতে ফ্লাইট শুরু করতে পারে।

বালি হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি রাই বিজয়া বলেন, 'ওমিক্রনের বিস্তার নিয়ে আমরা চিন্তিত। তবে যেহেতু স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মেনে চলা হচ্ছে তাই আমরা আতঙ্কিত নই।'

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, গত মঙ্গলবার ইন্দোনেশিয়ায় রেকর্ড সংখ্যক করোনা রোগী শনাক্ত হয়। সরকারি হিসাবে দেশটিতে প্রতিদিন গড়ে ৫৭ হাজার মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন।

এ ছাড়াও, গত সপ্তাহে পূর্ব এশিয়ার দেশ ফিলিপাইন বিদেশি পর্যটকদের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে এবং ভিয়েতনাম আগামী ১৫ মার্চ খুলে দেওয়ার পরিকল্পনা করছে।

Comments

The Daily Star  | English

Submarine cable breakdown disrupts Bangladesh internet

It will take at least 2 to 3 days to resume the connection

45m ago