সব বিভাজনের ঊর্ধ্বে...

চিতার আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে যাচ্ছে ‘সন্তুর’ নামের বাদ্যযন্ত্রটিকে বিশ্বের দরবারে বিশেষ মর্যাদায় প্রতিষ্ঠা করা পণ্ডিত শিবকুমার শর্মার নশ্বর দেহ। আর তা তাকিয়ে দেখছেন ভারতীয় ধ্রুপদী সংগীত জগতের আরেক উজ্জ্বল নক্ষত্র তবলা বাদক ওস্তাদ জাকির হোসেন।
ছবি: টুইটার থেকে

চিতার আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে যাচ্ছে 'সন্তুর' নামের বাদ্যযন্ত্রটিকে বিশ্বের দরবারে বিশেষ মর্যাদায় প্রতিষ্ঠা করা পণ্ডিত শিবকুমার শর্মার নশ্বর দেহ। আর তা তাকিয়ে দেখছেন ভারতীয় ধ্রুপদী সংগীত জগতের আরেক উজ্জ্বল নক্ষত্র তবলা বাদক ওস্তাদ জাকির হোসেন।

আলাদা ধর্মের কিংবদন্তি এই দুই শাস্ত্রীয় সংগীতশিল্পী জীবনে বেশ কয়েকবার একসঙ্গে মঞ্চ মাতিয়েছেন। শেষ পর্যন্ত মুত্যু এই যুগলের মধ্যে রেখা টেনে দিলো।

গত ১১ মে বিকেলে মুম্বাইয়ের ভিলে পার্লের পবন হংস মহাশ্মশানে শিবকুমারের মরদেহ পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাহ করা হয়। সেই জ্বলন্ত চিতার পাশে একাকী শুভ্র বসনে দাঁড়িয়ে থাকা জাকির হোসেনের এই ছবিটি মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে পড়ে নেট দুনিয়ায়। যে ছবিটিকে ভারতীয় 'ধর্মনিরপেক্ষতার' প্রতীক হিসেবে বিবেচনা করছেন অনেকে। বলছেন, এটাই সত্যিকারের ভারত। যেখানে কোনো সাম্প্রদায়িক বিভাজন থাকতে পারে না।

এর বাইরে আরেকটি ছবিতেও শেষযাত্রায় পণ্ডিত শিবকুমার শর্মার মরদেহ কাঁধে তুলে নিতে দেখা যায় জাকির হোসেনকে।

পণ্ডিত শিবকুমার শর্মার মরদেহ কাঁধে ওস্তাদ জাকির হোসেন। ছবি: টুইটার থেকে

কাশ্মীরের বাদ্যযন্ত্র সন্তুর উপত্যকার বাইরে খুব একটা পরিচিত ছিল না। এ বাদ্যযন্ত্রকে ভারতে জনপ্রিয় করে তোলার ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা ছিল পণ্ডিত শিবকুমার শর্মার। সেতার, সরোদের মতোই জনপ্রিয় হয়ে ওঠে সন্তুর। অনেকেই বাদ্যযন্ত্রটির প্রতি আকৃষ্ট হয়ে ওঠেন।

কিডনির সমস্যায় ভুগতে থাকা শিবকুমার গত ১০ মে মুম্বাইয়ে নিজ বাড়িতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। তার বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর।

Comments

The Daily Star  | English

Three lakh stranded as flash flood hits 4 upazilas of Sylhet

Around three lakh people in four upazilas of Sylhet remain stranded by a flash flood triggered by heavy rain in the bordering areas and India's Meghalaya

44m ago