পৃথিবীর বাইরেও ১০টি নতুন পৃথিবী!

পৃথিবীর বাইরে সন্ধান পাওয়া গেছে ১০টি নতুন পৃথিবীর! খবরটি পড়ে নিশ্চয় চমকে যাওয়ার কথা! হ্যাঁ, সম্প্রতি সৌরজগতের বাইরে পৃথিবীর মতো আরও ১০টি গ্রহের সন্ধান পেয়েছে মার্কিন মহাকাশ সংস্থা নাসার কেপলার মিশন।
Planet
সম্প্রতি মহাকাশে ১০টি নতুন পৃথিবীর খবর পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা। ছবি: এপি

পৃথিবীর বাইরে সন্ধান পাওয়া গেছে ১০টি নতুন পৃথিবীর! খবরটি পড়ে নিশ্চয় চমকে যাওয়ার কথা! হ্যাঁ, সম্প্রতি সৌরজগতের বাইরে পৃথিবীর মতো আরও ১০টি গ্রহের সন্ধান পেয়েছে মার্কিন মহাকাশ সংস্থা নাসার কেপলার মিশন।

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় নাসার এইমস রিসার্চ সেন্টারের বিজ্ঞানী মারিও পেরেজ এ তথ্য প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, “কেপলারের তথ্য বিশ্লেষণ নির্ভুল। গ্রহগুলো পৃথিবীর সমান আকারের এবং এদের নিজস্ব কক্ষপথ রয়েছে।”

এছাড়াও, সৌরজগতের বাইরে বিভিন্ন আকারের আরও ২১৯টি গ্রহের সন্ধান পেয়েছেন নাসার জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, কেপলার স্পেস টেলিস্কোপে ধরা পড়েছে এই গ্রহগুলির উপস্থিতি।

শুধু তাই নয়, আন্তর্জাতিক মহাকাশ সংস্থাটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে – আবিস্কৃত গ্রহগুলোর মধ্যে ১০টি বিশেষ গ্রহও রয়েছে, যেখানে প্রাণের সন্ধান মিলতে পারে। গ্রহগুলো শিলাময় এবং সেখানে পানি থাকার যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে। এই গ্রহগুলির পৃষ্ঠদেশ পাথুরে হলেও সেখানে প্রাণ সঞ্চারের উপাদান বর্তমান। খবরটি চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে বিজ্ঞান জগতে।

ক্যালিফোর্নিয়ার মাউন্টেন ভিউতে অবস্থিত সার্চ ফর এক্সট্রা টেরিস্ট্রিয়েল ইন্টেলিজেন্স (এসইটিআই) ইন্সটিটিউটের কেপলার বিজ্ঞানী সুসান টম্পসন জানান, “পৃথিবীর সবচেয়ে নিকটতম বাসযোগ্য গ্রহটি হচ্ছে কে৭৭-১১। সূর্য থেকে আমরা যেমন শক্তি পাই, এটিও সেই পরিমাণ শক্তি পায়। গ্রহটি আকারে পৃথিবী থেকে সামান্য বড়।”

সৌরজগতের বাইরে বাসযোগ্য গ্রহ অনুসন্ধানের কাজে নিয়োজিত নাসার টেলিস্কোপ কেপলার। সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী কেপলার এখন পর্যন্ত সৌরজগতের বাইরে ৪,০৩৪টি গ্রহ আবিষ্কার করেছে, যার মধ্যে ২,৩৩৫টির অবস্থান সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া গেছে। ছায়াপথগুলোর মধ্যে কোথাও কোনো গ্রহে প্রাণের সম্ভাবনা থাকতে পারে কি না, সেই দুরূহ অনুসন্ধানের কাজটিই করে টেলিস্কোপটি।

তবে প্রশ্ন রয়েই গেল! এতগুলো গ্রহের সন্ধান পাওয়া গেলেও সেখানে পৃথিবীর মতো জীবন রয়েছে কিনা, সে উত্তর এখনও মেলেনি! তবে নতুন এই গবেষণা মহাকাশে প্রাণের অস্তিত্ব অনুসন্ধানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

 

তথ্যসূত্র: দ্য গার্ডিয়ান, দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট ও সিএনএন

অনুলিখন: সুকান্ত পার্থিব

Comments

The Daily Star  | English

New School Curriculum: Implementation limps along

One and a half years after it was launched, implementation of the new curriculum at schools is still in a shambles as the authorities are yet to finalise a method of evaluating the students.

1h ago