কলকাতা-খুলনা-ঢাকা রুটের বাস চলবে জুলাই মাসে

দিল্লিতে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কলকাতা-খুলনা-ঢাকা রুটের বাস চলাচলের উদ্বোধন হল শনিবার।
Bus
কলকাতার রাজ্য সরকারের সচিবালয় নবান্নে আজ দুপুরে দুই দেশের প্রধানমন্ত্রীদের ভিডিও লিঙ্ককের মাধ্যম উদ্বোধনে পর কলকাতা-খুলনা-ঢাকা রুটের বাস চলাচলের উদ্বোধন হয়। ছবি: ডেইলি স্টার

দিল্লিতে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কলকাতা-খুলনা-ঢাকা রুটের বাস চলাচলের উদ্বোধন হল শনিবার।

দুপুর দেড়টায় যৌথভাবে এর শুভ সূচনা করেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।

একই সঙ্গে কলকাতা-খুলনা রুটের যাত্রীবাহী ট্রেন এবং শিলিগুড়ি-বিরল রুটের পণ্যবাহী ট্রেনের উদ্বোধন হয়।

দিল্লির হায়দ্রাবাদ হাউজে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক ও চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানের মধ্যেই এই উদ্বোধন করেন দুই দেশের প্রধানমন্ত্রীরা।

ওই সময় পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের সচিবালয় কলকাতার নবান্ন থেকে কলকাতা-খুলনা-কলকাতা রুটের পরীক্ষামূলক বাসটি যাত্রা শুরু করে।

ঠিক একই সময় ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের ভারতীয় অংশ পেট্রাপোল সীমান্তেও একইভাবে রাজ্য সরকার ও কেন্দ্রীয় সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে কলকাতা-খুলনা রুটের যাত্রীবাহী রেলের ফ্ল্যাগ অফ করা হয়।

নবান্নে বাস উদ্বোধনের সময় উপস্থিত ছিলেন পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তিন মন্ত্রী। তাঁরা হলেন, পৌর ও নগর উন্নয়নমন্ত্রী ফিরাদ হাকিম, পঞ্চায়েতমন্ত্রী সুব্রত মুখার্জি এবং শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

পৌর ও নগর উন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলেন, “পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি প্রতিবেশী বাংলাদেশের সঙ্গে সবসময় সুসম্পর্ক বজায় রেখে চলতে চেয়েছেন। বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। আর সে কারণেই আজ কলকাতা-খুলনা রুটের বাস পরিষেবার মতো আরও একটি রুট শুরু হলো।”

শ্যামলী পরিবহনের কর্ণধার অবণী ঘোষ জানান, “কলকাতা-খুলনা রুটের ৫৫ আসনের বাসটি এদিন মাত্র কয়েকজন যাত্রী নিয়ে রওনা হয়। কলকাতা থেকে খুলনা পর্যন্ত এর ভাড়া করা হয়েছে ১ হাজার ৪০০ রুপি।”

যদিও পহেলা বৈশাখে এই রুটের বাস চলবে বলে আশা করা হলেও আগামী জুলাই মাসের আগে এই রুটে বাস চলবে না বলে পরিবহন দফতর সূত্র নিশ্চিত করছে।

এদিকে কলকাতা-খুলনা রুটের মৈত্রী এক্সপ্রেস-২ একই সময় ভারত থেকে ছেড়ে যায় খুলনার দিকে। আর খুলনার ট্রেনও ভারতের এসে পৌছায় বেলা তিনটার দিকে। খুলনা থেকে আসা বাংলাদেশের ট্রেনটি বেনাপোল পর্যন্ত আসে। সেখান থেকে ভারতীয় ইঞ্জিন গিয়ে বাংলাদেশের বগিগুলোকে ভারতের নিয়ে আসে।

ভারতীয় পূর্ব রেলের প্রধান জনসংযোগ কর্মকর্তা রহি মহাপাত্র বলেন, “পরীক্ষামূলক যাত্রার শুভ সূচনার পর এখন শুধু মাত্র সময়ের অপেক্ষা। আমরা আশা করছি, খুব শিগগিরই কলকাতা-খুলনা ট্রেনের নিয়মিত যাত্রার নির্ঘণ্ট প্রকাশ প্রকাশ করতে পারবো।”

 

আরও পড়ুন:

খুলনা থেকে কলকাতার পথে মৈত্রী এক্সপ্রেস-২

Comments

The Daily Star  | English

Israeli leaders split over post-war Gaza governance

New divisions have emerged among Israel's leaders over post-war Gaza's governance, with an unexpected Hamas fightback in parts of the Palestinian territory piling pressure on Prime Minister Benjamin Netanyahu

24m ago