জীবিত ব্যক্তিকে মৃত দেখানো ওসিকে ক্ষমা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় একজন জলজ্যান্ত সুস্থ মানুষকে মৃত বলে প্রতিবেদন দেওয়া পুলিশ কর্মকর্তা আজ হাইকোর্টের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন। নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার পর আদালত তাকে ক্ষমা করেন।
সুপ্রিম কোর্ট

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় একজন জলজ্যান্ত সুস্থ মানুষকে মৃত বলে প্রতিবেদন দেওয়া পুলিশ কর্মকর্তা আজ হাইকোর্টের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন। নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার পর আদালত তাকে ক্ষমা করেন।

হজে যেতে ইচ্ছুক পেশায় ব্যবসায়ী আজাদ হোসেন ভুঁইয়া পুলিশ ক্লিয়ারেন্সের আবেদন জানালে আখাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোশাররফ হোসেন তরফদার তাকে মৃত ঘোষণা করে প্রতিবেদন দেন। আজাদ এই রিপোর্টের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন।

রিটের শুনানিতে ওসি মোশাররফ উপস্থিত হয়ে ক্ষমা চাইলে আদালত তাকে ক্ষমা করেন। সেই সাথে পুলিশের রিপোর্ট অনুযায়ী মৃত আজাদ হোসেন ভুঁইয়া যেন হজে যেতে পারেন সে ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সরকারকে নির্দেশ দেন বিচারপতি সৈয়দ মোহাম্মদ দস্তগীর হোসেন ও বিচারপতি মো আতাউর রহমান খানের বেঞ্চ।

আখাউড়ার স্থায়ী বাসিন্দা আজাদ হজের প্রয়োজনীয় ফি পরিশোধ করে পাসপোর্ট জমা দিয়েছেন। তার পুলিশ ক্লিয়ারেন্সের দরকার ছিল। কিন্তু ওসি আজাদকে মৃত দেখিয়ে স্পেশাল ব্রাঞ্চ অফিসে প্রতিবেদন পাঠায়। গত ২০ জুন ধর্ম মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হয়।

২৩ জুলাই আদালত ওই পুলিশ কর্মকর্তাকে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন।

Click here to read the English version of this news

Comments