হায়দরাবাদ টেস্টের ৪র্থ দিনে বাংলাদেশ ১০৩/৩

ভারতের হায়দরাবাদে স্বাগতিকদের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের চতুর্থ দিন শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে ৪৫৯ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে আজ বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ১০৩ রান।
Bangladesh-team
ভারতের আজিঙ্কা রাহানেকে সাজঘরে ফেরানোর আনন্দে বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান (মাঝে), ছবি: এএফপি

ভারতের হায়দরাবাদে স্বাগতিকদের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের চতুর্থ দিন শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে ৪৫৯ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে আজ বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ১০৩ রান।

দিনের খেলা শেষ হওয়ার আগে ২১ রান নিয়ে ক্রিজে ছিলেন সাকিব আল হাসান। নয় রান নিয়ে তাঁর সঙ্গে অবস্থান করছিলেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ।

ভারতের রবিচন্দ্রন অশ্বিন ১৬ ওভারে ৩৪ রান দিয়ে তুলে নেন দু’টি উইকেট। রবীন্দ্র জাদেজা নেন একটি উইকেট। দ্বিতীয় ইনিংসে অশ্বিনের বলে বাংলাদেশ দলের ওপেনার তামিম ইকবাল ব্যক্তিগত তিন রান নিয়ে বিরাট কোহলির ক্যাচে ফেরেন সাজঘরে। এরপর, ব্যক্তিগত ৪২ রানে মাঠ ছাড়েন সৌম্য সরকার। জাদেজার বলে স্লিপে আজিঙ্কা রাহানের তালুবন্দি হন তিনি। এর কিছুক্ষণ পর মুমিনুল প্যাভিলিয়নে ফিরে যান ২৭ রান ঝুলিতে নিয়ে। অশ্বিনের বলে রাহানের হাতে ধরা পরেন মুমিনুল।

এর আগে, টাইগারদের প্রথম ইনিংসে ৩৮৮ রানে অলআউট করে ২৯৯ রানে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে ভারত। চার উইকেটে ১৫৯ রান তুলে দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণা করে স্বাগতিকরা। প্রথম ইনিংসে ৬ উইকেট হারিয়ে ৬৮৭ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করেছিল ‘কোহলি-বাহিনী’।

ভারতের প্রথম ইনিংসের রানের পাহাড়ের জবাবে বাংলাদেশ ৩৮৮ রান সংগ্রহ করে সবকটি উইকেট হারিয়ে। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে মুশফিকুর রহিমের উইকেটটি তুলে নিলে ২৯৯ রানের বড় লিড পায় স্বাগতিকরা। মুশফিক বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ ১২৭ রান করেন।

বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, মুমিনুল হক, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম (অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), সাব্বির রহমান, মেহেদি হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ ও কামরুল ইসলাম রাব্বি।

ভারত একাদশ: মুরালি বিজয়, লোকেশ রাহুল, চেতেশ্বর পুজারা, বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), আজিঙ্কা রাহানে, উমেশ যাদব, ঋদ্ধিমান সাহা (উইকেটরক্ষক), রবিচন্দ্রন অশ্বিন, রবীন্দ্র জাদেজা, ইশান্ত শর্মা ও ভুবনেশ্বর কুমার।

Comments

The Daily Star  | English

Desire for mobile data trumps all else

As one strolls along Green Road or ventures into the depths of Karwan Bazar, he or she may come across a raucous circle formed by labourers, rickshaw-pullers, and street vendors.

14h ago