১০ লাখ টাকা পর্যন্ত জরিমানার ক্ষমতা পাচ্ছে প্রেস কাউন্সিল: তথ্যমন্ত্রী

নতুন আইনে ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত জরিমানা করার ক্ষমতা পাচ্ছে প্রেস কাউন্সিল বলে জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। আজ রোববার দুপুরে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা জানান।
তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহ্‌মুদ। ছবি: সংগৃহীত

নতুন আইনে ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত জরিমানা করার ক্ষমতা পাচ্ছে প্রেস কাউন্সিল বলে জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। আজ রোববার দুপুরে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা জানান।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, তিরষ্কার করার ক্ষমতাও থাকবে। প্রেস কাউন্সিল শুধু জুডিশিয়াল বডি হিসেবে কাজ করছে তা নয়, সাংবাদিকদের নানা ধরনের প্রশিক্ষণও তারা দিচ্ছে। আমি প্রেস কাউন্সিলকে অনুরোধ জানিয়েছিলাম, নীতিমালার ভিত্তিতে নির্ধারণ করতে কারা সাংবাদিক হিসেবে বিবেচিত হবেন। এখন যে কেউ সাংবাদিক পরিচয় দেয়। যে অনলাইনের সাংবাদিক সে-ও সাংবাদিক, একটা ওয়েব পেজ খুলে সে-ও সাংবাদিক, ফেসবুক পেজ খুলে সে-ও সাংবাদিক পরিচয় দেয়। আমি অনেক সংবাদ দেখি ফেসবুকে, এর পরে আমি খবর নেই এই জিনিসটা কী? এটা কি কোনো অনলাইন, নিবন্ধনভুক্ত নাকি নিবন্ধনহীন—তখন খবর নিয়ে দেখা যায়, এটা কোনো অনলাইন না। এটি একটি ফেসবুক পেজ। চটকদার-চটকদার সংবাদ পরিবেশন করে মানুষের দৃষ্টি আকর্ষণ করে।

তিনি আরও বলেন, আমরা দেখতে পাচ্ছি, আইপি টিভি অথবা ইউটিউব চ্যানেল খুলে; সেই ইউটিউব চ্যানেলের আবার কার্ড দেওয়া হয়। যারা সাংবাদিক নয় এরা যখন কোনো অপকর্ম করে, তখন সেটি পুরো সাংবাদিক সমাজের ওপর বর্তায়। এ থেকে পুরো সাংবাদিক সমাজকে রক্ষা করার জন্য সংশ্লিষ্টদের অনুরোধ জানিয়েছিলাম, অংশীজনদের সঙ্গে আলাপ করে একটি নীতি প্রণোয়ন করে কীভাবে সাংবাদিকদের একটি ডাটাবেজ তৈরি করা যায়। ডাটাবেজ তৈরি হলে বলা যাবে কারা সাংবাদিক, কারা সাংবাদিক নয়। এটি করতে নিশ্চয়ই সময় লাগবে। ৭-৮ বছরের পুঞ্জিভূত সমস্যা। এটি করা দরকার হয়েছে।

এটি করা হলে শৃঙ্খলা আসবে, অপসাংবাদিকতা কমে যাবে এবং সাংবাদিক নামধারী, যারা সত্যিকার অর্থে সাংবাদিক না তাদের হাত থেকে পুরো ক্যানভাসটাকে আমরা মুক্ত করতে পারবো। প্রেস কাউন্সিল ইতোমধ্যে সেই কাজ শুরু করেছে। আমরা প্রেস কাউন্সিলকে একটি বড় জায়গা দেওয়ার চেষ্টা করছি। আশা করি সেটি সম্ভব হবে, বলেন তথ্যমন্ত্রী।

Comments

The Daily Star  | English

Release of ship, crew: KSRM keeps mum on ransom

The hijacked Bangladeshi ship MV Abdullah and its 23 crewmen were freed as negotiation with the pirates adhering to international rules paid results, the ship-owning firm KSRM Group has informed.

1h ago