পর্যটক টানছে মিরসরাইয়ের ৪ ঝর্ণা

এমনকি বছর দুয়েক আগেও চট্টগ্রাম জেলার মিরসরাই উপজেলার খইয়াছড়া ইউনিয়নের নাপিত্যাছড়া গ্রামে বাইরের কেউ আসতেন না। এখন, প্রতিদিনই কয়েক শত পর্যটকের আগমন হচ্ছে পাহাড়ের পাদদেশে অবস্থিত এই গ্রামটিতে।

এমনকি বছর দুয়েক আগেও চট্টগ্রাম জেলার মিরসরাই উপজেলার খইয়াছড়া ইউনিয়নের নাপিত্যাছড়া গ্রামে বাইরের কেউ আসতেন না। এখন, প্রতিদিনই কয়েক শত পর্যটকের আগমন হচ্ছে পাহাড়ের পাদদেশে অবস্থিত এই গ্রামটিতে।

প্রত্যন্ত এই গ্রামের মূল আকর্ষণ উজালিয়া, কুপিকাটাকুম, নাপিত্যাছড়া ও বান্দরকুম – এই চারটি সুন্দর ঝর্ণা।

গত দুবছরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই ঝর্ণাগুলোর নৈসর্গিক রূপের ছবি এবং প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের গল্প ছড়িয়ে পড়ে প্রকৃতিপ্রেমীদের মধ্যে।

নাপিত্যাছড়া ঝর্ণাটি দেখতে প্রতিদিন ৫০০ থেকে এক হাজার পর্যটক ভিড় করেন এই গ্রামটিতে। ছুটির দিনে এই সংখ্যা আরও বেড়ে যায়।

ঝর্ণাগুলো দেখতে পর্যটকদের আসতে হয় মিরসরাইয়ের নয়দুয়ারা এলাকায়। সেখান থেকে তিন ঘণ্টার পথ হাটলেই পরে দেখা মিলে ঝর্ণাগুলোর।

ঘন জঙ্গলের ভেতর দিয়ে পথ দেখিয়ে নেন স্থানীয় গাইডরা। পুরো যাত্রায় তাঁদেরকে দিতে হয় ৩০০ থেকে ৫০০ টাকা।

ঘন জঙ্গল আর উঁচু-নিচু পাহাড়ি পথে কখনো হাঁটতে হবে হাঁটু পানির ভেতর দিয়ে। পথের পাশে বড় বড় পাথরগুলো দেখে সেগুলোকে মনে হতে পারে কোন প্রাগৈতিহাসিক প্রাণীর ডিম। পুরো পথে সাথী হয়ে থাকবে বন্য পাখির কিচিরমিচির।

জঙ্গলের ভেতরে কোনো দিক নির্দেশনা নেই বলে ঝর্ণাগুলোর সঠিক পথ চিনে নিতে কষ্ট হয়। এছাড়াও, রাস্তা উন্নত নয় বলেও কষ্ট করতে হয় পর্যটকদের।

মনে রাখা প্রয়োজন, এখানে ২০১৬ সালের ১৫ আগস্ট পাহাড় থেকে পড়ে একজন পর্যটকের মৃত্যু হয়েছিলো।

এসব ঝক্কি পেরিয়ে ঝর্ণা পর্যন্ত পৌঁছাতে পারলে পাওয়া যাবে অনাবিল প্রশান্তি। তাই এ ঝর্ণাগুলো এখন চট্টগ্রামের আকর্ষণীয় পর্যটনস্থান।

Comments

The Daily Star  | English
Bangladesh Remittance from top 10 countries

UAE emerges as top remittance source for Bangladesh

Bangladesh received the highest remittance from the United Arab Emirates in the first 10 months of the outgoing fiscal year, well ahead of traditional powerhouses such as Saudi Arabia and the United States, central bank figures showed.

11h ago