নয়াদিল্লির সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটিতে একুশে ফেব্রুয়ারি পালন

শহীদদের স্মরণে ভারতের নয়াদিল্লিতে সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটির একদল বাংলাদেশি গবেষক শিক্ষার্থী আটটি দেশের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পালন করল আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস।

অসৎ সঙ্গ ত্যাগ কর, আলস্য দোষের আকর, ইক্ষুরস অতি মিষ্ট, ঈশ্বরকে বন্দনা কর, উগ্রভাব ভালো নয়, ঊর্ধ্ব মুখে পথ চলিও না...। আদর্শ লিপির এই কথাগুলো নিয়েই আমরা শিখেছিলাম ভাষাকে রপ্ত করতে।

ভাষা কি? ভাষা মানে কি শুধুই শব্দ? নাহ ভাষা মানে শুধু শব্দ নয়। ভাষা সেই মাধ্যম যার হাত ধরে আমরা প্রতিদিন নিজের আবেগ, অনুভূতি, চিন্তাশক্তির প্রকাশ করি। বিশ্বের প্রতিটি ভাষাই একই তথ্য বহন করে। এই ভাষা হতে পারে মুক্তির ভাষা, হতে পারে যুক্তির ভাষা অথবা রাজনীতির ভাষা।

নিজেদের ভাষার রাষ্ট্রীয় মর্যাদা আদায়ের আন্দোলনে ১৯৫২ সালে তৎকালীন পূর্ববঙ্গে একদল তরুণ জীবন দেন।

শহীদদের স্মরণে ভারতের নয়াদিল্লিতে সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটির একদল বাংলাদেশি গবেষক শিক্ষার্থী আটটি দেশের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পালন করল আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। এতে অংশ নেন বাংলাদেশ, ভারত, নেপাল, শ্রীলঙ্কা, আফগানিস্তান, পাকিস্তান ও ভুটানের গবেষক শিক্ষার্থীরা। এতে আরও অংশ নেন ইউনিভার্সিটির প্রেসিডেন্ট কে কে আগারওয়ালসহ কালচারাল কমিটির সদস্যরা।

কালচারাল কমিটির প্রেসিডেন্ট কেরালার শিক্ষার্থী আনান্থ বলেন, ভাষা হলো আরেকজনের সংস্কৃতিকে জানবার মাধ্যম। নেপাল থেকে আসা সমাজবিজ্ঞানের শিক্ষার্থী সিপি বলেন, নিজের ভাষায় যত সহজে আবেগকে বোঝাতে পারি তার মধ্যে এক অপার আনন্দ আছে। আর কাশ্মীর থেকে আসা আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষার্থী হামাদ সাহেব বলেন, ভাষার কোনো জাত নেই, ভাষাকে নিয়ে রাজনীতির যোগাযোগ করা যায় কিন্তু সেই রাজনীতি যেন কারো আদর্শকে আঘাত না করে।

দূর দেশ হতে যখন বিদেশের মাটিতে শহীদ মিনারটি দেখছিলাম, দ্বীপের আলোয় চোখটা কেমন ছলছল করে উঠছিল। আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি/ আমি কি ভুলিতে পারি? নাহ ভুলতে নেই। সারাদিন ইংরেজিতে লিখতে লিখতে বা লেকচার শুনতে শুনতে যখন ক্লান্ত হয়ে পড়ি তখন ফোনে মায়ের আওয়াজ শুনলে এক নিমিষেই দূর হয়ে যায় সমস্ত ক্লান্তি।

বন্যা চক্রবর্তী সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটির সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী

Comments

The Daily Star  | English

Settle disputes through dialogue, say 'no' to wars, says PM at UNESCAP meet

Prime Minister Sheikh Hasina today called for speaking out against all forms of aggression and atrocities, and to say 'no' to wars

18m ago