রঙিন তারুণ্য

ঈদ বাজারের সিংহভাগ ক্রেতাই তরুণ-তরুণী। আর সে কারণে তাঁদের পছন্দের কথা মাথায় রেখে বিশেষ আয়োজন করেছে বিভিন্ন বিপণিকেন্দ্রের ফ্যাশন হাউসগুলো। কিন্তু ঈদের জন্য কেমন পোশাক পছন্দ তারুণ্যের? ক্রেতা-বিক্রেতা ও ডিজাইনারদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেল, পোশাকের ক্ষেত্রে চলতি হাওয়ায় গা ভাসাতে চান তরুণ-তরুণীরা। সেটা সালোয়ার-কামিজ, টি–শার্ট কিংবা জুতা—যা–ই হোক না কেন।

ঈদ বাজারের সিংহভাগ ক্রেতাই তরুণ-তরুণী। আর সে কারণে তাঁদের পছন্দের কথা মাথায় রেখে বিশেষ আয়োজন করেছে বিভিন্ন বিপণিকেন্দ্রের ফ্যাশন হাউসগুলো। কিন্তু ঈদের জন্য কেমন পোশাক পছন্দ তারুণ্যের? ক্রেতা-বিক্রেতা ও ডিজাইনারদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেল, পোশাকের ক্ষেত্রে চলতি হাওয়ায় গা ভাসাতে চান তরুণ-তরুণীরা। সেটা সালোয়ার-কামিজ, টি–শার্ট কিংবা জুতা—যা–ই হোক না কেন।


প্রথমেই আসা যাক তরুণীদের পোশাকের ক্ষেত্রে। এবারের ঈদে তরুণীদের পছন্দের তালিকায় রয়েছে জর্জেট কিংবা চিকেনের ওপর বাহারি নকশা করা লম্বা ঝুলের কামিজ। কামিজের নিচের দিকটায় থাকছে বাড়তি নকশাদার লেস। সঙ্গে রয়েছে এমব্রয়ডারি, চুমকি-জরি, জারদৌসি কিংবা কারচুপির কাজ। লম্বা ঝুলের কামিজের পাশাপাশি খাটো কামিজ আর ফতুয়ার চাহিদাও রয়েছে এবারের ঈদে।


ঈদের বাজার ঘুরে দেখা গেল, এবার শুধু নকশাতে নয়, পোশাকের কাটছাঁটেও রয়েছে ভিন্নতা। এখন হাতাবিহীন পোশাক বেশ চলছে। তাই কিছু পোশাকের হাতায় নতুনত্ব আনতে করা হয়েছে পাইপিংয়ের ব্যবহার। পাশ্চাত্যের প্রভাবে তরুণীদের মধ্যে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে জিনসও। এ ছাড়া পালাজ্জো তো আছেই। এই ঈদে তাই পালাজ্জো ও জিনসের বিকিকিনিও বেশ চলছে বলে জানিয়েছেন বিক্রেতারা। নগরের মিমি সুপার মার্কেট, শপিং কমপ্লেক্স, সানমার ওশান সিটি, সেন্ট্রাল প্লাজা, বিপণিবিতান, রিয়াজউদ্দিন বাজার, লাকি প্লাজা, আফমি প্লাজাসহ বিভিন্ন বিপণিকেন্দ্রে বাহারি পোশাকের পাশাপাশি বেচাকেনা চলছে জুতা, ব্যাগ, গয়না ও কসমেটিকসের।
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী লাবণি খন্দকার বলেন, ‘এ বছর গাউনের ওপরে কারুকাজ করা কটি পরব। এমন পোশাকে একটা আলাদা আভিজাত্য ফুটে ওঠে। ঈদের সময় এ ধরনের জমকালো পোশাকই মানানসই হবে।’


তরুণীদের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে তরুণেরাও কিনছেন বাহারি পাঞ্জাবি ও ফতুয়া। দেশী দশ, ইয়েলো, ক্যাটস আই, একস্টেসি, বাঙালি বাবু, আড়ং, শৈল্পিকসহ বিভিন্ন দোকানে দেখা গেছে তরুণদের ভিড়। সময়টা বর্ষা হওয়ায় তরুণদের পছন্দের তালিকায় রয়েছে পাঞ্জাবি, ফতুয়া, হাফ হাতা শার্ট কিংবা টি-শার্ট। সঙ্গে জিনস-গ্যাবার্ডিন কাপড়ের প্যান্ট আর পায়ে চটি কিংবা জুতা। এবারের ঈদে ছেলেদের পছন্দ চাপা প্যান্ট। সেই সঙ্গে আছে বাহারি নামখচিত টি-শার্ট। রয়েছে ক্যাজুয়াল শার্টে চেকের ব্যবহার। আড়ংয়ে পাঞ্জাবি দেখছিলেন প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আরিফুল হক। বললেন, ‘এবার ঈদে হালকা কাজের পাঞ্জাবি কিনতে চাই।’
তারুণ্যের ফ্যাশন প্রসঙ্গে ডিজাইনার এইচ এম ইলিয়াস বলেন, ‘তরুণীরা এ বছর লম্বা কামিজে বিভিন্ন প্যাটার্নধর্মী ডিজাইনের দিকে বেশি ঝুঁকছে। আর তরুণদের বেশি পছন্দ দেশি ও পাশ্চাত্যের ডিজাইনের মিশ্রণে তৈরি পাঞ্জাবি। আমরা ডিজাইনাররা তাই এ বছর তরুণ-তরুণীদের এমন পছন্দ ও আবহাওয়ার কথা মাথায় রেখে বিভিন্ন কাপড় ডিজাইন করেছি।’

Comments

The Daily Star  | English

Invest in Bangladesh, PM tells Indian businesspersons

Prime Minister Sheikh Hasina today invited Indian businesspersons to invest in Bangladesh, stating that she prioritises neighbouring countries

5h ago