২ দিনব্যাপী ‘এশিয়ান থিয়েটার সামিট’ শিল্পকলায়

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে ৫ মে থেকে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে দুদিনব্যাপী ‘এশিয়ান থিয়েটার সামিট’।
theatre-masks

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে ৫ মে থেকে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে দুদিনব্যাপী ‘এশিয়ান থিয়েটার সামিট’।

অনুষ্ঠানে সেমিনারের পাশাপাশি সংগীত, নৃত্য, যাত্রাপালা ও নাটক পরিবেশন করা হবে বলে আয়োজকরা জানান।

দুদিনব্যাপী পরিবেশনায় থাকছে দেশের বাউল সংগীত, চর্যানৃত্য, গৌড়ীয়নৃত্য, শিশুনৃত্য ও নাটক, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নাটক, বিদেশী নাটক, লোকনাট্যের বিভিন্ন পরিবেশনা ও যাত্রাপালা।

এছাড়াও, লাউস, কম্বোডিয়া ও মালয়েশিয়া থেকে আগত অতিথিরা তাঁদের নিজস্ব পরিবেশনা উপস্থাপন করবেন।

ইন্টারন্যাশনাল থিয়েটার এসোসিয়েশন-এর এশিয়ান রিজিওনাল সেন্টারের উদ্যোগে এবং পিপলস থিয়েটার এসোসিয়েশন ও বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির যৌথ আয়োজনে এবং সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় এই নাট্য সম্মেলনটির আয়োজন করা হচ্ছে।

৫ মে সকাল ১০টায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার সেমিনার কক্ষে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে অনুষ্ঠানটির উদ্বোধন করবেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর।

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকীর সভাপতিত্বে আলোচক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন আইটিআই বিশ্বকেন্দ্র’র সাম্মানিক সভাপতি রামেন্দু মজুমদার, আইটিআই বাংলাদেশ কেন্দ্রের সভাপতি নাসিরউদ্দিন ইউসুফ, নাট্যকার আব্দুস সেলিম, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব মফিদুল হক, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ড. আফসার আহমেদ, নাট্যজন দেবপ্রসাদ দেবনাথ, এসএম মহসীন এবং পিটিএ এর ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল কৃষ্টি হেফাজ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে নির্ধারিত বিষয়ের উপর প্রবন্ধ উপস্থাপন করা হবে এবং এর উপর সাধারণ আলোচনা হবে।

৬ মে সকল দেশের প্রতিনিধিরা তাঁদের দেশের নিজস্ব সংস্কৃতির উপর আলোচনা করবেন এবং পাশাপাশি কয়েকটি প্রবন্ধ উপস্থাপন এবং সেগুলোর উপর আলোচনা করা হবে।

Comments