বিনোদন

‘প্রেয়সী আনারকলি’ যাত্রাপালায় মুগ্ধ মানিকগঞ্জের দর্শক

মানিকগঞ্জে এসবের আয়োজন কিছুটা বেশি। জেলার প্রায় সবগুলো উপজেলাতেই যাত্রাপালার পাশাপাশি আয়োজন করা হয় পালা গান, জারিগান, কবিগানসহ সঙ্গীতানুষ্ঠান।
যাত্রাপালা
‘প্রেয়সী আনারকলি’ যাত্রাপালার একটি দৃশ্য। ছবি: সংগৃহীত

গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহী যাত্রাপালা আগের মতো এখন আর খুব একটা আয়োজন হয় না। 

গ্রাম বাংলার সংস্কৃতিতে ওতোপ্রতোভাবে জড়িয়ে থাকা এই যাত্রাপালা দেখতে অবশ্য শহুরে নতুন প্রজন্ম খুব একটা আগ্রহীও নয়।  

তবে দেশের অন্যান্য এলাকার তুলনায় মানিকগঞ্জে এসবের আয়োজন কিছুটা বেশি। জেলার প্রায় সবগুলো উপজেলাতেই যাত্রাপালার পাশাপাশি আয়োজন করা হয় পালা গান, জারিগান, কবিগানসহ সঙ্গীতানুষ্ঠান।

গত শুক্রবার রাতে মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলার জমদুয়ারা গ্রামের ওয়ায়েছি দরবার শরীফে অনুষ্ঠিত হয়েছে ঐতিহাসিক যাত্রাপালা 'প্রেয়সী আনারকলি'। 

মহাত্মা পাগল বাজান হাসেম আলী ওয়ায়েছি (র.) এর ৩৯তম বাৎসরিক ওরশ উপলক্ষে ছয় দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় দিন এই যাত্রাপালার আয়োজন করা হয়।

ওপার বাংলার প্রখ্যাত নাট্যকার বাবু প্রসাদ কৃষ্ণ ভট্টাচার্য রচিত এবং নাসিবুল হাসান ফয়সাল আল-ওয়ায়েছি ও আলী মাশরাফি অন্তু (ওয়ায়েছি) পরিচালিত এতে অভিনয় করেন জনপ্রিয় নাট্য অভিনেতা ফারুক আহমেদ, মোহাম্মদ আলী মুরতজা পলাশ, পূরবী দত্ত প্রমুখ।

যাত্রাপালা উপভোগ করেন দূরদূরান্ত থেকে আগত নানা বয়সী হাজারো দর্শক। তাদের মধ্যে অনেক কিশোর-কিশোরীও ছিল। 
দর্শকরা জানান, এ ধরনের আয়োজন খুব একটা হয় না বলেই তারা এসবের প্রতি আগ্রহী হন না। তবে, তারা এই ঐতিহাসিক যাত্রপালা দেখে খুবই আনন্দ পেয়েছেন। 

শনিবার রাতে অনুষ্ঠিত হয় কলকাতার সারেগামাখ্যাত শিল্পী পৌষালী ব্যানার্জীর একক সংগীতানুষ্ঠান। 

রোববার ও সোমবার অনুষ্ঠিত হবে পালাগানের আসর। 

রোববার পালাগান পরিবেশন করবেন ঢাকার আলেয়া বেগম ও ময়মনসিংহের সুনীল কর্মকার। 

সোমবার পালাগানের আসরে গান পরিবেশন করবেন প্রখ্যাত বাউল শিল্পী কেরাণীগঞ্জের কাজল দেওয়ান ও মিরপুরের লিপি সরকার।

Comments