ফ্যাশনেবল কটি

কটি শীতের কাপড় হিসেবে পরা শুরু হলেও কয়েক বছরের মাঝে ইউনিসেক্স ফ্যাশন পরিধেয় হিসেবে জায়গা করে নিয়েছে পোশাকটি। ধারণা করা হয়, ভারতের পাহাড়ি অঞ্চলে প্রথম মানুষ কটি শনাক্ত করে। তারপর থেকেই এটি প্রয়োজন ও স্টাইলের সঙ্গে সঙ্গে সারা পৃথিবীতে ব্যবহৃত হচ্ছে।
ফ্যাশনেবল কটি
ছবি: সাজ্জাদ ইবনে সাঈদ

কটি শীতের কাপড় হিসেবে পরা শুরু হলেও কয়েক বছরের মাঝে ইউনিসেক্স ফ্যাশন পরিধেয় হিসেবে জায়গা করে নিয়েছে পোশাকটি। ধারণা করা হয়, ভারতের পাহাড়ি অঞ্চলে প্রথম মানুষ কটি শনাক্ত করে। তারপর থেকেই এটি প্রয়োজন ও স্টাইলের সঙ্গে সঙ্গে সারা পৃথিবীতে ব্যবহৃত হচ্ছে।

এটি ক্যাজুয়াল, ফান আবার ফরমাল ও ড্রেসি, সবই হতে পারে। নির্ভর করে আপনি কীভাবে পরছেন তার উপর। যাই হোক না কেন, কটি কখনো বোরিং হয় না!   

প্রাচ্য এবং পাশ্চাত্য উভয় স্টাইলের জন্যই, বেইজ পাঞ্জাবি কুর্তার সঙ্গে ওয়েস্ট কোট হিসেবে কটি পরলে মার্জিত দেখায় এবং জামা কিংবা জাম্পসুটের উপর পরলে ভালো লাগে। দেরিতে হলেও আমরা কটির সেরা ফর্ম দেখেছি ফিউশন হিসেবে। মোটা কাপড়ের কটি শেইপ সুন্দর রাখে, লম্বা কিংবা খাটো, কটি যেটাই হোক সাধারণ পোশাককে করে তোলে রঙিন।

ছবি: সাজ্জাদ ইবনে সাঈদ

কটির জন্য আজকাল বেশ কয়েকটি হিট ডিজাইন রয়েছে। ফ্রক-স্টাইলের কটি পরলে আপনাকে বেশ ছিমছাম একটা লুক দেবে। একটা স্বাচ্ছন্দ্যয় বিকল্প হিসেবে স্কিনি জিন্সের সঙ্গে খোলা কটি সঙ্গে রঙ মিলিয়ে ভেতরে টিশার্ট বা শার্ট পরা যায়। এই কটিগুলোকে মিরর বা আয়না দিয়ে অলঙ্কৃত করা যেতে পারে। সুঁই-সুতা দিয়ে হাতের কাজ করা যেতে পারে। ফান বা একটু ইন্টারেস্টিং সঙ্গে ফিউশনাল ভাইব দেওয়ার জন্য ব্লক প্রিন্ট দারুণ একটা পদ্ধতি। 

কেউ স্পোর্টস ওয়্যার বা ক্যাজুয়াল পোশাকের উপর প্লেইন, একরঙা কভার-আপ হিসেবেও কটি পরতে পারেন। পোশাকটি তখন শ্রাগ হিসেবে মূলত ব্যবহার করা হয় যা যেকোনো জায়গার সঙ্গে খুব সুন্দর মানিয়ে যায়। বিশেষ করে হালকা শীতল মাসগুলোর জন্য এটা দারুণ। সাদা স্নিকার্সের সঙ্গে ম্যাচ করে পরলে আপনার স্টাইলকে নিয়ে যাবে অন্য লেভেলে।

ছবি: সাজ্জাদ ইবনে সাঈদ

ট্যাংক টপ ইনার আর হাই ওয়েস্ট প্যান্টের সঙ্গে শর্ট এমব্রয়ডারি করা কটি ভীষণ ভালো দেখায়। এমনকি এক কালার সাদামাটা জাম্পসুটের সঙ্গেও। সহজেই স্মার্টলি চাংকি কানের দুল, প্রফেশনাল হ্যান্ডব্যাগ আর ক্লাংকি হিলের সঙ্গে পরলে অফিস ইভেন্ট কিংবা গেট টুগেদারে আপনাকে লাগবে আকর্ষণীয়। 

লম্বা, খাটো বা মাঝারি যে সাইজেরই হোক না কেন কটি পার্টিতে দেবে গ্ল্যামারাস লুক। এক রঙের ক্রপ টপ এবং প্যান্ট (স্লিম কাট, সিগি প্যান্ট বা বেলুন), যেকোনো রেঞ্জের সঙ্গেই এখন যে কেউ সহজেই কালার কটি কনট্রাস্ট করে শ্রাগের মতো পরতে পারে। এর সঙ্গে ট্র্যাডিশনাল, সমসাময়িক কিংবা বোহেমিয়ান অলংকার সঙ্গে জুতা পরে নান্দনিক একটা লুক আনতে পারবে। 

কটি কোথায় পাবেন

আপনি যদি এক রঙের কুর্তিগুলোর সঙ্গে রঙিন কটি পরতে চান, তাহলে ওয়ারাহ আপনার জন্য সেরা। কারণ তাদের কাছে বেইজ খাদির সঙ্গে নানা রঙের কটি আছে। আপনি যদি একটু সোমব্রে/একটু অন্ধকার রঙের মাঝে এবং বিভিন্ন এমব্রয়ডারির কাজ খুঁজে থাকেন তবে আপনার জন্য রয়েছে আড়ং।

মডেল: আর্নিয়া, মায়শা

স্টাইলিং: সোনিয়া ইয়াসমিন ইশা

ওয়্যারড্রোব: আর রহমান

মেকআপ: আর্টিস্ট সুমন

লোকেশন: ইন্টারকন্টিনেন্টাল ঢাকা 

অনুবাদ করেছেন সাইমা তাবাসসুম উপমা

Comments

The Daily Star  | English

How Lucky got so lucky!

Laila Kaniz Lucky is the upazila parishad chairman of Narsingdi’s Raipura and a retired teacher of a government college.

4h ago