দুর্ঘটনা ও অগ্নিকাণ্ড

বিদ্যুতের তারে আটকে পড়া টিয়া উদ্ধারে গিয়ে বিদ্যুৎপৃষ্টে দগ্ধ ৩

তাদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।
বার্ন ইনস্টিটিউট
শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট ভবন। ফাইল ছবি

দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জে বিদ্যুতের তারে আটকে যাওয়া টিয়া পাখি উদ্ধার করতে গিয়ে ৩ উদ্ধারকারী বিদ্যুৎপৃষ্টে দগ্ধ হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে হাসনাবাদ ইনসাফ বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

দগ্ধ তিনজন হলেন-রবিনহুড দ্য অ্যানিমেল রেসকিউ সোসাইটির আতিকুর রহমান (৪৫), শফিকুর রহমান (২৮) ও রুপক (২০)।

গুরুতর অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (পরিদর্শক) বাচ্চু মিয়া দ্য ডেইলি স্টারকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, কেরাণীগঞ্জে পাখি উদ্ধারে গিয়ে তিনজন বিদ্যুতায়িত হয়ে দগ্ধ হয়েছেন। তাদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

রবিনহুড রেসকিউ সোসাইটির প্রধান আফজাল খান ডেইলি স্টারকে জানান, প্রতিষ্ঠানটি বিপদে পরা পশু-পাখি-প্রাণী উদ্ধারে কাজ করে।

তিনি বলেন, 'হাসনাবাদ এলাকায় বিদ্যুতের খুঁটিতে ঘুড়ির সুতায় একটি টিয়া পাখি আটকে যায়। বিকেলে খবর পেয়ে পাখিটি উদ্ধারে যায় আমাদের টিম। একটি তিনতলা বাড়ির ছাদে উঠে আতিক একটি লাঠি দিয়ে পাখিটি উদ্ধার করতে যায়। লাঠিটি বিদ্যুতের তারে লাগার সঙ্গে সঙ্গে দুজন বিদ্যুতায়িত হয়।'

বার্ন ইনস্টিটিউটের কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, শফিকুরের ৯০ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। বাকি দুজনের ৭ ও ৮ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে।

 

Comments