দুর্ঘটনা ও অগ্নিকাণ্ড

ফেনীতে ট্রেন-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ৬, তিন বন্ধু যাচ্ছিল ঈদের কেনাকাটায়

একই গ্রামের তিন বন্ধু ঈদের কেনাকাটা করতে কুমিল্লার হাসানপুর স্টেশন থেকে ট্রেনের ইঞ্জিনের সামনে বসে চট্টগ্রাম যাচ্ছিলেন বলে জানা গেছে।
সংঘর্ষে ট্রেনের সামনের অংশ থেঁতলে যায় এবং ট্রাকটি দুমড়ে-মুচড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ছবি: সংগৃহীত

ফেনীতে রেল ক্রসিংয়ে ট্রেনের সঙ্গে ট্রাকের সংঘর্ষে ছয় জন নিহত হয়েছেন। তাদের তিন জন একই গ্রামের। ফেনীর পুলিশ সুপার জাকির হাসান দ্য ডেইলি স্টারকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আজ শুক্রবার সকাল সোয়া ৮টার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথে ফেনীর ফাজিলপুর রেলস্টেশন ও মুহুরিগঞ্জ রেলস্টেশনের মধ্যবর্তী স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, ট্রাকচালক মো. মিজান, যাত্রী আবুল খায়ের মিয়া ও তার ছেলে আশিক এবং ট্রেনযাত্রী দিল মোহাম্মদ, মোহাম্মদ রিফাত ও মো. সাজ্জাদ।

মিজান বরিশালের উজিরপুরের কাউয়ারান্থা এলাকার আবুল হাওলাদারের ছেলে ও খায়ের মিয়া কুমিল্লার লাকসাম উপজেলার মনোহরপুর গ্রামের আমিন হোসেনের ছেলে।

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার চিওড়া ইউনিয়নের শাকতলা গ্রামের নুরুল হকের ছেলে দিল মোহাম্মদ, একই গ্রামের রুহুল আমিনের ছেলে রিফাত ও মোহাম্মদ ইয়াসিনের ছেলে সাজ্জাদ।

একই গ্রামের তিন বন্ধু ঈদের কেনাকাটা করতে কুমিল্লার হাসানপুর স্টেশন থেকে ট্রেনের ইঞ্জিনের সামনে বসে চট্টগ্রাম যাচ্ছিলেন বলে জানা গেছে।

শাকতলা গ্রামের আবদুল মালেক বলেন, 'তারা মোট ১১ বন্ধু ঈদের কেনাকাটা করতে চট্টগ্রাম যাচ্ছিল। পথে দুর্ঘটনায় তিন জন মারা যায়। পরে অন্যরা তাদের মরদেহ বাড়িতে নিয়ে যায়।'

নিহত তিন বন্ধুর মরদেহ গ্রামে পৌঁছালে শোকের ছায়া নেমে আসে। বিকেলে তাদের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। 

ফেনী রেলস্টেশন ক্যাম্প জিআরপি পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মো. শাহ আলম জানান, নিহতদের দুজন ঘটনাস্থলে এবং একজন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির কিছুক্ষণ পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। সেজন্য ফেনী জেনারেল হাসপাতাল মর্গে দুজন এবং চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে একজনের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রাখা হয়েছে। 

ফেনী রেলস্টেশন মাস্টার মোহাম্মদ হারুন জানান, চট্টগ্রামগামী চিটাগাং মেইল ট্রেনটি মুহুরিগঞ্জের কাছাকাছি পৌঁছালে রেল ক্রসিং পার হতে যাওয়া একটি ট্রাকের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এসময় ট্রেন ট্রাকটিকে ধাক্কা দিয়ে অন্তত ২০০ মিটার দূর সামনের দিকে নিয়ে যায়। এতে ট্রেনের সামনের অংশ থেঁতলে যায় এবং ট্রাকটি দুমড়ে-মুচড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। 

ঘটনাস্থল থেকে দুজনকে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।  

স্টেশন মাস্টার হারুন আরও জানান, দুর্ঘটনার পর ট্রেনটিকে ফাজিলপুর স্টেশনে নেওয়া হয়। সাড়ে ১১টার পর আবার সেটি চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায় যায়। 

ফেনীর পুলিশ সুপার জাকির হাসান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে জানান, এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। 

এ ঘটনায় রেলের চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা আনিছুর রহমানকে আহ্বায়ক করে পাঁচ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে বলে জানা গেছে।
 

Comments