মায়ের পরে ছেলে, তাদের বাঁচাতে গিয়ে সেপটিক ট্যাংকে পড়ে প্রতিবেশীরও মৃত্যু

‘সেপটিক ট্যাংকটি সরু ও গভীর ছিল।’
স্টার ডিজিটাল গ্রাফিক্স

রংপুরে মিঠাপুকুর উপজেলায় সেপটিক ট্যাংকে পড়ে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৬টার দিকে উপজেলার শাল্টি গোপালপুর ইউনিয়নের ধাপ উদয়পুর গ্রামে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর আলম দ্য ডেইলি স্টারকে তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, সকালে সেপটিক ট্যাংকে পড়ে উদয়পুর গ্রামের বাদশা মিয়ার স্ত্রী দেলোয়ারা বেগম (৫৫) ও তার ছেলে ইদা মিয়া (৩৫) এবং তাদের বাঁচাতে গিয়ে প্রতিবেশী তোবারক হোসেনের ছেলে ইবলুল মিয়ার (৩৫) মৃত্যু হয়েছে।

জাহাঙ্গীর বলেন, 'গোয়াল ঘরের মল-মূত্র যাওয়ার জন্য দেলোয়ারা বেগমের বাড়ির পেছনে সেপটিক ট্যাংক খোঁড়া হয়েছিল। ওই ট্যাংকের পাশে মইয়ে চেপে ঘরের সানশেডের ওপর থেকে লাউয়ের পাতা তুলছিলেন দেলোয়ারা। হঠাৎ মই ভেঙে তিনি সেপটিক ট্যাংকের গর্তে পড়ে যান। তাকে বাঁচাতে গিয়ে প্রথমে ইদা মিয়া এবং পরে ইবলুল মিয়াও ওই ট্যাংকে পড়ে যান। খবর পেয়ে মিঠাপুকুর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করেন।'

মিঠাপুকুর ফায়ার সার্ভিসের ওয়্যারহাউস ইনস্পেকটর মশিউর রহমান বলেন, 'সেপটিক ট্যাংকটি সরু ও গভীর ছিল। আমাদের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে সকাল সাড়ে ৭টার দিকে তিনজনকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করে। মরদেহগুলো পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।'

Comments