অপরাধ ও বিচার

মেয়েকে বিয়ে না দেওয়ায় যুবকের ছুরিকাঘাতে বাবা নিহত

মেয়েকে বিয়ে না দেওয়ায় পাবনা সদর উপজেলার ভাড়ারা গ্রামে যুবকের ছুরিকাঘাতে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। ওই ঘটনার পর থেকে ঘাতক যুবক পলাতক আছেন।
Pabna_DS_Map
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

মেয়েকে বিয়ে না দেওয়ায় পাবনা সদর উপজেলার ভাড়ারা গ্রামে যুবকের ছুরিকাঘাতে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। ওই ঘটনার পর থেকে ঘাতক যুবক পলাতক আছেন।

নিহত ব্যক্তির নাম ফরিদ হোসেন (৪৫)। বাড়ি পাবনা সদর উপজেলার ভাড়ারা ইউনিয়নের ভাড়ারা গ্রামে। পেশায় একজন মিস্ত্রি। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে ভাঁড়ারা শাহী মসজিদের পাশে ওই হামলার ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার রাতে মসজিদ থেকে নামাজ পড়ে বাড়ি যাওয়ার পথে অনিক হোসেন (২৬) ফরিদ হোসেনের উপর হামলা করে।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'প্রায় এক বছর আগে ফরিদ হোসেনের মেয়ের সঙ্গে অনিক হোসেনের বিয়ের কথা হয়। বখাটেপনার কারণে পরে সেই বিয়ে বাতিল করে ফরিদ হোসেনের পরিবার। প্রায় ৬ মাস আগে ফরিদ হোসেন তার মেয়েকে অন্যত্র বিয়ে দেন। এর পর থেকেই ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন অনিক হোসেন।'

এরই জের ধরে মসজিদ থেকে নামাজ পড়ে বের হওয়ার পর ফরিদ হোসেনকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায় অনিক। মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনার পর অনিক পালিয়ে যান। তাকে গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান চলছে, জানান ওসি।  

Comments