কুমিল্লা থেকে চট্টগ্রাম মহানগর যুবদলের সভাপতি দিপ্তীসহ ৪ জন গ্রেপ্তার

চট্টগ্রাম মহানগর যুবদলের সভাপতি মোশাররফ হোসেন দিপ্তীসহ ৪ জনকে কুমিল্লার বিশ্বরোডের আলেখার চর মায়ামী হোটেল থেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
খিলক্ষেতে ৩ পথচারী নিহত

চট্টগ্রাম মহানগর যুবদলের সভাপতি মোশাররফ হোসেন দিপ্তীসহ ৪ জনকে কুমিল্লার বিশ্বরোডের আলেখার চর মায়ামী হোটেল থেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গতকাল মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়।

দ্য ডেইলি স্টারের কুমিল্লা সংবাদদাতাকে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দেবাশীষ চৌধুরী বলেন, 'রাতে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ তাদেরকে আটক করে সদর দক্ষিণ থানায় হস্তান্তর করে। রাতেই চট্টগ্রাম কোতোয়ালি থানা পুলিশের কাছে আটককৃতদের হস্তান্তর করা হয়েছে।'

আটককৃতদের মধ্যে আবদুর রহমান, হাবিবুর রহমান এবং আর্জু কুমিল্লা বিএনপির কর্মী বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা নিশ্চিত করেছেন।

তবে, কুমিল্লা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাজেশ বড়ুয়া বলেন, 'এ ধরনের কোনো অভিযান আমরা পরিচালনা করিনি, আমরা কাউকে গ্রেপ্তার করিনি।'

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার নোবেল চাকমা আজ সকালে দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, '১৬ জানুয়ারি পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় দায়ের করা মামলার আসামি দিপ্তী। গতকাল চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় পালিয়ে যাওয়ার সময় কুমিল্লা পুলিশের সহযোগিতায় তাকে মায়ামী হোটেল থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।'

এ সময় মোট ৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে উল্লেখ্য করে বাকিদের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, 'গ্রেপ্তারকৃত ৪ জনের মধ্যে দিপ্তীকে আমরা চট্টগ্রামে নিয়ে আসছি। বাকি ৩ জন হয়তো কুমিল্লার অন্য কোনো মামলার আসামি হবেন, কুমিল্লা জেলা পুলিশ তাদেরকে গ্রেপ্তার করতে পারে।'

'দিপ্তীকে আজ আদালতে হাজির করা হবে' বলে যোগ করেন তিনি।

চট্টগ্রাম নগর বিএনপির সাবেক দপ্তর সম্পাদক ইদ্রিস আলী অভিযোগ করেছেন, পুলিশ গতকাল রাতে যুবদল ও বিএনপি নেতাদের বাসায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করেছে।

গত ১৬ জানুয়ারি বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে চট্টগ্রাম নগরে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

নাসিমন ভবনে নগর বিএনপির দলীয় কার্যালয়ের সামনে বিএনপির পূর্ব নির্ধারিত বিক্ষোভ সমাবেশ শুরুর কিছুক্ষণ পর কাজির দেউরি এলাকায় সংঘর্ষ শুরু হয়। এক পর্যায়ে বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা কাজীর দেউরি পুলিশ বক্সের সামনে রাখা একটি মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেন।

Comments

The Daily Star  | English
Flooding in Sylhet region | More rains threaten to worsen situation

More rains threaten to worsen situation

More than one million marooned; BMD predict more heavy rainfall in 72 hours; water slightly recedes in main rivers

4h ago