ময়মনসিংহ সিটি নির্বাচন

আঙুলের ছাপ না মেলায় ভোট না দিয়ে ফিরে যাচ্ছেন অনেকে

১০২ বছর বয়সী দীপক চন্দ্র দাস নাসিরাবাদ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ১০ মিনিট ধরে অন্তত ২০ বার চেষ্টা করেও ভোট দিতে পারেননি। বারবার হেক্সিসল ঘষেও তার আঙুলের ছাপ মেলেনি। পরে সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তা তাকে বসিয়ে রেখে প্রিজাইডিং কর্মকর্তাকে খবর দেন।
১০২ বছর বয়সী দীপক চন্দ্র দাস নাসিরাবাদ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ১০ মিনিট ধরে অন্তত ২০ বার চেষ্টা করেও ভোট দিতে পারছিলেন না। ছবি: প্রবীর দাশ/স্টার

ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোট দিতে এসে আঙুলের ছাপ না মেলায় ভোট না দিয়ে ফিরে যাচ্ছেন অনেকে।

আজ শনিবার সকাল ৮টা থেকে সিটি করপোরেশনের অন্তত পাঁচটি কেন্দ্র ঘুরে এই চিত্র দেখা গেছে।

১০২ বছর বয়সী দীপক চন্দ্র দাস নাসিরাবাদ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ১০ মিনিট ধরে অন্তত ২০ বার চেষ্টা করেও ভোট দিতে পারেননি। বারবার হেক্সিসল ঘষেও তার আঙুলের ছাপ মেলেনি। পরে সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তা তাকে বসিয়ে রেখে প্রিজাইডিং কর্মকর্তাকে খবর দেন।

প্রিজাইডিং কর্মকর্তা প্রথমে তাকে দুপুরের পরে আবার আসতে বলেন। কিন্তু বুথে অবস্থান করা পোলিং এজেন্টরা এর প্রতিবাদ জানান। তারা বলেন, এলাকার সবচেয়ে প্রবীণ ভোটার ভোট না দিয়ে যেতে পারেন না। পরে বিশেষ ব্যবস্থাপনায় তার ভোট নেওয়া হয়।

সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলী বলেন, এর আগেও সকাল থেকে দুজন আঙুলের ছাপ না মেলায় ঘুরে গেছেন। তাদের দুপুরের পর আসতে বলা হয়েছে।

একই কেন্দ্রের ১ নম্বর বুথের সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তা অভিমন্যু রায় বলেন, তার বুথেও অন্তত তিনজন ফিরে গেছেন।

এর আগে সকালে প্রিমিয়ার আইডিয়াল স্কুলেও বেশ কয়েকজন নারী ভোটারকে ভোট না দিয়ে ফিরে যেতে দেখা গেছে।

সিটি করপোরেশনের সদ্য সাবেক মেয়র ইকরামুল হক টিটু সকালে ভোট দিতে এসে সাংবাদিকদের জানান, তার অনেক ভোটার ইভিএমে ভোট দিতে পারছেন না।

দ্য ডেইলি স্টার অন্তত ৬ জন পোলিং এজেন্টের সঙ্গে কথা বলেন। তারা জানান, ইভিএমে ভোটগ্রহণ অনেক ধীর গতিতে হচ্ছে।

Comments

The Daily Star  | English

'China is the winner' in Maldives election

A landslide parliamentary election victory for the Maldives' pro-China president clears the way for him to redraw the physical and geopolitical map of his strategically-located Indian Ocean archipelago in Beijing's favour, diplomats and analysts say

2h ago