বাংলাদেশ

রামপালসহ ৫ প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা-নরেন্দ্র মোদি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আজ মঙ্গলবার ভার্চুয়ালি খুলনার রামপালে ১ হাজার ৩২০ মেগাওয়াট (৬৬০ মেগাওয়াটের ২টি) মৈত্রী সুপার ক্রিটিক্যাল কয়লাচালিত তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রসহ ৫টি প্রকল্পের উদ্বোধন করেছেন।
ভার্চুয়ালি প্রকল্পের উদ্বোধন করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ছবি: ডিডি নিউজের লাইভ থেকে

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আজ মঙ্গলবার ভার্চুয়ালি খুলনার রামপালে ১ হাজার ৩২০ মেগাওয়াট (৬৬০ মেগাওয়াটের ২টি) মৈত্রী সুপার ক্রিটিক্যাল কয়লাচালিত তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রসহ ৫টি প্রকল্পের উদ্বোধন করেছেন।

এর মধ্যে রয়েছে রূপসা নদীর ওপর রেল সেতু, খুলনা-দর্শনা ও পার্বতীপুর-কাউনিয়া রেলপথ।

ভারতের লাইন অব ক্রেডিটের অধীনে ১ দশমিক ৬ বিলিয়ন ডলারসহ মোট ২ বিলিয়ন ডলারে রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র তৈরি হচ্ছে।

৫ দশমিক ১৩ কিলোমিটার রূপসা রেলসেতুটি ৬৪ দশমিক ৭ কিলোমিটার খুলনা-মোংলা বন্দর সিঙ্গেল ট্র্যাক ব্রডগেজ রেল প্রকল্পের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। এটি প্রথমবারের মতো মোংলা বন্দরকে খুলনার সঙ্গে রেলপথে যুক্ত করবে। একই সঙ্গে বাংলাদেশের মধ্য ও উত্তর অংশের সংযোগ এবং ভারতের পশ্চিমবঙ্গের পেট্রাপোল ও গেদে সীমান্তে সংযোগ স্থাপন করবে।

২ প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ সড়ক ও জনপথ বিভাগকে ২৫টি প্যাকেজে সড়ক নির্মাণের যন্ত্রপাতি সরবরাহেরও উদ্বোধন করেন।

খুলনা দর্শনা রেললাইন সংযোগ প্রকল্পটি বর্তমান (ব্রডগেজ দ্বিগুণ) অবকাঠামোর একটি আপগ্রেডেশন, যা গেদে-দর্শনা থেকে খুলনার বর্তমান ক্রস বর্ডার রেল সংযোগকে সংযুক্ত করবে। এর ফলে ২ দেশের মধ্যে, বিশেষ করে ঢাকার সঙ্গে মোংলা বন্দরের রেল যোগাযোগ বৃদ্ধি পাবে। এই প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ৩১২ দশমিক ৪৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

পার্বতীপুর-কাউনিয়া রেললাইনটি বিদ্যমান মিটারগেজ লাইনকে ডুয়েলগেজ লাইনে রূপান্তরের জন্য ব্যয় ধরা হয়েছে ১২০ দশমিক ৪১ মিলিয়ন ডলার। প্রকল্পটি দিনাজপুরের বিরল ও পশ্চিমবঙ্গের রাধিকাপুরের বিদ্যমান ক্রস বর্ডার রেলের সঙ্গে সংযোগ স্থাপন করবে এবং দ্বিপাক্ষিক রেল সংযোগ বৃদ্ধি করবে।

Comments

The Daily Star  | English

2 MRT lines may miss deadline

The metro rail authorities are likely to miss the 2030 deadline for completing two of the six planned metro lines in Dhaka as they have not yet started carrying out feasibility studies for the two lines.

5h ago