বহু ভাষা-ধর্মে বিভক্ত ভারতের একমাত্র অবলম্বন গণতন্ত্র: ড. রাহুল মুখার্জি

ভারতের গণতন্ত্রের সংকট নিয়ে বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটিতে সেমিনারে বক্তব্য দিলেন জার্মানির হাইডেলবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাউথ এশিয়া ইনস্টিটিউটের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান এবং ইনস্টিটিউটের কার্যনির্বাহী পরিচালক প্রফেসর ড. রাহুল মুখার্জি।
বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটিতে বক্তব্য দেন জার্মানির হাইডেলবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাউথ এশিয়া ইনস্টিটিউটের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক ড. রাহুল মুখার্জি। ছবি: সংগ্রহীত

ভারতের গণতন্ত্রের সংকট নিয়ে বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটিতে সেমিনারে বক্তব্য দিলেন জার্মানির হাইডেলবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাউথ এশিয়া ইনস্টিটিউটের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান এবং ইনস্টিটিউটের কার্যনির্বাহী পরিচালক প্রফেসর ড. রাহুল মুখার্জি।

অধ্যাপক ড. খন্দকার বজলুল হকের সভাপতিত্বে আজ মঙ্গলবার বিকেলে এশিয়াটিক সোসাইটি অডিটোরিয়ামে এই সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারের প্রবন্ধের শিরোনাম ছিল 'ভারতের গণতন্ত্র কি মৃত্যুর পথে?'

ড. রাহুল মুখার্জি ভারতে গণতন্ত্রের চালচিত্র, গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলোর ওপর বিজেপি সরকারের হস্তক্ষেপ ও নিয়ন্ত্রণ চেষ্টা, ভারতব্যাপী শক্তিশালী বিরোধী দলের অনুপস্থিতির মতো বিষয়গুলো তুলে ধরে বলেন, 'গণতন্ত্রের জন্য শক্তিশালী বিরোধী দল, সক্রিয় সুশীল সমাজ, গণমাধ্যমের স্বাধীনতা এবং শক্তিশালী মৌলিক প্রতিষ্ঠান-কাঠামো থাকা একান্ত আবশ্যক। আর গণতন্ত্র ছাড়া সামাজিক সংহতি ও টেকসই উন্নয়ন সম্ভব নয়। বহুভাষা, অঞ্চল আর ধর্মে বিভক্ত ভারতের জন্য তা শুধু আবশ্যকই নয়, একমাত্র অবলম্বন।'

অনুষ্ঠানের শুরুতে এশিয়াটিক সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. ছিদ্দিকুর রহমান খান অতিথি বক্তা ড. রাহুল মুখার্জির একাডেমিক জীবন-বৃত্তান্ত তুলে ধরেন। প্রবন্ধ উপস্থাপন শেষে প্রশ্নোত্তর পর্বের জন্য আলোচনা উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়। বিশিষ্ট রাষ্ট্রবিজ্ঞানী প্রফেসর ড. হারুন-অর-রশিদ, ড. সদরুল আমিন, অধ্যাপক ড. আবদুল মবিন চৌধুরী, ড. শরিফ উদ্দিন আহমেদ, ড. মোহাম্মদ সেলিম প্রমুখ আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন।

উল্লেখ্য, আগামীকাল ২১ সেপ্টেম্বর বিকাল ৩টা ৩০ মিনিটে অধ্যাপক ড. রাহুল মুখার্জি ধানমন্ডিতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নগর কার্যালয়ে 'সমাজচিন্তা, প্রতিষ্ঠান-কাঠামো ও বিশ্বায়ন বিষয়ে বক্তব্য রাখবেন।

Comments

The Daily Star  | English

What is seat-sharing and why as a voter you should know about it

In the lead-up to the national election on January 7, 2024, parties that have committed to participating in the polls have put forth their nominees

1h ago