ইউনূস স্পোর্টস হাবের সঙ্গে গ্লোবাল ই-স্পোর্টস ফেডারেশনের পার্টনারশিপ চুক্তি

জাতিসংঘের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যগুলোকে এগিয়ে নিতে গ্লোবাল ই-স্পোর্টস ফেডারেশন ও ইউনূস স্পোর্টস হাবের এর মধ্যে একটি পার্টনারশিপ চুক্তি সই হয়েছে।

জাতিসংঘের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যগুলোকে এগিয়ে নিতে গ্লোবাল ই-স্পোর্টস ফেডারেশন ও ইউনূস স্পোর্টস হাবের এর মধ্যে একটি পার্টনারশিপ চুক্তি সই হয়েছে।

আজ রোববার ইউনূস সেন্টার থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

ই-স্পোর্টস ফর ডেভেলপমেন্ট আন্দোলনের মূল লক্ষ্য জাতিসংঘের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যগুলোকে ত্বরান্বিত করতে বিশ্ব ই-স্পোর্টস কমিউনিটির ভূমিকাকে আরও শক্তিশালী করা।

ইউনূস স্পোর্টস হাব-এর চেয়ারম্যান নোবেল বিজয়ী অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ ইউনূস বলেন, 'আমাদেরকে পুরোনো চিন্তাধারা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে যা চরম দারিদ্র্য, বিপুল বেকারত্ব ও জলবায়ু সংকটের মতো সমস্যা সৃষ্টি করেছে। নতুন অর্থনৈতিক চিন্তার সহায়তায় একটি নতুন সভ্যতা গড়ে তোলার সব ক্ষমতা তরুণ প্রজন্মের মধ্যে রয়েছে। এই নতুন সভ্যতাকে বাস্তবে রূপ দিতে তরুণ প্রজন্মের মেধা, কল্পনাশক্তি ও প্রচেষ্টাকে একত্রিত করতে ই-স্পোর্টস একটি কার্যকর ভূমিকা পালন করতে পারে।'

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ই-স্পোর্টসের অংশগ্রহণকারীর সংখ্যা বর্তমানে সোয়া দুই কোটি। এছাড়াও মাঝে মাঝে অংশগ্রহণ করে এরকম অংশগ্রহণকারীর সংখ্যা আরও অনেক। বিশ্বব্যাপী এর জনপ্রিয়তা দ্রুত বাড়ছে।

গ্লোবাল ই-স্পোর্টস ফেডারেশনের প্রেসিডেন্ট ক্রিস চ্যান বলেন, 'জাতিসংঘের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য উদযাপন সপ্তাহ চলাকালে "আন্তর্জাতিক শান্তি দিবস"-এর একই দিনে অনুষ্ঠিত গ্লোবাল ই স্পোর্টস ফেডারেশনের ৭ম বোর্ড সভায় কমিউনিটি, পৃথিবীর মানুষ ও আমাদের গ্রহের স্বার্থে গুরুত্বপূর্ণ সমস্যাগুলোর সমাধানে আমাদের প্রতিশ্রুতিগুলি জোরালোভাবে পুনর্ব্যক্ত করা হয়েছে। এই পথচলায় প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূস ও ইউনূস স্পোর্টস হাব আমাদের সাথে যুক্ত হওয়ায় আমরা গর্বিত ও সম্মানিত বোধ করছি।'

গ্লোবাল ই-স্পোর্টস ফেডারেশন ও ইউনূস স্পোর্টস হাব সম্মিলিতভাবে নোবেল শান্তি পুরস্কার ২০০৬ ও ২০২১ অলিম্পিক লরেল বিজয়ী প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূসের সামাজিক ব্যবসা মডেলের ভিত্তিতে কার্যকর ও আর্থিকভাবে টেকসই বিভিন্ন ব্যবসা উদ্যোগ চিহ্ণিত করতে, এগুলোর জন্য সক্ষমতা তৈরি করতে এবং এগুলোকে এগিয়ে নিয়ে যেতে উপযুক্ত প্লাটফরম গড়ে তুলবে।

এ বিষয়ে ইউনূস স্পোর্টস হাব-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইয়োআন নগিয়ের বলেন, ই-স্পোর্টস ফর ডেভেলপমেন্টকে কাঠামোবদ্ধ করার এখনই সময়; ই-স্পোর্টস থেকে পৃথকভাবে নয়, বরং এর উদ্ভাবনশীল প্রক্রিয়া ও সামাজিক ব্যবসার পদ্ধতিকে ব্যবহার করে কার্যক্রমকে টেকসই করার জন্য। এই প্রক্রিয়ায় সামাজিক ব্যবসা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারবে।

গ্লোবাল ই-স্পোর্টস ফেডারেশনের নির্বাহী পরিচালক, স্ট্র্যাটেজি অ্যান্ড ইমপ্যাক্ট পরিচালক থানোস কারাগ্রাওনাস বলেন, 'আমরা এই অভিঘাত সৃষ্টিতে ই-স্পোর্টস কমিউনিটির সৃষ্টিশীলতা, উৎসাহ ও অঙ্গীকার প্রতিনিয়ত দেখতে পাচ্ছি। এই যৌথ উদ্যোগ দুই প্রতিষ্ঠানের অভিজ্ঞতা, ব্যাপ্তি, কর্মপরিধি ও সংযোগকে কার্যকরভাবে কাজে লাগাতে পারবে।'

এ বছরের ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিতব্য  'ইস্তাম্বুল ২০২২ গ্লোবাল ই-স্পোর্টস গেম' এই উদ্যোগের একটি বড় উৎক্ষেপণস্থল হিসেবে কাজ করবে যেখানে পুরো #worldconnected কমিউনিটির সফল কর্মসূচি এবং তাদের অনুপ্রেরণাদায়ী অভিজ্ঞতাগুলো প্রদর্শিত হবে।

Comments

The Daily Star  | English

AL to go tough to quell infighting

Over the first six months of this year, there were on average more than two incidents of infighting every day in Awami League. These conflicts accounted for 94 percent of the total 440 incidents of political violence during the same period.

5h ago