বাংলাদেশ

১০ টাকার ইফতার বাজার

এই আয়োজন হাসি ফুটিয়েছে নিম্ন আয়ের ও সুবিধাবঞ্চিত ২১০ জন মানুষের মুখে।
ছবি: সংগৃহীত

২ কেজি পেঁয়াজ, ১ লিটার তেল, ১ কেজি করে চিনি, ছোলা, চিড়া, মুড়ি ও খেজুরসহ ৭০০ টাকার ৭ ধরনের ইফতার সামগ্রী ১০ টাকায় মিলল মুন্সীগঞ্জের টংগিবাড়ীর কামারখাড়া বাজারে।  

আজ শুক্রবার দুপুরের এই আয়োজন হাসি ফুটিয়েছে নিম্ন আয়ের ও সুবিধাবঞ্চিত ২১০ জন মানুষের মুখে।

বিশেষ এই বাজারের আয়োজন করেছিল বিক্রমপুর মানবসেবা ফাউন্ডেশন নামের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।

১০ টাকায় প্রয়োজনীয় ইফতারসামগ্রী কিনতে পেরে খুশি স্থানীয় খোদেজা বেগম। তিনি বলেন, '৮ রোজা চলে গেল। এ পর্যন্ত ইফতার উপলক্ষে কোনো বাজার করতে পারিনি। আজ ১০ টাকায় তারা ইফতার সামগ্রী দিয়েছে। ভবিষ্যতে আবারও দেবে বলেছে।'

রাজমিস্ত্রির কাজ করেন ওমর আলী। এ বাজার থেকে আজ বাজার করেছেন তিনিও।

ওমর আলী বলেন, 'এই ইফতার সামগ্রী দেওয়াতে আমাদের মতো গরিব মানুষের খুব উপকার হয়েছে। আমরা তো কুলাতে পারি না। এগুলো পেয়ে অনেক খুশি হয়েছি। তাদেরকে ধন্যবাদ।'

সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য রিয়াদ হোসাইন বলেন, 'এই ইফতার বাজার আয়োজন করতে আমাদের দেড় লাখ টাকা খরচ হয়েছে। আমাদের সংগঠন এর আগেও ইফতার সামগ্রী দিয়েছে। আগের বছর ১০ টাকায় গরুর মাংস বিক্রি করেছিলাম। আমাদের পরিকল্পনা আরও বড় ছিল। তবে আর্থিক সংকটের কারণে কিছুটা সীমিত পরিসরে করা হচ্ছে। এই কাজটি দেখে যাতে অন্যরাও অনুপ্রাণিত হয় ও এগিয়ে আসে, সেটিই আমাদের এই আয়োজনের মূল লক্ষ্য।'

সংগঠনের সভাপতি আবু বকর সিদ্দিক হিরা বলেন, 'আমাদের ৫০-৬০ জন সদস্য সক্রিয় রয়েছে। তাদের চাঁদা থেকেই এই বিশেষ বাজারে নামমাত্র মূল্যে ইফতার সামগ্রী বিক্রি করেছি। ৭০০ টাকার ইফতার সামগ্রী মাত্র ১০ টাকায় দেওয়া হয়েছে। উপকারভোগীর মনে যেন কোনো সংকোচ না থাকে, তিনি যেন মনে করেন কিনেই নিচ্ছেন, সে কারণে আমরা ১০ টাকা করে নিচ্ছি।'

২০১৮ সালে প্রতিষ্ঠিত এই স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনটি প্রতি বছরই নামমাত্র মূল্যে ইফতার সামগ্রী বিক্রি করছে। এ ছাড়াও, ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প, শীতে দরিদ্রদের শীতের পোশাক বিতরণসহ নানা কর্মকাণ্ডে যুক্ত তারা।

Comments