সাংবাদিক নাদিম হত্যায় জড়িতদের গ্রেপ্তারের দাবিতে মানববন্ধন

জামালপুরের বকশীগঞ্জে সাংবাদিক গোলাম রব্বানি নাদিম হত্যায় জড়িতদের গ্রেপ্তারের দাবিতে দেশের বিভিন্ন জেলায় বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ হয়েছে।
জামালপুরের বকশীগঞ্জে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত সাংবাদিক গোলাম রাব্বানি নাদিম হত্যায় জড়িতদের গ্রেপ্তারের দাবিতে জামালপুর, নাটোর, খাগড়াছড়ি ও সাভারে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ হয়েছে। ছবি: স্টার

জামালপুরের বকশীগঞ্জে সাংবাদিক গোলাম রব্বানি নাদিম হত্যায় জড়িতদের গ্রেপ্তারের দাবিতে দেশের বিভিন্ন জেলায় বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ হয়েছে।

গোলাম রব্বানি গতকাল দুপুর আড়াইটার দিকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। তিনি 'বাংলানিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম'–এর জামালপুর জেলা প্রতিনিধি ছিলেন। একই সঙ্গে 'একাত্তর টিভির' বকশীগঞ্জ উপজেলা সংবাদ সংগ্রাহক হিসেবে কাজ করতেন।

গত বুধবার বকশীগঞ্জ বাজারের পাটহাটি এলাকায় হামলার শিকার হন সাংবাদিক নাদিম। অভিযোগ উঠেছে, সংবাদ প্রকাশের জেরে বকশীগঞ্জ উপজেলার সাধুরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মাহমুদুল আলমের লোকজন তার ওপর হামলা চালিয়েছেন। মাহমুদুল আলম সাধুরপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

২৪ ঘণ্টার মধ্যে চেয়ারম্যান বাবুকে গ্রেপ্তারের দাবিতে বকশীগঞ্জে বিক্ষোভ

আজ শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে সাংবাদিক নাদিমের দাফন শেষে বকশীগঞ্জ থানা ভবনের সামনে জেলা ও উপজেলার কর্মরত সাংবাদিকরা এ হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদ ও জড়িতদের সর্বোচ্চ দাবিতে কর্মসূচি পালন করেন।

সমাবেশে বক্তারা আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সাধুরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল আলম বাবুকে গ্রেপ্তারের দাবি জানান। তা না হলে তারা বৃহত্তর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন।

বিক্ষোভ সভায় সভাপতিত্ব করেন জামালপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি হাফিজ রায়হান সাদা।

এসময় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক শিবলী সাদিক খান, জামালপুর প্রেসক্লাবের কোষাধ্যক্ষ কাফি পারভেজ, জামালপুর টেলিভিশন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন মিন্টু, জামালপুর অনলাইন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি শওকত জামান, সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া জাহাঙ্গীরসহ আরও অনেকে।

সভায় জামালপুর প্রেসক্লাব, জামালপুর টেলিভিশন জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন, অনলাইন জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন, ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন, বকশীগঞ্জ প্রেসক্লাব, উপজেলা প্রেসক্লাব, মডেল প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন গণমাধ্যম সংগঠনের নেতা ও গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

নাটোরে মানববন্ধন: সারাদেশে সাংবাদিক নির্যাতন বন্ধে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান

আজ শুক্রবার সকাল ১১টার নাটোর কানাইখালী পুরাতন বাসস্ট্যান্ড এলাকায় সাংবাদিক নাদিম হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন একাত্তর টেলিভিসনের নাটোর জেলা প্রতিনিধি ও ইউনিক প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক বুলবুল আহমেদ, বাংলা নিউজ ২৪.কম এর নাটোর জেলা প্রতিনিধি মামুনুর রশীদ, নাটোর প্রেসক্লাবের সভাপতি ফারাজি আহমেদ বাবন, সিনিয়র সাংবাদিক  বীর মুক্তিযোদ্ধ নবীউর রহমান পিপলু, সিনিয়র সাংবাদিক ররেন রায়, যমুনা টিভির সাংবাদিক নাজমুল হাসানসহ সাংবাদিক নেতারা।

বক্তারা নাদিম হত্যার জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। একইসঙ্গে সারাদেশে সাংবাদিক নির্যাতন বন্ধে সাংবাদিকদের ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানান।

সাভারে মানববন্ধন: দোষীদের শাস্তির দাবি

আজ শুক্রবার দুপুরে নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের বাইপাইলে আশুলিয়া প্রেসক্লাবের উদ্যোগে সাংবাদিক নাদিম হত্যার প্রতিবাদ ও জড়িতদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন হয়। এতে স্থানীয় প্রিন্ট, ইলেক্ট্রনিক ও অনলাইন গণমাধ্যমকর্মীরা অংশ নেন।

সমাবেশে মানববন্ধনে আশুলিয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি ও সময় টেলিভিশনের স্টাফ রিপোর্টার মোজাফফর হোসেন জয় বলেন, 'আমাদের সহকর্মী সাংবাদিক নাদিমকে নৃশংসভাবে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। শুধু সংবাদ প্রকাশের জেরেই স্থানীয় এক ইউপি চেয়ারম্যান তার ওপর এই হামলা চালিয়েছে। আমরা দ্রুত দোষীদের আটক ও তাদের শাস্তির দাবি জানাচ্ছি। অন্যথায় সারাদেশের সাংবাদিকদের নিয়ে আরও কঠোর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।'

এসময় উপস্থিত ছিলেন চ্যানেল আইয়ের সাভার প্রতিনিধি জাকির হোসেন, বিজয় টেলিভিশনের সাভার প্রতিনিধি মো. সোহেল হোসেন, সকালের সময় পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার মো. ইফতেখার আলম জাহাঙ্গীর, সাংবাদিক নজরুল ইসলাম মানিক, দৈনিক বাংলার সাভার প্রতিনিধি ইমতিয়াজুল ইসলাম, ঢাকাপোস্ট.কমের সাভার প্রতিনিধি মাহিদুল মাহিদসহ আরও অনেকে।

খাগড়াছড়িতে মানববন্ধন ও মৌন পদযাত্রা

খাগড়াছড়িতে সাংবাদিক নাদিম হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে খাগড়াছড়ি সাংবাদিক ইউনিয়ন।

শুক্রবার সকালে বৈরি আবহাওয়া উপেক্ষা করে খাগড়াছড়ি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে খাগড়াছড়ি সাংবাদিক ইউনিয়ন'র কর্মসূচিতে খাগড়াছড়ি প্রেসক্লাব, খাগড়াছড়ি টিভি জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশ প্রেস ক্লাব টিআইবি-সনাক সংহতি প্রকাশ করেছেন।

পরে সাংবাদিকরা মৌন পদযাত্রার মাধ্যমে শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক ঘুরে খাগড়াছড়ি প্রেসক্লাব'র সামনে এসে কর্মসূচি শেষ করে।

খাগড়াছড়ি সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি প্রদীপ চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন খাগড়াছড়ি প্রেসক্লাবের সভাপতি জীতেন বড়ুয়া, সহ-সভাপতি মো. জহুরুল আলম, খাগড়াছড়ি সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সৈকত দেওয়ান, খাগড়াছড়ি টিভি জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক এইচ. এম. প্রফুল্ল এবং টিআইবি-খাগড়াছড়ির ম্যানেজার মো. আব্দুর রহমান।

মানববন্ধনে বক্তারা দ্রুত সময়ের মধ্যে হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। সারাদেশে সাংবাদিকদের হত্যা এবং মামলা দিয়ে হয়রানি বন্ধে সরকার ও আইন শৃংখলা বাহিনীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তারা।

এসময় বক্তারা সাংবাদিকদের পেশাগত দায়িত্ব ও জীবনের সুরক্ষায় আলাদা আইন প্রণয়নের দাবি এবং নিহতের পরিবারের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেছেন।

বরিশালে মানববন্ধন: অবিলম্বে জড়িতদের গ্রেপ্তার না হলে কঠোর কর্মসূচি

গতকাল বৃহস্পতিবার সাংবাদিক নাদিমের মৃত্যুর খবরের পর হত্যাকারীদের বিচারের দাবিতে প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন করেছে বরিশালের সর্বস্তরের সাংবাদিকরা।

বৃহস্পতিবার বিকেলে অশ্বিনী কুমার হলের সামনে এই মানববন্ধন হয়। এসময় বক্তারা অবিলম্বের জড়িতদের গ্রেপ্তার না করা হলে কঠোর কর্মসূচির ঘোষণা দেন।

সিনিয়র সাংবাদিক আনিছুর রহমান স্বপনের সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য রাখেন শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত বরিশাল প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসেন, ন্যাশনাল ডেইলিজ ব্যুরো চিফ অ্যাসোসিয়েশন অব বরিশালের সাধারণ সম্পাদক আকতার ফারুক শাহীন, টেলিভিশন মিডিয়া অ্যাসোসিয়েশনের বরিশালের সভাপতি হুমায়ুন কবির, বরিশাল রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি নজরুল বিশ্বাস, সাংবাদিক ইউনিয়ন বরিশালের সভাপতি সাইফুর রহমান মিরন প্রমুখ।

এসময় বক্তারা বলেন, 'সাংবাদিক নির্যাতনের বিচারহীনতার কারণে গোলাম রাব্বানী নাদিমের মতো সাংবাদিককে প্রাণ দিতে হলো। নাদিমের অপরাধ সে সরকার দলীয় এক চেয়ারম্যানের অনিয়মের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রচার করেছে। এজন্য তাকে দুই দফায় হামলা চালিয়ে হত্যা করা হয়।

'এর আগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে তাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করেও সফল না হয়ে শেষ পর্যন্ত চলন্ত মোটরসাইকেল থেকে নামিয়ে পিটিয়ে হত্যা করেছে চেয়ারম্যানের লোকজন। আমরা সরকারের কাছ থেকে আশ্বাস নয়, কার্যকর পদক্ষেপ চাই। দ্রুত সময়ের মধ্যে নাদিমের হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে আমরা এখানে দাঁড়িয়েছি, যদি তা না হয় তাহলে কাঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে।'

জামালপুর, নাটোর, সাভার, খাগড়াছড়ি ও বরিশালের নিজস্ব সংবাদদাতাদের পাঠানো তথ্য থেকে প্রতিবেদনটি তৈরি হয়েছে।

Comments

The Daily Star  | English

No outside pressure on EC over polls: EC Alamgir

Election Commissioner Md Alamgir today said the Election Commission is not facing pressure from outside regarding the upcoming national polls

16m ago