হোলি আর্টিজান হামলা: নিহতদের প্রতি শনিবার শ্রদ্ধা জানাবে বাংলাদেশ

২০১৯ সালের ২৭ নভেম্বর একটি বিশেষ সন্ত্রাসবিরোধী ট্রাইব্যুনাল হামলায় জড়িত থাকার জন্য ৭ জনকে মৃত্যুদণ্ড দেয়।
ফাইল ছবি

সাত বছর আগে ঢাকার অভিজাত গুলশান এলাকায় হোলি আর্টিজান ক্যাফেতে জঙ্গি হামলায় নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাবে বাংলাদেশ, যাদের বেশিরভাগ জাপানি ও ইতালীয়।

শনিবার তাদের প্রতি শ্রতি শ্রদ্ধা জানানো হবে।

ক্যাফেটি ১২ ঘণ্টা অবরুদ্ধ করে বেশ কিছু লোককে জিম্মি করে রেখেছিল জঙ্গিরা। যাদের মধ্যে ১৭ জন বিদেশি এবং ২ পুলিশ সদস্যসহ ২২ জনকে হত্যা করেছিল। দেশের সবচেয়ে ভয়াবহ এই জঙ্গি হামলায় অন্তত ৫০ জন গুরুতর আহত হয়েছেন।

নিহতদের মধ্যে ৯ জন ইতালিয়ান, ৭ জন জাপানি, একজন ভারতীয়, একজন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত আমেরিকান ও ২ জন বাংলাদেশি ছিল।

২০১৬ সালের ১ জুলাই রাতে ৫ জন সশস্ত্র ব্যক্তি ক্যাফেতে হামলা চালায়। এসময় ক্যাফেতে ডিনাররত যাদেরকে জিম্মি করা হয়েছিল, তাদের বেশিরভাগই ছিল বিদেশি। একপর্যায়ে তারা একে একে কয়েকজন জিম্মিকে হত্যা করতে থাকে।

ইসলামিক স্টেট সন্ত্রাসী গোষ্ঠী হামলার দায় স্বীকার করেছে, কিন্তু বাংলাদেশ সরকার দৃঢ়ভাবে দেশে সংগঠনটির উপস্থিতি অস্বীকার করেছে।

ভয়াবহ হামলার পর বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষ জঙ্গিদের ওপর নৃশংস দমন-পীড়নের জবাব দিয়েছে।

২০১৯ সালের ২৭ নভেম্বর একটি বিশেষ সন্ত্রাসবিরোধী ট্রাইব্যুনাল হামলায় জড়িত থাকার জন্য ৭ জনকে মৃত্যুদণ্ড দেয় এবং একজন খালাস পেয়েছেন।

Comments

The Daily Star  | English

Pahela Baishakh being celebrated

Pahela Baishakh, the first day of Bengali New Year-1431, is being celebrated across the country today with festivity, upholding the rich cultural values and rituals of the Bangalees

1h ago