নাটোর

‘শোক দিবসের অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ায়’ এমপির নির্দেশে স্কুলশিক্ষক বরখাস্ত

তবে ওই শিক্ষকের দাবি, এমপি কুদ্দুসের প্রতিপক্ষ নেতার অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার কারণে সাময়িক বরখাস্ত হয়েছেন তিনি।
শিশু চুরি
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

নাটোরের গুরুদাসপুরে 'শোক দিবসের অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়া'য় এক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষককে বরখাস্ত করা হয়েছে। নাটোর-৪ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল কুদ্দুস ওই শিক্ষককে বরখাস্ত করার নির্দেশ দেন।

গত বুধবার জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. গোলাম নবীর সই করা এক চিঠিতে গুরদাসপুর উপজেলার দড়িকাছিকাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মাসুদুর রহমানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

তবে ওই শিক্ষকের দাবি, এমপি কুদ্দুসের প্রতিপক্ষ নেতার অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার কারণে সাময়িক বরখাস্ত হয়েছেন তিনি।

গুরুদাসপুর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা খ ম জাহাঙ্গীর হোসেন দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'রাজনৈতিক দলের অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ায় এমপি আব্দুল কুদ্দুসের নির্দেশে তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে। এর আগে মাসুদুর রহমানকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিলে তিনি দোষ স্বীকার ক্ষমা চান। পরে ওই শিক্ষকের জবাবের বিষয়টি জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের কাছে পাঠানো হলে তিনি সাময়িক বরখাস্তের আদেশ দেন।'

জানতে চাইলে নাটোর জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ গোলাম নবী ডেইলি স্টারকে বলেন, 'গুরদাসপুর উপজেলার দড়িকাছিকাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মাসুদুর রহমান রাজনৈতিক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছেন বলে নাটোর-৪ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল কুদ্দুস ওই শিক্ষককে বরখাস্ত করার নির্দেশ দেন। এমপি মহোদয়ের নির্দেশ পেয়ে ওই শিক্ষককে প্রথমে শোকজ এবং পরে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।'

তিনি আরও জানান, ওই শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত না করলে জেলার বাইরে বদলি করে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন এমপি আব্দুল কুদ্দুস।

কারণ দর্শানোর নোটিশের জবাবে অভিযুক্ত শিক্ষক মাসুদুর রহমান বলেন, 'গত ১৪ আগস্ট সন্ধ্যা ৬টায় জাতীয় শোক দিবস যথাযথ মর্যাদায় উদযাপনের প্রেক্ষিতে ও প্রস্তুতি উপলক্ষে প্রস্তুতিসভা ও একটি গণমিছিলে অংশ নেই। মিছিলে আমি দেশপ্রেমে উজ্জীবিত নাগরিক হিসেবে "জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু", "১৫ই আগস্ট সফল হোক, সফল হোক", "আজকের এই দিনে, মুজিব তোমায় মনে পড়ে", "লাল সবুজের পতাকায়, মুজিব তোমায় দেখা যায়" ইত্যাদি স্লোগান দিই। এর বাইরে অন্য কোনো স্লোগান আমি দিইনি। আমার স্লোগানে কোনো সরকারবিরোধী কথা ছিল না। তা ছাড়া আমি সরকারি কর্মচারী হিসেবে সরকার ঘোষিত সকল জাতীয় দিবসে অংশগ্রহণ করে যথাযথ মর্যাদায় উদযাপন করেছি।'

অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে মাসুদুর রহমান ডেইলি স্টারকে বলেন, 'শোক দিবসের ওই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ এবং নাটোর-৪ আসনের সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী আহম্মদ আলী মোল্লা।'

'এমপি কুদ্দুসের প্রতিপক্ষ নেতার অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার কারণে আমাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে', দাবি করেন মাসুদুর।

তিনি আরও বলেন, 'আমাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। আমার পরিবার আছে। অর্ধেক বেতন দিয়ে আমি কীভাবে চলব? আবার শিক্ষা অফিসার বলছেন তিনি নাকি আমার মঙ্গল করেছেন! আমি বরখাস্তের এই আদেশ প্রত্যাহার চাই। আমি জাতির জনকের স্লোগান দিয়ে কোনো অন্যায় করিনি।'

জানতে চাইলে নাটোর-৪ আসনের সংসদ সদস্য এবং নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল কুদ্দুস বলেন, 'ওই শিক্ষক শোক দিবসের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে আমার বিরুদ্ধে ও প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে স্লোগান দিয়েছেন। আমার নেতাকর্মীরা তাকে মেরে হাত-পা ভেঙে দিতে চেয়েছিল। কিন্তু আমি বলেছি শিক্ষককে মারধর করা যাবে না, তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পরে আমি জেলা শিক্ষা অফিসারকে নির্দেশ দিয়েছি ব্যবস্থা নিতে।'

Comments

The Daily Star  | English

Create right conditions for Rohingya repatriation: G7

Foreign ministers from the Group of Seven (G7) countries have stressed the need to create conditions for the voluntary, safe, dignified, and sustainable return of all Rohingya refugees and displaced persons to Myanmar

1h ago