বাংলাদেশ

১০২০ যাত্রী নিয়ে কক্সবাজার ছাড়ল ঢাকাগামী ট্রেন

‘কক্সবাজার এক্সপ্রেস’ ট্রেনটি দুপুর ১২টা ৩০ মিনিটে কক্সবাজার স্টেশন থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়েছে।
কক্সবাজার এক্সপ্রেস
দুপুর ১২টা ৩০ মিনিটে ‘কক্সবাজার এক্সপ্রেস’ ট্রেনটি ঢাকার উদ্দেশে ছাড়ে। ছবি: মোকাম্মেল শুভ/স্টার

আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করছে ঢাকা-কক্সবাজার-ঢাকা রেলপথে যাত্রীবাহী ট্রেন।

আজ শুক্রবার দুপুর ১২টা ৩০ মিনিটে 'কক্সবাজার এক্সপ্রেস' ট্রেনটি প্রথমবারের মতো কক্সবাজার থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছাড়ে

বিষয়টি দ্য ডেইলি স্টারকে নিশ্চিত করেছেন কক্সবাজারের স্টেশন মাস্টার গোলাম রাব্বানী।

তিনি জানান, এক হাজার ২০ জন যাত্রী নিয়ে 'কক্সবাজার এক্সপ্রেস' ট্রেনটি দুপুর ১২টা ৩০ মিনিটে কক্সবাজার স্টেশন থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়েছে।

coxs-bazar-express2_ds
দুপুর ১২টা ৩০ মিনিটে ‘কক্সবাজার এক্সপ্রেস’ ট্রেনটি ঢাকার উদ্দেশে ছাড়ে। ছবি: মোকাম্মেল শুভ/স্টার

ট্রেনের যাত্রী ওসমান ডেইলি স্টারকে বলেন, 'ঢাকা-কক্সবাজারগামী ট্রেনে উঠতে পেরে আমি অত্যন্ত খুশি। এই রুটে প্রথম ট্রেনের যাত্রী হতে পেরে আনন্দ লাগছে।'

ট্রেনটি ছাড়ার মধ্যে দিয়ে কক্সবাজার জেলাসহ বৃহত্তর দক্ষিণ চট্টগ্রামবাসীর দীর্ঘ ১৩০ বছরের স্বপ্ন বাস্তবে রূপ নিলো। ট্রেন চলাচল ঘিরে কক্সবাজারের স্থানীয়দের মধ্যে আনন্দ ও উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে।

রেলওয়ে সূত্র জানায়, কক্সবাজার থেকে ঢাকা যেতে ট্রেনটির আট ঘণ্টা ১০ মিনিট সময় লাগার কথা। যাত্রী নিয়ে ট্রেনটি পুনরায় আজ রাত সাড়ে ১০টার দিকে কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে কক্সবাজারের উদ্দেশে ছাড়বে।

কক্সবাজার রেলস্টেশনের স্টেশন মাস্টার মো. ফরহাদ বিন জাফর গতকাল ডেইলি স্টারকে বলেন, 'উদ্বোধনী ট্রেনে ২৩টি বাস বা বগি থাকবে।'

coxs-bazar-express_ds
দুপুর ১২টা ৩০ মিনিটে ‘কক্সবাজার এক্সপ্রেস’ ট্রেনটি ঢাকার উদ্দেশে ছাড়ে। ছবি: মোকাম্মেল শুভ/স্টার

গত ২৩ নভেম্বর উদ্বোধনী ট্রেনের টিকিট অনলাইনে বিক্রি শুরুর দিন প্রথম আড়াই ঘণ্টায় বিক্রি হয়ে যায়।

রেলওয়ে মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, নতুন এ রেলপথে চলাচলকারী ট্রেনটির নামকরণের জন্য মন্ত্রণালয় থেকে ছয়টি নাম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে পাঠানো হয়। সেই ছয়টি নাম থেকে প্রধানমন্ত্রী ট্রেনটির নাম 'কক্সবাজার এক্সপ্রেস' চূড়ান্ত করেন।

চট্টগ্রামের দোহাজারি থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত রেলপথ স্থাপন প্রকল্পের কাজ শুরু হয় ২০১৮ সালের জুনে। প্রকল্প বাস্তবায়নে ব্যয় হয় প্রায় ১৮ হাজার ৩৪ কোটি টাকা।

গত ১১ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই রেলপথের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

Comments