প্রথম ধাপের ইজতেমা শুরু কাল, সড়ক ও পার্কিং নির্দেশনা

যান চলাচলে শৃঙ্খলা বজায় রাখা, যানজট এড়ানো ও মুসল্লিদের চলাচল নির্বিঘ্নে করতে সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করা হয়েছে।
ইজতেমা
ইজতেমার দুই ধাপের জন্য এই নির্দেশনা কার্যকর থাকবে। ছবি: পলাশ খান/স্টার ফাইল ফটো

বিশ্বে মুসলমানদের দ্বিতীয় বৃহত্তম জমায়েত হিসেবে পরিচিত বিশ্ব ইজতেমার প্রথম ধাপ আগামীকাল ২ থেকে ৪ ফেব্রুয়ারি গাজীপুরের টঙ্গীর তুরাগ তীরে অনুষ্ঠিত হবে।

ইজতেমার দ্বিতীয় ধাপ আগামী ৯ থেকে ১১ ফেব্রুয়ারি একইস্থানে অনুষ্ঠিত হবে।

বৃহৎ এই জমায়েতকে সামনে রেখে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) ও গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ (জিএমপি) যৌথভাবে ট্রাফিক ও গাড়ি পার্কিং ব্যবস্থাপনার নির্দেশনা জারি করেছে।

ইজতেমার প্রতিটি ধাপের জন্য এই ব্যবস্থা কার্যকর থাকবে।

গতকাল বুধবার পুলিশ সদরদপ্তর থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে যান চলাচলে শৃঙ্খলা বজায় রাখা, যানজট এড়ানো ও মুসল্লিদের চলাচল নির্বিঘ্নে করতে সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করা হয়।

পার্কিং নির্দেশাবলী

রাজধানীর খিলক্ষেত-আব্দুল্লাহপুর-ধউর সেতু থেকে সড়ক ও আশপাশের এলাকাকে নো-পার্কিং জোন ঘোষণা করা হয়েছে।

নির্দিষ্ট পার্কিং এলাকা

ইজতেমায় মুসল্লিদের অংশগ্রহণের জন্য গাড়ি পার্কিংয়ের সুবিধার কয়েকটি জায়গা নির্ধারণ করে দিয়েছে পুলিশ।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পার্কিং: ৩০০ ফুট রাস্তার পাশে স্বদেশ সম্পত্তির খালি জায়গা।

ডিএমপি এলাকার ভেতরে বিভাগীয় পার্কিং:

ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগ পার্কিং: ১৫ নম্বর সেক্টরের কদম আলী মার্কেট, ৫ নম্বর সেক্টরের কদম আলী মার্কেট এবং ১৭ নম্বর সেক্টরের উলুদহ মাঠ।

সিলেট ও খুলনা বিভাগের পার্কিং: উত্তরা ১৫ নম্বর সেক্টরের লেকপাড় মাঠ।

রাজশাহী, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগ: ১০ ও ১১ নম্বর ব্রিজের পশ্চিম পাশ, ১৬ নম্বর সেক্টর ও বউবাজার মাঠের ভেতর।

জিএমপি এলাকার ভেতরে বিভাগীয় পার্কিং:

ময়মনসিংহ ডিভিশন পার্কিং: চান্দনা উচ্চ বিদ্যালয়, চৌরাস্তা, গাজীপুর।

উত্তরবঙ্গ ও টাঙ্গাইল থেকে আসা গাড়িগুলো ভাওয়াল বদরে আলম কলেজ ও পূবাইল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে পার্কিং করবে।

সরকারি যানবাহন: টেলিফোন শিল্প সংস্থা (টেশিস) ও টঙ্গী সরকারি কলেজ মাঠ।

পার্কিং করা যানবাহনের চালক ও হেলপারদের অবশ্যই তাদের গাড়ির সঙ্গে থাকতে হবে। মুসল্লি ও চালক একে অপরের মোবাইল নম্বর রেখে দেবেন, যাতে যেকোনো জরুরি পরিস্থিতিতে একে অপরের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেন। চালকের মোবাইল নম্বর অবশ্যই গাড়ির সামনে দৃশ্যমান হতে হবে।

ডাইভারশন পয়েন্ট (শুধু সমাপনী মোনাজাতের দিন ৪ ও ১১ ফেব্রুয়ারি)

ধউর সেতু, ১৮ নম্বর সেক্টর পঞ্চবটি ক্রসিং, পদ্মা লুপ, ১২ নম্বর সেক্টর খালপাড়, মহাখালী ক্রসিং, হোটেল রেডিসন ব্লু ক্রসিং, ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক (বিশ্ব রোড নিকুঞ্জ-১ কাচ্চি গেইট), কুড়াতলী ফ্লাইওভার লুপ-২, মহাখালী ফ্লাইওভার পশ্চিম পাশ, মিরপুর দিয়াবাড়ি বাসস্ট্যান্ড ক্রসিং, আশুলিয়া বাজার ক্রসিং।

ইজতেমার দুই ধাপেই মান্নু গেট থেকে কামারপাড়া সড়ক বন্ধ থাকবে।

ভোগড়া বাইপাস থেকে আব্দুল্লাহপুর থেকে দ্বিমুখী ও মীরের বাজার থেকে স্টেশন রোড পর্যন্ত দ্বিমুখী সড়কে ৩ ফেব্রুয়ারি রাত ১০টা থেকে ৪ ফেব্রুয়ারি দুপুর ২টা এবং ১০ ফেব্রুয়ারি রাত ১০টা থেকে ১১ ফেব্রুয়ারি দুপুর ২টা পর্যন্ত যান চলাচল বন্ধ থাকবে।

বিশ্ব ইজতেমায় অংশগ্রহণকারী ভিভিআইপি/ভিআইপি/বিদেশি মুসল্লিদের বহনকারী যানবাহনগুলোকে বিএনএস টাওয়ার থেকে টঙ্গী ফ্লাইওভার ব্যবহার করে স্টেশন রোডে নেমে মান্নু গেইট, কামারপাড়া সড়ক হয়ে চলাচলের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

সমাপনী মোনাজাতের দিন ভোর ৪টা থেকে আব্দুল্লাহপুর, ধউর ব্রিজ মোড় পরিহার করে মহাখালী, বিজয় সরণী-গাবতলী হয়ে সব ধরনের বাস ও কাভার্ডভ্যানসহ ভারী যানবাহন চলাচল করবে।

মোনাজাতের দিন ট্রাফিক উত্তরা বিভাগের ব্যবস্থাপনায় পদ্মা লুপ ও কুড়াতলী লুপ-২ থেকে বিমানবন্দর পর্যন্ত বিদেশগামী পরিবহন সেবা দেওয়া হবে।

মোনাজাতের দিন ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের কাওলা/বিমানবন্দর বহির্গমন না করার জন্যও অনুরোধ করা হলো।

ট্র্যাফিক ম্যানেজমেন্ট সম্পর্কিত যেকোনো সহযোগিতার জন্য যাত্রীদের নিচের নম্বরগুলোতে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ: উপ-পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক-উত্তর)- ০১৩২০-০৪৩৯৪০, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক-উত্তর)- ০১৩২০-০৪৩৯৪১, সহকারী পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক-উত্তর-পূর্ব জোন)- ০১৩২০-০৪৩৯৫২, সহকারী পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক-নর্থ ওয়েস্ট জোন)- ০১৩২০-০৪৩৯৫৫, সহকারী পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক-এয়ারপোর্ট জোন)- ০১৩২০-০৪৩৯৫৮, পুলিশ পরিদর্শক (প্রশাসন)- ০১৩২০-০৪৩৯৭৩, টিআই (আব্দুল্লাহপুর)- ০১৩২০-০৪৩৯৬৮, টিআই (কামার পাড়া)- ০১৩২০-০৪৩৯৭১, টিআই (কামার পাড়া)- ০১৩২০-০৪৩৯৭১, টিআই (ধউর সেতু)- ০১৩২০-০৪৩৯৭০, টিআই (বিমানবন্দর)- ০১৩২০-০৪৩৯৬২, ট্রাফিক কন্ট্রোল রুম- ০১৭১১-০০০৯৯০।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ: অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক)- ০১৩২০-০৭০৯৯১, সহকারী পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক-উত্তর)- ০১৩২০-০৭১০০৪, সহকারী পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক-দক্ষিণ)- ০১৩২০-০৭১২৭৭, পুলিশ পরিদর্শক (নগর ও ট্রাফিক) (স্টেশন রোড)-০১৩২০-০৭১২৯১, ইজতেমা কন্ট্রোল রুম (হটলাইন)- ০১৩২০-০৭২৯৯৯, কন্ট্রোল রুম, জিএমপি-০১৩২০-০৭২৯৯৮, ট্রাফিক কন্ট্রোল রুম- ০১৩২০-০৭১২৯৮।

র‍্যাব: র‍্যাব-১ কন্ট্রোল রুম- ০১৭৭৭৭১০১৯৯, র‍্যাব সদরদপ্তর কন্ট্রোল রুম- ০১৭৭৭৭২০০২৯

প্রয়োজনে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ যোগাযোগ করা যাবে।

Comments

The Daily Star  | English

Elevated expressway to open to public only after curfew is lifted

The Dhaka Elevated Expressway will remain closed to public until the government lifts the curfew fully, the operating company said today

19m ago