বাংলাদেশ

১৭ দিন ধরে নিখোঁজ জেলের মরদেহ পাওয়া গেল মিয়ানমার সীমান্তে

গত ১ ফেব্রুয়ারি নাফ নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে নিখোঁজ হন মোস্তাফিজুর।
dead body
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলায় মিয়ানমার সীমান্তের খালে মাছ ধরতে গিয়ে ১৭ দিন ধরে নিখোঁজ এক জেলের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

মৃত মোস্তাফিজুর রহমান (৪৭) উখিয়ার পালংখালী ইউনিয়নের আঞ্জুমানপাড়ার বাসিন্দা ছিলেন।

পালংখালী ইউনিয়নের রহমতেরবিল এলাকায় মিয়ানমার সীমান্তে নাফ নদীর তীরে বেঁড়িবাধ থেকে রোববার রাতে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা( ওসি) মো. শামীম হোসেন দ্য ডেইলি স্টারকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

স্বজনদের দাবি, মিয়ানমারের বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান আর্মির সদস্যরা মোস্তাফিজুরকে অপহরণ করেছিল।

স্থানীয়দের বরাতে পুলিশ জানায়, গত ১ ফেব্রুয়ারি সকালে নাফ নদীতে মাছ ধরতে যায় মোস্তাফিজুরসহ কয়েকজন জেলে। সে সময় আরাকান আর্মির সদস্য সদস্যরা মোস্তাফিজুর রহমানকে অপহরণ করে।

বিষয়টি বিজিবিসহ সংশ্লিষ্টদের জানানোর পরও বিভিন্ন জায়গায় খোঁজখবর নিয়ে মোস্তাফিজের সন্ধান মেলেনি।

তার ছোট ভাই মো. আমির হোসেন ডেইলি স্টারকে বলেন, 'আমার ভাই অন্য জেলেদের সঙ্গে মাছ ধরতে গিয়েছিলেন। আরাকান আর্মি তাকে তুলে নিয়ে গেলে, বিষয়টি বিজিবি ও পুলিশসহ সংশ্লিষ্টদের জানানো হয়। অপহরণকারীরাও আমাদের সঙ্গে কোনো যোগাযোগ করেনি।'

রোববার সন্ধ্যার দিকে রহমতেরবিল সীমান্তে চিংড়ি ঘেরে কাজ করার সময় স্থানীয় এক জেলে নাফ নদীর বেঁড়িবাধে মোস্তাফিজুরকে মৃত অবস্থায় দেখতে পান। 

খবর পেয়ে রোববার রাত সাড়ে ১১টায় বিজিবির সহায়তায় মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

ওসি শামীম হোসেন বলেন, 'মোস্তাফিজুরের শরীরে আঘাতের কোনো চিহ্ন নেই। তবে তার পায়ে রশি বা শেকল জাতীয় কোনো কিছু দিয়ে বেঁধে রাখার চিহ্ন রয়েছে। কারা, কী কারণে তাকে অপহরণ করে হত্যা করেছে, তা নিশ্চিত নয়। ঘটনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।'

Comments