সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত বাবা, তাও পরীক্ষা বাদ দেয়নি তিন্নি

মোটরসাইকেলে পীরগাছা বাজার থেকে বাড়িতে ফেরার পথে দুর্ঘটনায় আহত হন রতন।
ছবি: সংগৃহীত

রংপুরের পীরগাছায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত বাবার মরদেহ বাড়িতে রেখে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে হুমায়রা আক্তার তিন্নি।

আজ মঙ্গলবার সকালে পীরগাছা জেএন সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশ নেয় রাজবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী তিন্নি।

তিন্নির বাবা আব্দুল ওহাব রতন পীরগাছা সদর ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পীরগাছা বাজারে পানের আড়তদার ছিলেন। 

সোমবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হন তিনি। তাৎক্ষণিকভাবে তাকে স্থানীয় পীরগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ভোর সাড়ে ৪টায় তার মৃত্যু হয়। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মোটরসাইকেলে পীরগাছা বাজার থেকে বাড়িতে ফেরার পথে দুর্ঘটনায় আহত হন রতন।

তিন্নির চাচা আবু হানিফ বিপ্লব দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'বাবার মৃত্যুর পর তিন্নি ভেঙে পড়লেও, স্বজনদের কথায় এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্রে পরীক্ষা দিতে যায়।'

কেন্দ্রসচিব নজরুল ইসলাম বলেন, 'তিন্নির বাবার মৃত্যুর বিষয়টি আমরা সকালেই জানতে পেরেছিলাম। সে সবার সঙ্গে বসে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। এক হাতে বারবার চোখ মুছছিল সে। আর অন্য হাতে পরীক্ষার খাতায় লিখেছে।'

পরীক্ষা শেষে তিন্নি জানায়, 'বাবা আমাকে অনেক ভালোবাসতেন। বাবা চাইতেন আমি যেন পড়ালেখা করে অনেক বড় হই। তাই আমি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছি। বাবার আত্মাকে আমি কষ্ট দিতে চাই না।'

পীরগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজমুল হক সুমন বলেন, 'বাবা হারানোর কষ্ট নিয়ে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে তিন্নি। কেন্দ্রসচিবকে জানানো হয়েছে।'

 

Comments

The Daily Star  | English

Avoid heat stroke amid heatwave: DGHS issues eight directives

The Directorate General of Health Services (DGHS) released an eight-point recommendation today to reduce the risk of heat stroke in the midst of the current mild to severe heatwave sweeping the country

50m ago