বাংলাদেশকে জানতে এসেছেন ৩৪ জাপানি শিক্ষক-শিক্ষার্থী

জাপানি শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা বাংলাদেশে জাপান ইন্টারন্যাশনাল ড্রিম স্কুল অ্যান্ড কলেজ এবং নারায়নকুল ড্রিম মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে মত বিনিময় করেন এবং শ্রেণি কার্যক্রম পরিদর্শন করেন।
জাপানি শিক্ষার্থীরা জাপান ইন্টারন্যাশনাল ড্রিম স্কুল অ্যান্ড কলেজ এবং নারায়নকুল ড্রিম মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে মত বিনিময় করেন এবং শ্রেণি কার্যক্রম পরিদর্শন করেন। ছবি: সংগৃহীত

গাজীপুরের পূবাইলে নারায়ণকুল ড্রিম মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজে এসেছেন ৩৪ জন জাপানি শিক্ষক ও শিক্ষার্থী।

আজ সোমবার সকাল থেকে তারা বাংলাদেশের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখবেন।

নারায়ণকুল ড্রিম মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রভাষক মো. লিমন হোসেন দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'জাপান-বাংলাদেশ এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রাম-২০২৪ এর আওতায় জাপানের ২৯ জন শিক্ষার্থী ও পাঁচ জন শিক্ষক গত ২২ মার্চ বাংলাদেশে এসেছেন এবং অন্যান্য কাজ শেষে গতকাল রোববার ড্রিম স্কুল অ্যান্ড কলেজে পৌঁছেছেন।'

বাংলাদেশি শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের সঙ্গে মত বিনিময় করছেন জাপান থেকে আসা শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। ছবি: সংগৃহীত

তিনি বলেন, 'বাংলাদেশ সম্পর্কে জানার জন্য তারা শিক্ষাসফরে এসেছেন। তারা আমাদের স্কুলেরই সিস্টার কনসার্ন স্কুলের শিক্ষার্থী ও শিক্ষক। আমাদের জাপানের সিস্টার কনসার্ন স্কুল ইকুবুনকান ড্রিম স্কুল, ইকুবুনকান গ্লোবাল স্কুল এবং ইকুবুনকান আইডি স্কুলের শিক্ষক ও শিক্ষার্থী তারা।'

এই জাপানি শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা বাংলাদেশে জাপান ইন্টারন্যাশনাল ড্রিম স্কুল অ্যান্ড কলেজ এবং নারায়নকুল ড্রিম মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে মত বিনিময় করেন এবং শ্রেণি কার্যক্রম পরিদর্শন করেন।

প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ জানায়, জাপানের ইকুবুনকান গ্লোবাল স্কুলের ভাইস প্রিন্সিপাল মি. ইওশিও কামাকুরা ঘোষণা দিয়েছেন যে ২০২৫ সাল থেকে জাপান ও বাংলাদেশ এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রামের আওতায় শিক্ষক ও শিক্ষার্থী বিনিময় করবে।

জাপান ইন্টারন্যাশনাল ড্রিম স্কুল অ্যান্ড কলেজ এবং নারায়ণকুল ড্রিম মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের উপাধ্যক্ষ আনিছুর রহমান দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'গত ২৯ ফেব্রুয়ারি আমাদের এই দুই প্রতিষ্ঠানের সাত শিক্ষার্থী জাপান গেছেন।'

বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে মত বিনিময় করেন জাপানি শিক্ষার্থীরা। ছবি: সংগৃহীত

তিনি বলেন, 'জাপানের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ইকুবুনকান ড্রিম স্কুলের অধীনে পূবাইলে নারায়ণকুল ড্রিম মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ এবং জাপান ইন্টারন্যাশনাল ড্রিম স্কুল অ্যান্ড কলেজ (ইংরেজি ভার্সন) পরিচালিত হয়। এই শিক্ষার্থীরা ইকুবুনকান ড্রিম স্কুলের চেয়ারম্যান মিকি ওয়াতানাবের ওয়াতামি গ্রুপে কাজের সুযোগ পেয়েছে। ওয়াতামি গ্রুপের ৭০০ রেস্তোরাঁ, ফুড প্রোডাকশন ও এগ্রিকালচার কোম্পানি রয়েছে।'

তিনি আরও বলেন, 'সাত শিক্ষার্থীর মধ্যে তিনজন যাবেন এগ্রিকালচার কোম্পানিতে ও চারজন যাবেন রেস্তোরাঁয়। কলেজ থেকে যোগ্যতার ভিত্তিতে সাক্ষাৎকারের মাধ্যমে তাদের জাপানে নেওয়ার জন্য সিলেকশন করা হয়েছে।'

Comments

The Daily Star  | English

NBR suspends Abdul Monem Group's import, export

It also instructs banks to freeze the Group's bank accounts

23m ago