কিছু প্রাণী শীতনিদ্রায় যায় কেন

শীতকালে কিছু প্রাণী শীতনিদ্রায় যায়। কারণ, এই সময়ে তাদের জন্য খাবার সংগ্রহ করা কঠিন হয়ে পড়ে। এই সময়টা তারা লম্বা ঘুমে কাটিয়ে দেয়। পরিবেশ অনুকূলে এলে তারা নিদ্রা ভেঙে খাবার সংগ্রহ করে।
খাবার সংগ্রহ কঠিন হয় বলে কিছু প্রাণী শীতনিদ্রায় কাটিয়ে দেয় শীতকাল। ছবি: ডিসকভারওয়াইল্ডলাইফ.কম

শীতকালে কিছু প্রাণী শীতনিদ্রায় যায়। কারণ, এই সময়ে তাদের জন্য খাবার সংগ্রহ করা কঠিন হয়ে পড়ে। এই সময়টা তারা লম্বা ঘুমে কাটিয়ে দেয়। পরিবেশ অনুকূলে এলে তারা নিদ্রা ভেঙে খাবার সংগ্রহ করে।

শীতনিদ্রায় যাওয়া প্রাণীদের মধ্যে ভাল্লুক অন্যতম। এ ছাড়া, জাম্পিং মাউস (ইঁদুর), লিটল ব্রাউন ব্যাট (বাদুড়) এবং কয়েক প্রজাতির কাঠবিড়ালিও আছে এই তালিকায়। শীতনিদ্রায় যাওয়া একমাত্র পাখি প্রজাতি পুওরউইল। এদের বাস উত্তর আমেরিকায়।

ধারণা করা হয়, শীতনিদ্রায় যাওয়া প্রাণীদের রক্তে এইচআইটি (হাইবারনেশন ইনডাকশন ট্রিগার) নামের একটি উপাদান থাকে। এই উপাদান তাদেরকে শীতনিদ্রার প্রস্তুতি নিতে আগাম সতর্কতা দেয়। দিনের দৈর্ঘ্য ছোট হওয়া, খাবার সরবরাহ ব্যবস্থা ঠিক না থাকা এবং তাপমাত্রা কমে যাওয়া এইচআইটিকে প্রভাবিত করে।

এর সবই অবশ্য বিজ্ঞানীদের ধারণা। ঠিক কোন প্রক্রিয়ায় একটি প্রাণী শীতনিদ্রায় যায়, সেটি এখনো রহস্য।

শীতনিদ্রায় যাওয়া প্রাণীরা শরৎকালে প্রচুর খাবার গ্রহণ করে শরীরে পর্যাপ্ত চর্বি জমা করে। এসব চর্বি তাদের শরীরকে উষ্ণ রাখার পাশাপাশি শক্তি যোগায়। কিছু প্রাণী তাদের গুহায় খাবার জমা করে রাখে, যেন শীতনিদ্রা চলাকালীন ঘুম ভাঙলে তারা খেতে পারে।

শীতনিদ্রায় এসব প্রাণীর শরীরে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন হয়। এ সময়ে তাদের শরীরের তাপমাত্রা, শ্বাস-প্রশ্বাস ও হৃৎস্পন্দন অনেক কমে যায়। অনেক সময় শ্বাস-প্রশ্বাস ও হৃৎস্পন্দন এতটাই কমে যায় যে আপাতদৃষ্টিতে তাকে মৃত বলে মনে হয়।

Comments

The Daily Star  | English
bailey road fire

Bailey Road fire: 39 of 45 victims identified, 33 bodies handed over to families

The bodies of 39 people, out of 45 who were killed in last night’s Bailey Road fire have been identified

2h ago