যুদ্ধের পর ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষকে গাজার নিয়ন্ত্রণভার দিতে নেতানিয়াহুর অস্বীকার

‘ইসরায়েলের প্রথম অগ্রাধিকার হলো হামাসকে ধ্বংস করা। একবার সেটি করা গেলে সন্ত্রাসবাদের পুনরুত্থান এড়াতে সেখানে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনীর এক ধরনের নিয়ন্ত্রণ বজায় রাখতে হবে।’
ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। ছবি: রয়টার্স

ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ (পিএ) গাজাকে 'নিরস্ত্রীকরণ' করতে ও সেখানকার 'উগ্রবাদ' নির্মূলে ব্যর্থ হয়েছে উল্লেখ করে যুদ্ধের পর এর নিয়ন্ত্রণ হস্তান্তরে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু।

আজ রোববার সিএনএনের ডানা বাসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেন তিনি।

নেতানিয়াহু বলেন, 'ইসরায়েলের প্রথম অগ্রাধিকার হলো হামাসকে ধ্বংস করা। একবার সেটি করা গেলে সন্ত্রাসবাদের পুনরুত্থান এড়াতে সেখানে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনীর এক ধরনের নিয়ন্ত্রণ বজায় রাখতে হবে।'

'একটি বেসামরিক কর্তৃপক্ষকে দুটি লক্ষ্যে সহযোগিতা করতে হবে, একটি হলো গাজাকে নিরস্ত্রীকরণ করা এবং দ্বিতীয়টি হলো সেখানকার উগ্রবাদ নির্মূল করা', যোগ করেন তিনি।

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'দুর্ভাগ্যক্রমে উভয় ক্ষেত্রেই ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ ব্যর্থ হয়েছে।'

'একই খরগোশের গর্তে' পড়া এড়াতে তিনি 'বেসামরিক কর্তৃপক্ষ' পুনর্গঠনেরও ইঙ্গিত দিয়েছেন।

নেতানিয়াহু বলেন, 'গাজাকে একটি ভালো ভবিষ্যৎ দিতে হবে, আমরা এটিকে ব্যর্থ অতীতে না নিয়ে যাই। আসুন সেখানে একটি ভিন্ন বাস্তবতা তৈরি করি।'

এদিকে, গত ৭ অক্টোবর হামাসের হামলা ঠেকাতে ব্যর্থতার দায়ভার নেবেন কি না, এমন এক প্রশ্নের উত্তর দিতেও অস্বীকৃতি জানিয়েছেন তিনি।

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'যুদ্ধ শেষে এ ধরনের কঠিন প্রশ্নের জন্য সময় থাকবে।'

'আসুন বিজয়ের দিকে মনোনিবেশ করি, এখন এটিই আমার একমাত্র দায়িত্ব', বলেন তিনি।

 

Comments