‘দাবি মেনে নিন, নইলে বিচারের মুখোমুখি হতে হবে’

অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের লক্ষ্যে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ৭ দফা দাবি মেনে নিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন নবগঠিত বিরোধী জোট জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন।
Chottagram rally
২৭ অক্টোবর ২০১৮, বন্দরনগরী চট্টগ্রামের কাজীর দেউড়িতে বিএনপির দলীয় কার্যালয় নসিমন ভবনের সামনের নূর আহমদ সড়কে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের দ্বিতীয় রাজনৈতিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। ছবি: রাজীব রায়হান

অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের লক্ষ্যে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ৭ দফা দাবি মেনে নিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন নবগঠিত বিরোধী জোট জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন।

সরকারকে হুঁশিয়ার করে তিনি বলেন, ‘‘আমাদের ৭ দফা দাবি মেনে নিন। না হলে ভবিষ্যতে বিচারের মুখোমুখি হতে হবে।’’

বন্দরনগরী চট্টগ্রামের কাজীর দেউড়িতে বিএনপির দলীয় কার্যালয় নসিমন ভবনের সামনের নূর আহমদ সড়কে আজ (২৭ অক্টোবর) বিকেলে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের দ্বিতীয় রাজনৈতিক সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় ড. কামাল বলেন, ‘‘জনগণ হচ্ছে দেশের মালিক। কিন্তু তাদেরকেই আজ বঞ্চিত করে রাখা হয়েছে। জনগণকে যারা কষ্ট দিচ্ছে, আমরা তাদের বিচার করবো।’’

খালেদা জিয়ার মুক্তি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘‘খালেদা জিয়ার মুক্তি চাওয়ার বিষয় নয়, হওয়ার বিষয়। তাকে বন্দি করা হয়েছে। তার কারাবন্দিত্বের প্রতি ঘণ্টার জন্য সরকারকে জবাবদিহি করতে হবে। এর পেছনে দায়ীদের বিচারের আওতায় আনা হবে।’’

এর আগে সমাবেশে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘‘আমরা অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছি। আমাদের অনেক নেতা-কর্মী গুম, খুনের স্বীকার হয়েছেন। আমরা অন্যায়ের কাছে মাথা নত করব না। এই ৭ দফা দাবি বাস্তবায়ন না করে ঘরে ফিরবে না জাতীয় ঐক্য।’’

তিনি বলেন, ‘‘গায়ের জোরে, বন্দুক ঠেকিয়ে কেউ ক্ষমতায় টিকে থাকতে পারেনি। এখনও পারবে না।’’ সরকারকে উদ্দেশ্য করে ফখরুল বলেন, ‘‘ইতিহাস থেকে শিক্ষা নিন।’’

সম্প্রতি সাজাপ্রাপ্ত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘‘তারেক রহমান অবিলম্বে দেশে ফিরে আসবেন। মামলা দিয়ে কোনো লাভ হবে না।’’

সমাবেশে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আবদুর রব বলেন, ‘‘খালেদাকে যারা মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছেন, তাদের ক্ষমা নেই।’’

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী প্রসঙ্গ টেনে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, ‘‘জাফরুল্লাহ যুদ্ধের ময়দান থেকেই মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসা দিয়ে আসছেন। তাকে নানাভাবে হয়রানি করা হচ্ছে।’’

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেনের সভাপতিত্বে এ জনসভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, মঈন খান, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান ও ঐক্যফ্রন্টের নেতা সুলতান মো. মনসুরসহ কেন্দ্রীয় নেতারা বক্তব্য রাখেন।

আরও পড়ুন:

‘শর্তে কোণঠাসা ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশ’

Comments

The Daily Star  | English

Confiscate ex-IGP Benazir’s 119 more properties: court

A Dhaka court today ordered the authorities concerned to confiscate assets which former IGP Benazir Ahmed and his family members bought through 119 deeds

26m ago