কিউরেটররা ভিন্ন কিছু করার চেষ্টা করছেন: সাকিব

উইকেট কেমন হবে? চট্টগ্রাম মাঠের সহকারী কিউরেটর জাহিদ রেজা বাবুকে জিজ্ঞেস করতেই রহস্য করে বললেন, ‘রান হবে, প্রচুর রান’। কিন্তু তার হাসিই যেন বোঝাচ্ছিল ‘রান পেতে খাটতে হবে, প্রচুর খাটুনি।’ তা রান হয়েছিল বটে এই ভেন্যুর ঠিক আগের টেস্টেই। এতই বেশি রান যে শেষ পর্যন্ত ‘ অতি প্রাণহীন’ তকমায় ডিমেরিট যুক্ত হয়েছিল জহুর আহমেদ চৌধুরীর স্টেডিয়ামের গায়ে। সেবার প্রতিপক্ষ ছিল শ্রীলঙ্কা, এবার ওয়েস্ট ইন্ডিজ। প্রতিপক্ষ, পরিস্থিতি, ডিমেরিটের ইতিহাস মাথায় নিলে এবার যে ভিন্ন কিছুই হতে যাচ্ছে আঁচ করেছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসানও।
CTG wicket
জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের উইকেট নেড়েচেড়ে দেখছেন নির্বাচক হাবিবুল বাশার, পাশে দাঁড়িয়ে অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। ছবি: ফিরোজ আহমেদ

উইকেট কেমন হবে? চট্টগ্রাম মাঠের সহকারী কিউরেটর জাহিদ রেজা বাবুকে জিজ্ঞেস করতেই রহস্য করে বললেন, ‘রান হবে, প্রচুর রান’। কিন্তু তার হাসিই যেন বোঝাচ্ছিল ‘রান পেতে খাটতে হবে, প্রচুর খাটুনি।’ তা রান হয়েছিল বটে এই ভেন্যুর ঠিক আগের টেস্টেই। এতই বেশি রান যে শেষ পর্যন্ত ‘ অতি প্রাণহীন’ তকমায় ডিমেরিট যুক্ত হয়েছিল জহুর আহমেদ চৌধুরীর স্টেডিয়ামের গায়ে।  সেবার প্রতিপক্ষ ছিল শ্রীলঙ্কা, এবার ওয়েস্ট ইন্ডিজ। প্রতিপক্ষ, পরিস্থিতি, ডিমেরিটের ইতিহাস মাথায় নিলে এবার যে ভিন্ন কিছুই হতে যাচ্ছে আঁচ করেছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসানও।

গেল জানুয়ারিতে শ্রীলঙ্কাকে বাংলাদেশ পাঁচশো ছাড়ানো ইনিংস দেওয়ার পর লঙ্কানরা ছাড়িয়ে গিয়েছিল সাতশো। বোলারদের জন্য মাথা খুটে মরা উইকেটে দুদলের তিন ইনিংস চলতে চলতেই কেটে গেছে পুরো পাঁচদিন। ডিমেরিট পয়েন্ট খাওয়ার জন্য তো আর কিছু লাগে না।

বুধবার সকালে অনুশীলনে এসেই উইকেট দেখতে গেল দুদলই। বাংলাদেশের কোচ, অধিনায়ক, নির্বাচক সবাই নেড়েচেড়ে দেখলেন ২২ গজ। উইকেট নিয়ে ক্যারিবিয়ান শ্যানন গ্যাব্রিয়েল, কেমার রোচদের গবেষণায় যোগ দিলেন আরেক ক্যারিবিয়ান বাংলাদেশ দলের পেস বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ। তিন স্বদেশী মিলে বেশ হাসিঠাট্টাও হলো। ভাবসাব দেখে মনে হয় উইকেট দেখে যা বোঝার বুঝে গেছে দুদল।

উইকেট নিয়ে গবেষণার ফলাফলটা তবে কি? সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ অধিনায়ক দিলেন কিছুটা ইঙ্গিত,  ‘আমার মনে হয় কিউরেটররা ভিন্ন কিছু করার চেষ্টা করছেন। উইকেট নিয়ে আসলে খুব বেশি কথা বলার নেই। দুই দলের সমান সুযোগ থাকবে। আমার কাছে দেখে  মনে হচ্ছে উইকেটে বল ঘুরতে পারে।’

উইকেটের হাবভাব আগে থেকে ধারণা করে নেমেও বিপদে পড়ার ঘটনা আছে। কখনো কখনো শুরুতে ঘুরতে থাকা উইকেট পরে ব্যাটিংয়ের জন্যও ভালো হয়ে গিয়েছে। তাও মাথায় রাখছেন সাকিব, ‘আসলে দেখে খুব একটা অনুমান করা যায় না। যতদিন যায় অনেক সময় আস্তে আস্তে আরও ভালো হতে থাকে উইকেট। আশা করি তেমন কিছু হবে না। ভালো একটা টেস্ট ম্যাচ খেলার জন্য যেমন উইকেট দরকার তেমন উইকেটই হবে।’

উপমহাদেশের দল শ্রীলঙ্কা বলে এখানকার আগের টেস্টে টার্নিং উইকেটের দিকে যায়নি বাংলাদেশ। এবার প্রতিপক্ষ যেহেতু ওয়েস্ট ইন্ডিজ, বাংলাদেশের চাওয়াও তাই বদলেছে। হয়ত সেই চাওয়াই পূরণ হতে যাচ্ছে।  সাকিব যেমন বুঝেছেন, ‘হাইস্কোরিং ম্যাচ নাও হতে পারে।’

Comments

The Daily Star  | English

Thousands pray for rain as Bangladesh sizzles in heatwave

Thousands of Bangladeshis yesterday gathered to pray for rain in the middle of an extreme heatwave that prompted authorities to shut down schools around the country

20m ago