বিএনপির গুলশান কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ের সামনে দ্বিতীয় দিনের মতো বিক্ষোভ করছেন দলের বিক্ষুব্ধ নেতাদের সমর্থকরা।
bnp
৯ ডিসেম্বর ২০১৮, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ের সামনে দ্বিতীয় দিনের মতো বিক্ষোভ করছেন দলের বিক্ষুব্ধ নেতাদের সমর্থকরা। সেসময় তারা দলীয় মনোনয়নবঞ্চিত নেতাদের পক্ষে এবং মনোনয়ন সংক্রান্ত দলের বিভিন্ন সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে স্লোগান দেন। ছবি: আরমান হোসেন/ স্টার

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ের সামনে দ্বিতীয় দিনের মতো বিক্ষোভ করছেন দলের বিক্ষুব্ধ নেতাদের সমর্থকরা।

আজ (৯ ডিসেম্বর) দলের মনোনয়নবঞ্চিত নেতাদের ২০০ জনের মতো সমর্থক বিএনপি চেয়ারপারসেনের গুলশান কার্যালয়ের সামনে সমবেত হয়ে নিজ নিজ নেতার পক্ষে স্লোগান দিতে থাকেন।

ঘটনাস্থল থেকে আমাদের সংবাদদাতা জানান, মুন্সীগঞ্জ-১ আসনের বিএনপির মনোনয়নবঞ্চিত শেখ আব্দুল্লাহ এবং কুমিল্লা-৪ আসনের মঞ্জুরুল আহসান মুন্সিকেও বিক্ষোভে অংশ নিতে দেখা গেছে।

তিনি আরও জানান, বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা ‘অবৈধ মনোনয়ন মানি না’ বলে স্লোগান দিচ্ছিলেন।

উল্লেখ্য, গতকাল মধ্যরাতে গুলশান কার্যালয় থেকে বের হয়ে যাওয়ার সময় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুলকে পথে আটকে দিয়েছিলেন মনোনয়নবঞ্চিতদের বিক্ষুব্ধ সমর্থকেরা। সেসময় তারা বিভিন্ন স্লোগান দেন। একপর্যায়ে দলের জ্যেষ্ঠ নেতাদের হস্তক্ষেপে ফখরুলের পথ ছেড়ে দেন বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা। জানা যায়, মনোনয়নবঞ্চিত সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী এহছানুল হক মিলনের অনুসারীরা ফখরুলের পথ আটকে তাকে চারপাশ থেকে ঘিরে রাখেন।

Gulshan bnp
বিএনপির মনোনয়নবঞ্চিত বিক্ষুব্ধ নেতাদের সমর্থকদের ছোড়া ইটের আঘাতে কার্যালয়ের জানালার কাচ ভেঙে যায় বলে অনেকে অভিযোগ করেন। ছবি: আনিসুর রহমান

সন্ধ্যায় মনোনয়নবঞ্চিত এহছানুল হক মিলন, তৈমুর আলম খন্দকার ও সেলিমুজ্জামান সেলিমের অনুসারী-কর্মী-সমর্থকেরা গুলশান কার্যালয়ে বিক্ষোভ করে ভাঙচুর করেন। তারা কার্যালয়ের প্রধান ফটকে লাথি মারেন, ধাক্কা দেন এবং ইটপাটকেল ছুড়ে বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকেন। তাদের ছোড়া ইটের আঘাতে কার্যালয়ের জানালার কাচ ভেঙে যায়। অনেকেই ফটকের সামনে শুয়ে বিক্ষোভ করছেন।

এর আগে, দুপুরে মিলনের সমর্থকেরা বিএনপির নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দেন। আগামী ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মিলনকে বিএনপির পক্ষ থেকে মিলনকে মনোনয়ন না দেওয়ায় বিক্ষুব্ধ কর্মীরা দলীয় সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে স্লোগন দেন।

এক পর্যায়ে তারা দুপুর ১টার দিকে দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রিজভী আহমেদকে কার্যালয়ের ভেতরে রেখে প্রধান ফটকে তালা লাগিয়ে দেন।

চাঁদপুর-১ আসনে মিলনের পরিবর্তে মোহাম্মদ মোশাররফ হোসেনকে মনোনয়ন দেওয়ায় তারা এর প্রতিবাদ করেন। সেসময় রিজভী দ্য ডেইলি স্টারকে বলেছিলেন, “এ বিষয়ে দল সিদ্ধান্ত নিবে।”

Comments

The Daily Star  | English

NBR suspends Abdul Monem Group's import, export

It also instructs banks to freeze the Group's bank accounts

2h ago