ভক্তের সঙ্গে মেসির এমন আচরণ!

সামনে দাঁড়িয়ে কোন ভক্ত অনুরোধ করবেন, আর তার দিকে একবার ফিরেও তাকাবেন না! আর তাও যদি হয় লিওনেল মেসির মতো মানুষ। অনেকটা বিস্ময়করই। কারণ প্রতিপক্ষের সঙ্গেও তার উদারতা অনেকবারই দেখেছে ফুটবল বিশ্ব। কিন্তু ব্যাপারটা যদি হয় আবেগের জায়গায়, তাহলে মেসিরাও বদলে যান।
ছবি: সংগ্রহীত

সামনে দাঁড়িয়ে কোন ভক্ত অনুরোধ করবেন, আর তার দিকে একবার ফিরেও তাকাবেন না! আর তাও যদি হয় লিওনেল মেসির মতো মানুষ। অনেকটা বিস্ময়করই। কারণ প্রতিপক্ষের সঙ্গেও তার উদারতা অনেকবারই দেখেছে ফুটবল বিশ্ব। কিন্তু ব্যাপারটা যদি হয় আবেগের জায়গায়, তাহলে মেসিরাও বদলে যান।

ঘটনাটি ঘটে বড়দিনের ছুটিতে, তাও আবার নিজের দেশ আর্জেন্টিনায়। দেশে ফেরার পথে বিমানবন্দরে উপস্থিত ভক্তদের অটোগ্রাফ দেন মেসি। অনেকের সঙ্গে ছবি তোলার আবদারও মেটান। কিন্তু সবার সামনে দাঁড়িয়ে এক নারী একটি জার্সিতে অটোগ্রাফ চাইছিলেন। বারবার অনুরোধ করছিলেন। কিন্তু তার দিকে ফিরেও তাকালেন না মেসি। গত কয়েক দিন ধরেই ইন্টারনেটে এ ভিডিওটি বেশ ভাইরাল।

মূল সমস্যা ছিল সে নারীর জার্সিতে। কারণ রোজারিওর জার্সিতে সাক্ষর চেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু নিওয়েল ওল্ড বয়েজের পার ভক্ত মেসি তার দিকে তাকাবেন কেন? কারণ নগর প্রতিদ্বন্দ্বী রোজারিওর সঙ্গে যে তাদের নাড়ির শত্রুতা। বুয়েন্স এয়ার্সের বাইরে এ দুই দলের ম্যাচই সবচেয়ে বেশি প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ।

ওল্ড বয়েজের হয়ে ফুটবল ক্যারিয়ার শুরু করেন মেসি। ২০০১ সালে বার্সেলোনায় যোগ দেওয়ার আগে এ ক্লাবে কাটিয়েছেন ছয় বছর। আর নিজের শৈশবের ক্লাব ওল্ড বয়েজ বলতে মেসি কতটা অন্ধ তা জানা যায় তার পুরনো সাক্ষাৎকারে। এর আগে অনেক বারই বলেছেন বার্সেলোনা ছেড়ে যদি অন্য কোন ক্লাবে যান তাহলে সেটা হবে এই ওল্ড বয়েজ।

যদি মেসিকে রিয়াল মাদ্রিদের কোন জার্সিতে সাক্ষর করতে বলা হয় তাহলে তিনি এটা কি করবেন? কখনোই না। এমনই রিয়ালের কোন খেলোয়াড়কে বার্সেলোনা কিংবা অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের জার্সিতে সাক্ষর করতে বললে তারাও তা ফিরিয়ে দিবেন। অথচ সেই নারী কি দুঃসাধ্য সাধন করার চেষ্টাই না করেছিলেন।

Comments

The Daily Star  | English
Qatar emir’s visit to Bangladesh

Qatari Emir Al Thani arrives in Dhaka for a 2-day visit

Qatari Emir Sheikh Tamim Bin Hamad Al Thani arrived in Dhaka for a two-day visit today afternoon

31m ago