সাইকেল নিয়ে আফ্রিকার সর্বোচ্চ শৃঙ্গে বাঙালি

বাইসাইকেল চালিয়ে আফ্রিকার সর্বোচ্চ পর্বত শৃঙ্গ জয় করেছেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বাসিন্দা উজ্জ্বল পাল এমন খবর দিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম। বলা হয়- প্রথম ভারতীয় হিসেবে তিনি ‘সাইকেলে চড়ে চাঁদের পাহাড়ের চূড়ায়’ উঠলেন।
Ujjal Pal
কিলিমাঞ্জারোর কোলে উজ্জ্বল পালের সেলফি। ছবি: সংগৃহীত

বাইসাইকেল চালিয়ে আফ্রিকার সর্বোচ্চ পর্বত শৃঙ্গ জয় করেছেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বাসিন্দা উজ্জ্বল পাল এমন খবর দিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম। বলা হয়- প্রথম ভারতীয় হিসেবে তিনি ‘সাইকেলে চড়ে চাঁদের পাহাড়ের চূড়ায়’ উঠলেন।

একজন বিদেশি সংস্থারকর্মী উজ্জ্বল মূলত পরিবেশকর্মী হিসেবে বেশি পরিচিত।

এর আগে তিনি ভারতের বিভিন্ন অংশের পাশাপাশি পরিবেশ রক্ষার সচেতনতামূলক প্রচারে ঘুরে বেড়িয়েছিলেন বাংলাদেশের অলিগলিও।

বীরভূমের এই বাসিন্দা গত ২৫ জানুয়ারি দুপুরে পর্বত শৃঙ্গের খুব কাছে পৌঁছে একটি ভিডিও বার্তা দিয়েছিলেন। সেই বার্তার পর সবাই তার পর্বত জয়ের দিকে নজর রাখতে শুরু করেন।

তার ফেসবুক পেজে দেওয়া এক বার্তায় পরে তিনি জানান, ভারতের ৭০তম প্রজাতন্ত্র দিবসের মাহেন্দ্রক্ষণে বাঙালি হিসেবে এই প্রথম কিলিমাঞ্জারো পর্বতের চূড়ায় পৌঁছে যান।

বিভিন্ন তথ্য থেকে জানা যায়, কিলিমাঞ্জারো আফ্রিকার সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ। এটি উত্তর-পূর্ব তানজানিয়া ও কেনিয়ার সীমান্তে অবস্থিত। এটি মূলত একটি মৃত আগ্নেয়গিরি।

এর দুইটি শৃঙ্গ ১১ কিমি দূরত্বে অবস্থিত এবং একটি খাড়া ঢালের মাধ্যমে যুক্ত। উচ্চতর শৃঙ্গটির নাম কিবো এবং এটি সমুদ্র সমতল থেকে ৫,৮৯৫ মিটার উঁচুতে অবস্থিত।

মাওয়াসি নামের অপর শৃঙ্গটি ৫,১৪৯ মিটার উঁচুতে অবস্থিত। যদিও কিলিমাঞ্জারো বিষুবরেখার মাত্র ৩ ডিগ্রী দক্ষিণ অক্ষাংশে অবস্থিত, কিবোর জ্বালামুখ সর্বদাই বরফে আবৃত থাকে। মার্কিন লেখক আর্নেস্ট হেমিংওয়ে বিখ্যাত গল্প ‘দ্য স্নোজ অফ কিলিমাঞ্জারো’ (১৯৩৮) এই অঞ্চলের পটভূমিতে রচিত হয়েছে। কিলিমাঞ্জারোর খাড়া ঢালে বেশ কয়েকটি ভিন্ন প্রকৃতির উদ্ভিজ্জ অঞ্চল আছে।

ঢালের নিম্ন অংশে কফি ও প্ল্যান্টেন চাষ করা হয়। ১৮৮৯ সালে জার্মান ভূবিজ্ঞানী হান্স মেয়ার এবং অস্ট্রীয় পর্বতারোহী লুডভিগ পুর্টশেলার প্রথম পর্বতটির শীর্ষে আরোহণে সক্ষম হন।

উজ্জ্বল পালের এই শৃঙ্গ জয়ের খবরে উচ্ছ্বসিত গোটা পশ্চিমবঙ্গ। খুশি তার পরিবারের সদস্যরাও। উজ্জ্বল পালের বাবা শক্তিধর পাল জানান, “ছোটবেলা থেকেই গাছপ্রেমি উজ্জ্বল। পরিবেশ যাতে দূষিত না হয় তার জন্য বাইসাইকেলেই চড়েন সব সময়।”

গত কয়েক বছরের ২২ হাজার কিলোমিটার শুধু সাইকেলে ঘুরে বেড়েছে উজ্জ্বল। পাহাড়ে উঠতে সে ট্র্যাকিংও শিখেছে। আজ সে আমাদের সবার মুখ উজ্জ্বল করলো।”

তবে সাইকেল নিয়েই উজ্জ্বল পাল পর্বতের চূড়ায় উঠতে পেরেছিলেন কী না তা তার কাছ থেকে জানা যায়নি।

Comments

The Daily Star  | English

Anontex Loans: Janata in deep trouble as BB digs up scams

Bangladesh Bank has ordered Janata Bank to cancel the Tk 3,359 crore interest waiver facility the lender had allowed to AnonTex Group, after an audit found forgeries and scams involving the loans.

6h ago