ইন্দোনেশিয়ায় পাচার হওয়া ১৯৩ জন বাংলাদেশি উদ্ধার

ইন্দোনেশিয়ায় একটি তালাবদ্ধ দোকান থেকে ১৯৩ জনকে উদ্ধার করেছে দেশটির পুলিশ। উদ্ধার হওয়া সবাই বাংলাদেশের নাগরিক। মালয়েশিয়া নিয়ে যাওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে এদের পাচার করা হয়েছিল বলে জানিয়েছে দেশটির ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ।
উদ্ধার হওয়া বাংলাদেশিদের একটি ইমিগ্রেশন ডিটেনশন সেন্টারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ছবি: রয়টার্স

ইন্দোনেশিয়ায় একটি তালাবদ্ধ দোকান থেকে ১৯৩ জনকে উদ্ধার করেছে দেশটির পুলিশ। উদ্ধার হওয়া সবাই বাংলাদেশের নাগরিক। মালয়েশিয়া নিয়ে যাওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে এদের পাচার করা হয়েছিল বলে জানিয়েছে দেশটির ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ।

উত্তর সুমাত্রার ইমিগ্রেশন প্রধান রয়টার্সকে বলেন, কাজের জন্য মালয়েশিয়ায় নিয়ে যাওয়ার কথা বলে টুরিস্ট ভিসায় এই লোকগুলোকে বালি ও ইয়োগাকার্তা শহর দিয়ে ইন্দোনেশিয়ায় আনা হয়। সুমাত্রা দ্বীপের মেদান শহরে একটি দোকানে তালাবদ্ধ করে রাখা হয়েছিল এদের। উদ্ধার বাংলাদেশিদের প্রলোভন দেখানো হয়েছিল উল্লেখ করে ফেরি মোনাং সিহিত নামের ওই কর্মকর্তা বলেন, “তারা মানব পাচারের শিকার হয়েছেন।”

তবে দেশটির কর্মকর্তারা জানান, উদ্ধার হওয়ার সময় সবাইকে সুস্থ অবস্থায় পাওয়া গেছে। তাদেরকে একটি ইমিগ্রেশন ডিটেনশন সেন্টারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে যেখান থেকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হবে।

উদ্ধার হওয়াদের মধ্যে ৩৯ বছর বয়সী মাহবুব নামের একজন স্থানীয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল ট্রিবিউন মেদানকে বলেন, তাদের মধ্যে কয়েকজনকে পাচারকারীরা তিন মাস ধরে আটকে রেখেছিলেন। “আমাদের সবাইকে ধোঁকা দেওয়া হয়েছে। আমাদের মালয়েশিয়া নিয়ে যাওয়ার কথা ছিল। বাসে চড়ে চার দিনে আমরা বালি এসে পৌঁছেছি।”

তবে রয়টার্স সরাসরি উদ্ধার হওয়া বাংলাদেশি বা পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেনি।

গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, ভবনের ভেতর থেকে রহস্যময় শব্দ শুনতে পেয়ে স্থানীয় লোকজন প্রথমে পুলিশে খবর দিয়েছিল।

তবে তারা রোহিঙ্গা শরণার্থী নয় বলে নিশ্চিত করেছে দেশটির ইমিগ্রেশন সূত্র।

Comments

The Daily Star  | English

Avoid heat stroke amid heatwave: DGHS issues eight directives

The Directorate General of Health Services (DGHS) released an eight-point recommendation today to reduce the risk of heat stroke in the midst of the current mild to severe heatwave sweeping the country

56m ago