টি-টোয়েন্টি চ্যাম্পিয়ন শেখ জামালকে হারিয়ে উত্তরার চমক

কদিন আগেই প্রিমিয়ার ডিভিশন টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। কিন্তু ওয়ানডে টুর্নামেন্টের শুরুতেই হোঁচট খেয়েছে দলটি। তাও আবার প্রথম বিভাগ থেকে উঠে আসা উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাবের কাছে। চ্যাম্পিয়নদের ৯ রানে হারিয়ে লিগে শুভ সূচনা করে নবাগত দলটি।

কদিন আগেই প্রিমিয়ার ডিভিশন টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। কিন্তু ওয়ানডে টুর্নামেন্টের শুরুতেই হোঁচট খেয়েছে দলটি। তাও আবার প্রথম বিভাগ থেকে উঠে আসা উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাবের কাছে। চ্যাম্পিয়নদের ৯ রানে হারিয়ে লিগে শুভ সূচনা করে নবাগত দলটি।

শেখ জামালকে ২৫০ রানের বড় লক্ষ্যই ছুঁড়ে দিয়েছিল উত্তরা। লক্ষ্য তাড়ায় শুরুটা ভালো হয়নি জামালের। দলীয় ৩৫ রানেই দুই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে দলটি। তবে তৃতীয় উইকেটে ফারদীন হাসানের সঙ্গে দলের হাল ধরেন নাসির হোসেন। গড়েন ৫৩ রানের জুটি। এরপর ফারদীন আউট হলে অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহানের সঙ্গে ৬১ রানের আরও একটি জুটি গড়েন নাসির।

এরপর স্কোরবোর্ডে ৭ রান যোগ করতেই দুই উইকেট হারিয়ে আবার চাপে পড়ে দলটি। তবে এক প্রান্ত আগলে রেখে শেখ জামালের স্বপ্ন ধরে রাখেন সোহান। জিয়াউর রহমানের সঙ্গে ৪৭ রানের জুটিও গড়েন। কিন্তু এরপর সোহান আউট হয়ে গেলে বড় চাপে পড়ে যায় দলটি। শেষ দিকে ইলিয়াস সানি আর কোনো ব্যাটসম্যান দায়িত্ব নিতে না পারলে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ২৪০ রানের বেশি করতে পারেনি দলটি।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৬৫ রানের ইনিংস খেলেন সোহান। ৬৫ বলে সমান ৩টি করে চার ও ছক্কায় এ রান করেন তিনি। এছাড়া নাসির ৪৮ ও ফারদীন ৩৯ রান করেন। উত্তরার পক্ষে ৪৪ রানের খরচায় ৩টি উইকেট নিয়েছেন আব্দুর রশিদ। ৩টি উইকেট নিয়েছেন আসাদুজ্জামান পায়েলও। এছাড়া ২টি উইকেট নেন নাহিদ হাসান।

এর আগে টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে দুর্দান্ত সূচনা পায় উত্তরা। দুই ওপেনার তানজিদ হাসান ও আনিসুল ইসলাম ইমনের ব্যাটে ১১৩ রানের ওপেনিং জুটি পায় দলটি। এরপর দ্রুত এ দুই ব্যাটসম্যান আউট হয়ে গেলে চতুর্থ উইকেটে মিনহাজ খানকে নিয়ে ৭৩ রানের জুটি গড়েন সজীব হোসেন। ফলে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৪ উইকেটে ২৪৯ রানের বড় সংগ্রহই পায় দলটি।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৬৪ রানের ইনিংস খেলেন তানজিদ। ৭৫ বলে ২টি চার ও ৪টি ছক্কায় এ রান করেন তিনি। ৮৩ বলে ৪টি চারে ৬১ রান করে শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থাকেন সজীব। এছাড়া ইমন ৪৭ ও মিনহাজ ৩৮ রান করেন। শেখ জামালের পক্ষে ২২ রানের খরচায় ২টি উইকেট নেন তানবির হায়দার।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাব: ৫০ ওভারে ২৪৯/৪ (তানজিদ ৬৪, ইমন ৪৭, সজীব ৬১*, রাজা ১৮, মিনহাজ ৩৮, মহিমেনুল ১৪*; শাকিল ১/৪৪, শহিদুল ১/৪৭, নাসির ০/৩১, আফ্রিদি ০/৫৪, ইলিয়াস ০/৫০, তানবির ২/২২)।

শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব: ৫০ ওভারে ২৪০/৯ (ইমতিয়াজ ৮, ফারদীন ৩৯, রাকিন ১১, নাসির ৪৮, সোহান ৬৫, তানবির ১, জিয়াউর ২৭, ইলিয়াস ২৮, শহিদুল ৬, শাকিল ১*, আফ্রিদি ০*; নাহিদ ২/৫০, রশিদ ৩/৪৪, সাজ্জাদ ০/৪৭, মহিমেনুল ০/৮, পায়েল ৩/৬৫, রাজা ১/২৪)।

ফলাফল: উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাব ৯ রানে জয়ী।

Comments

The Daily Star  | English
Cuet students block Kaptai road

Cuet closed as protest continues over students' death

The Chittagong University of Engineering and Technology (Cuet) authorities today announced the closure of the institution after failing to pacify the ongoing student protest over the death of two students in a road accident

29m ago