শেষ দিনে এক সেশনও টিকতে পারল না বাংলাদেশ

হাতে থাকা সাত উইকেট নিয়ে পুরো দিন ব্যাট করার পণ ছিল বাংলাদেশের, অথচ টিকতে পারল না এক সেশনও। অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহর নিঃসঙ্গ লড়াই ছাড়া প্রতিরোধ দেখাতে পারেননি আর কেউ। বৃষ্টিতে তিন দিনের ম্যাচে পরিণত হওয়া ওয়েলিংটন টেস্টেও ইনিংস ব্যবধানে হারতে হলো বাংলাদেশকে।
ছবি: নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট

হাতে থাকা সাত উইকেট নিয়ে পুরো দিন ব্যাট করার পণ ছিল বাংলাদেশের, অথচ টিকতে পারল না এক সেশনও। অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহর নিঃসঙ্গ লড়াই ছাড়া প্রতিরোধ দেখাতে পারেননি আর কেউ। বৃষ্টিতে তিন দিনের ম্যাচে পরিণত হওয়া ওয়েলিংটন টেস্টেও ইনিংস ব্যবধানে হারতে হলো বাংলাদেশকে। 

মঙ্গলবার ওয়েলিংটনের বেসিন রিজার্ভে আর বৃষ্টির পূর্বাভাস ছিল না। কিন্তু বাংলাদেশের ইনিংসে বইল যেন ঝড়। আবারও নিল ওয়েগনার তোপ দাগলেন শর্ট বলে, ট্রেন্ট বোল্ট ছোবল আনলেন স্যুয়িং, পেসে। বাংলাদেশের দ্বিতীয় ইনিংস শেষ ২০৯ রানেই। হার ইনিংস ও ১২ রানের। 

প্রথম দুই টেস্টেই একপেশে জিতে তিন ম্যাচ সিরিজও নিশ্চিত করেছে স্বাগতিকরা। ১৬ মার্চ থেকে ক্রাইস্টচার্চে শুরু হবে সিরিজের শেষ টেস্ট। 

বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের 'যম' ওয়েগনার ৪৫ রানে নিলেন ৫ উইকেট। বোল্টের পকেটে ৫২ রান খরচায় ৪টি। এই দুজনের তোপে অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ ৬৯ বলে ৬৭ করেও এড়াতে পারেননি ইনিংস হার।  

আগের দিনের দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার ও মোহাম্মদ মিঠুন শুরু থেকে ছিলেন নড়বড়ে। দ্বিধাধন্দে রান আউটের ফাঁড়া কেটেছে। সাউদির বলে সৌম্যের ক্যাচ পড়েছে। তবু সকালের ঝাঁজ সয়ে মনে হচ্ছিল টিকে যাচ্ছেন তারা। বোল্ট এসে সৌম্যকে ফিরিয়ে আনেন আঘাত। তার বাড়তি বাউন্সের বলে স্লিপে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ২৮ রান করা সৌম্য।

আগের দিনের ২৫ নিয়ে এদিন ফিফটির দিকে এগুচ্ছিলেন মিঠুন। মাহমুদউল্লাহ এসে দ্রুত রান বাড়াতে থাকলে জমে যায় জুটিও। কিন্তু ওয়েগনারের শর্ট বলে আর পেরে উঠেননি মিঠুন। ১০৫ বলে থামে তার ৪৭ রানের সংগ্রাম। 

এরপর লিটন দাস এসেই পাততাড়ি গুটান দ্রুত। যম সেই ওয়েগনারের শর্ট বল। যা আসছে জেনেও নাকি প্রতিরোধের উপায় খুঁজে পায় না বাংলাদেশ। টেল এন্ডারদের নিয়ে ইনিংস হার এড়ানোর তবু সম্ভাবনা ছিল অধিনায়কের। সেটা হয় কিনা তা নিয়েই দোলাচল ছিল। তাইজুল ইসলাম ফিরতে বাকিদের নিয়ে আর লড়াই বেশি চালানো যাবে না টের পেয়েছেন মাহমুদউল্লাহ। দ্রুত রান বাড়াতে গিয়ে হয়েছে তার বিদায়। বলা ভালো তার যমও ওয়েগনারের সেই শর্ট বল। 

সংক্ষিপ্ত স্কোর: 

বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস:
২১১

নিউজিল্যান্ড প্রথম ইনিংস: ৪৩২/৬ (ডিক্লে)

নিউজিল্যান্ডের লিড- ২২১ রান

বাংলাদেশ দ্বিতীয় ইনিংস:  ২০৯ (তামিম ৪, সাদমান ২৯, মুমিনুল ১০, মিঠুন ৪৭, সৌম্য ২৮, লিটন ১, তাইজুল ০, মোস্তাফিজ ১৬, জায়েদ ০*, ইবাদত ০  ; বোল্ট ৪/৫২, সাউদি ০/৫৭, হেনরি ১/৪০, গ্র্যান্ডহোম ০/১১, ওয়েগনার ৫/৪৫) 

ফল: নিউজিল্যান্ড ইনিংস ও ১২ রানে জয়ী। 

ম্যান অব দ্য ম্যাচ: রস টেইলর। 

Comments

The Daily Star  | English

Thousands pray for rain as Bangladesh sizzles in heatwave

Thousands of Bangladeshis yesterday gathered to pray for rain in the middle of an extreme heatwave that prompted authorities to shut down schools around the country

15m ago