খেলতে আপত্তি ব্রাদার্সের, পয়েন্ট পেল মোহামেডান

মোহামেডানের ইনিংসের পরই বিকেএসপিতে নেমেছিল ঝুম বৃষ্টি। সেই বৃষ্টি থামার পর মাঠ খেলার অনুপযুক্ত হওয়ায় নামতে আপত্তি জানায় ব্রাদার্স ইউনিয়ন। এতে নিয়ম অনুযায়ী মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবকে জয়ী ঘোষণা করা হয়েছে।
DPL 2019

মোহামেডানের ইনিংসের পরই বিকেএসপিতে নেমেছিল ঝুম বৃষ্টি। সেই বৃষ্টি থামার পর মাঠ খেলার অনুপযুক্ত হওয়ায় নামতে আপত্তি জানায় ব্রাদার্স ইউনিয়ন। এতে নিয়ম অনুযায়ী মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবকে জয়ী ঘোষণা করা হয়েছে।

সকালে টস হেরে ব্যাট করতে গিয়ে তিন ফিফটিতে ৩১৬ রানের বড় সংগ্রহ পায় মোহামেডান। কিন্তু ব্রাদার্সের ইনিংসের আগে নামা ঝুম বৃষ্টির পর মাঠ প্রস্তুত করে ডি/এল মেথডে খেলা শুরুর প্রক্রিয়া নিয়েছিলেন আম্পায়াররা। কিন্তু মাঠ দেখতে গিয়ে খেলার ব্যাপারে নেতিবাচক সিদ্ধান্ত জানায় ব্রাদার্স।

ক্লাবটির ম্যানেজার আমিন খান জানান,  ‘আমরা উইকেটে গিয়ে দেখি এখানে খেলা সম্ভব না। পিচ ভেজা। হয়তবা খেলোয়াড়দের স্পাইকের আঘাতে এমন হয়েছে।’

বিসিবির কিউরেটর নুরুজ্জামান নয়ন জানান উইকেট ঢেকে রাখার ত্রিপল ফুটো হওয়ায় হয়ত পিচ কিছুটা ভিজে গেছে।

তবে ম্যাচ রেফারি আখতার হোসেন জানান, পিচের ওই ভেজায় খেলা না হওয়ার মতো ছিল না। ২০ ওভারে ব্রাদার্সকে ১৭৬ রানের লক্ষ্য দেওয়া হয়েছিল৷ কিন্তু ব্রাদার্স মাঠে নামেনি। তবে ব্রাদার্সের ম্যানেজার বলছেন, অফিসিয়ালি মাঠে নামার ব্যাপারে তাদেরকে না জানিয়েই শেষ করে দেওয়া হয়েছে খেলা।

বৃষ্টির কারণে তৈরি হওয়া এই বিতর্কের আগে মোহামেডান ইনিংসকে আলোয় রাঙা করেছিলেন অভিষেক মিত্র, ইরফান শুক্কুর, রকিবুল হাসান আর সোহাগ গাজী।

অভিষেক আর ইরফান ওপেনিং জুটিতেই করে ফেলেন ১৭৪ রান। অভিষেক ৭৯ বলে ৬৮ আর ইরফান ফেরেন ৯২ রান করে। এরপর মিডল অর্ডারে নেমেছিল হালকা ধস। সেই ধস সামলে রকিবুল হাসান করনে ৩৫ বলে ৫০। শেষ দিকে সোহাগ গাজী ২৫ বলে ৪৩ রান করলে তিনশো ছাড়িয়ে যায় মোহামেডান।

এই জয়ে ৮ ম্যাচের চারটা জিতে ৮ পয়েন্ট পেল মোহামেডান। অন্যদিকে ব্রাদার্স সমান ম্যাচে হারল ছয়টিতেই।

মঙ্গলবার ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের সব ম্যাচেই দেখা গেছে বৃষ্টির দাপট। মিরপুরে ডি/এল মেথডে ৪৯ রানে উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাবকে হারিয়েছে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স। ফতুল্লায় শাইনপুকুরের কাছে ডি/এল মেথডে ৪৮ রানে হেরেছে প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব। 

Comments

The Daily Star  | English

Consumers brace for price shocks

Consumers are bracing for multiple price shocks ahead of Ramadan that usually marks a period of high household spending.

2h ago