বিশ্বকাপ দলে নিজেকে দেখে অবাক মোসাদ্দেক

১৩ জনের দল চূড়ান্ত ছিল আগেই। তাসকিন আহমেদ সুস্থ থাকলে হয়তো ১৪তম খেলোয়াড়ের জায়গাটাও পূর্ণ থাকতো। ১৫তম খেলোয়াড় হিসেবে কে যাচ্ছেন এ নিয়ে ছিল রাজ্যের গুঞ্জন। দারুণ ছন্দে থাকা ইয়াসির আলী চৌধুরী রাহী নাকি অভিজ্ঞ মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। শেষ পর্যন্ত অভিজ্ঞতাকেই বেছে নিয়েছেন নির্বাচকরা। তবে অভিজ্ঞতার চেয়ে বল করার সামর্থ্যই এগিয়ে রেখেছে তাকে। আর তাতে বেশ অবাক হয়েছেন খোদ মোসাদ্দেকই।
Mosaddek Hossain
ছবি: বিসিবি

১৩ জনের দল চূড়ান্ত ছিল আগেই। তাসকিন আহমেদ সুস্থ থাকলে হয়তো ১৪তম খেলোয়াড়ের জায়গাটাও পূর্ণ থাকতো। ১৫তম খেলোয়াড় হিসেবে কে যাচ্ছেন এ নিয়ে ছিল রাজ্যের গুঞ্জন। দারুণ ছন্দে থাকা ইয়াসির আলী চৌধুরী রাব্বি নাকি অভিজ্ঞ মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। শেষ পর্যন্ত অভিজ্ঞতাকেই বেছে নিয়েছেন নির্বাচকরা। তবে অভিজ্ঞতার চেয়ে বল করার সামর্থ্যই এগিয়ে রেখেছে তাকে। আর তাতে বেশ অবাক হয়েছেন খোদ মোসাদ্দেকই।

অবাক হওয়ার আরও কারণ রয়েছে। গতকাল আবাহনীর জার্সিতে খেলতে নেমে রানের খাতাই খুলতে পারেননি তিনি। ভয় তাই কিছুটা হলেও ছিল। সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সে যে বেশ এগিয়ে ইয়াসির আলী রাব্বি। মোসাদ্দেক জায়গা না পেলে হয়তো এ ক্রিকেটারই সুযোগ পেতেন। গত বছর থেকেই ধারাবাহিকভাবে রান করে যাচ্ছেন এ ব্যাটসম্যান।

এশিয়া কাপ সবশেষ বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে খেলেছিলেন মোসাদ্দেক। তিনটি ম্যাচে সুযোগ পেয়ে করেছিলেন ৩৯ রান। এরপর গত বিপিএলটাও বিবর্ণ। তাই নিউজিল্যান্ড সিরিজে আর জায়গা হয়নি তার। কিন্তু ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে হঠাৎ করেই রানে ফেরায় স্বস্তি পান তিনি। প্রিমিয়ার লিগে আবাহনীর জার্সিতে ১২ ম্যাচে এক সেঞ্চুরি ও দুটি হাফসেঞ্চুরিতে তার রান ৪২৮। ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি অফস্পিনটাও খারাপ করেন না। আর এ বোলিংই এগিয়ে রাখল তাকে।

বিস্মিত মোসাদ্দেক বললেন এমনটাই, ‘ঘুম থেকে ওঠার পর যখন শুনলাম তখন স্বাভাবিকভাবেই অবাক হয়েছি। আমারও একটা ধারনা ছিল হয়তো থাকতেও পারি নাও থাকতে পারি। শোনার পর অবশ্যই অনেক ভালো লাগছে। এটা আমার জন্য অনেক বড় একটা অর্জন। যখন থেকে খেলা শুরু করি তখন থেকেই স্বপ্ন দেখি বিশ্বকাপে খেলব।  দলে আছি, আমি চেষ্টা করব সুযোগ পেলে ভালো কিছু করার।‘

এবারের ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে আবাহনীর হয়ে ১২ ম্যাচে বল হাতে নিয়েছেন আট বার। তাতে ২৩.৮৫ গড়ে ৭ উইকেট পেয়েছেন। ইকোনমি রেট অবশ্য বেশ ভালো, ৩.৯৭। আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও খুব ভালো নয় মোসাদ্দেকের অফস্পিন। ২২ ইনিংসে বোলিং করে পেয়েছেন ৪১.২৭ গড়ে ১১ উইকেট। তবে গত চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে ইংল্যান্ডের মাঠে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মাত্র ১৩ রানে পেয়েছিলেন ৩ উইকেট। ভাবা হয়েছে সে সাফল্যও।

মোসাদ্দেককে দলের নেওয়ার কারণ হিসেবে নান্নুও যুক্তিও এমনটাই, ‘সৈকত ঘরোয়া ক্রিকেটে ভালো খেলেছে। আর আমরা একজন অলরাউন্ডার চাচ্ছিলাম যে অফ স্পিন করতে পারে। কারণ রিয়াদেরও একটি কাঁধের ইনজুরি আছে। তাই সে বোলিং নাও করতে পারে। সেই কথা চিন্তা করে যেন ব্যাকআপ হিসেবে একজন স্পিন বোলিং অলরাউন্ডার দরকার হয় তাই সৈকতকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।'

Comments

The Daily Star  | English

Step up efforts to prevent fire incidents: health minister

Health Minister Samanta Lal Sen today urged all the authorities concerned of the government to stay alert and strengthen monitoring and conduct regular drives to reduce fire incidents

49m ago